চারু মান্নানের কবিতা ট্যাগের সব লেখা

শূন্য মহাকাল
_____শূন্য মহাকাল শূন্য মহাকাল,
শূন্য তুচ্ছ অতি কণা সাজিয়ে রইছে দ্যাখো
সচল মহা রণে; দিক হতে দিগন্তে পথিক পথ খুঁজে ফিরে
শূন্য ধুলি কণা শুন্যভুমি মিলে। কিসের এত সাজ?
কিসের তোরজোড়? সবই তো শূন্য খোল নিত‌্য শূন্য ভরে!
কবিতার আঁচল ছিঁড়ে; শূন্য খান খান
এদিক ওদিক ফিরে শূন্য নিরিখে
অমানিশায় ঘুরে। বাঁচিতে কত যত্ন পড়ুন
কবিতা | | ২ টি মন্তব্য | ৬৫ বার দেখা | ৭২ শব্দ
_______আচমকা প্রেম
_______আচমকা প্রেম একদিন সেই দিন
আরশিতে তোমার পারদ খসে পড়ে
তবুও যত্ন আত্তির কমতি নেই। বাড়ন্ত বেলার তেজ! দিগন্ত দুরে পালিয়ে যায় চুপি চুপি
তোমার বারান্দার কার্নিশে
চুড়ই জটলা; তোমার মৌনতা টুটে যায়
আঁধিয়ার আঁচলে জলের পটলা এখন
ধোঁয়াশা মেঘের পাহাড়। ইজি চেয়ারে ঝিমুনিতে
তুমিই বুঝি রেখেছ জেইয়ে!
আচমকা প্রেম;
অকার্সাৎ হারিয়ে গেয়েছিল যা, নক্ষত্র স্ফুলিঙ্গ পড়ুন
কবিতা | | ৮ টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ২৬৪ বার দেখা | ৬০ শব্দ
______না, তা নয়
______না, তা নয় কালের রাজ্য সময় বড়ই ক্ষণিকের অহমিকা
ক্ষণ যাপনেই তৃপ্ত সময়, নিয়েছে জড়িয়ে
অক্টোপাশের মতো করে;
ছাড়াবার কাল, কেবলই যবনিকা পাটে! সময় আর জীবন
কাঁটায় কাঁটায় চলে ক্ষণ জুঁপে জুঁপে
তবে সময় অসীম পারাবার,
সীমানা কই?
কিন্তু জীবন সময় হিসেবে আঁটা
দম ফুরাইলে ঠুস। তা, হলে জীবনের সাথে আত্মিকতা আছে
সেও কি সময়ের ছকে পড়ুন
কবিতা | | ৫ টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ৯৮ বার দেখা | ৫৪ শব্দ
সময় ক্ষত
____সময় ক্ষত আমাকে ছেড়ে দাও
যেতে দাও আমাকে, আমি যে বন্দি
বাঁধা পড়ে আছি এখানে, এই সময়। সময় বড়ই স্বাধীন
কিন্তু সময় স্বাধীনতা দিতেই চায় না;
শুধু ফুরিয়ে যাবার চিত্র আঁকে
সময় ফিতায়; উর্মিল মাস্তুল সময় ঝড়ে কেঁপে উঠে
যেন ধরেছে সময় পার্বণ। কথার সীমানায় সময় ধরে আসে
মেঘেদের বুক চিরে লুকিয়ে পরে
মেঘ ফুরাইলে পড়ুন
কবিতা | | ১০ টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ৪৭৮ বার দেখা | ৫৮ শব্দ
সবিনয় প্রেম আসুক ফিরে শ্রাবণে
______সবিনয় প্রেম আসুক ফিরে শ্রাবণে লজ্জাবতীর ঝাড়ে এ কি ছোঁয়া?
আধো বৃষ্টির ধারায়;
নন্দন মায়ায় এ কোন বিরহ পোড়া দহন?
ধোঁয়ার আদলে ঝর ঝর বাদল;
বাবলার ডালে তিলাঘুঘু ভিজে সারা
মেঘ বালিকা ডেকে ডেকে যায়
ঐ দূর নীলিমায়। রাধার আঁচল চুইয়ে চুইয়ে বিরহী প্রেম
বৃষ্টি বাদল হয়ে ঝরে
ময়ূর পেখম খোলা সাঁঝ; শ্রাবণ অমানিশায়
আকুল পড়ুন
কবিতা | | ৭ টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ১১৩ বার দেখা | ৫৪ শব্দ
_____ শ্রাবণকে ডেকে দাও
_____ শ্রাবণকে ডেকে দাও আমি তুমির অভিমান ক্ষয়ে গেছে
কোন এক শ্রাবণে? ঝর ঝর বারি বর্ষণে সে কথাই
বার বার মনে পড়ে। শাপলা বিলে, নতুন জলের বর্ষা
একূল ওকূল ভাসান
বিরহ লখিন্দর পুরাণ; চম্পক বন
ডুবো ডুবো ছেড়া দ্বীপ যেন! নাই ওর নায়ে ছুঁই দেখা যায়
ঐ দূরে জেলের নায়ের পাশ পড়ুন
কবিতা | | ৬ টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ৪৪২ বার দেখা | ৮৮ শব্দ
আমাকে যেতে দাও
_______আমাকে যেতে দাও স্বাধীনতা আজ, বিমর্ষ যন্ত্রণা! মুক্তির আশফলন
মৃত্যুর মরীচিকা যেন;
কদর্য লেহনে, ঘুরে বেড়ায় দেশ হতে দেশান্তর
প্রেম আজ মৃত্যুর শোক গাঁথা, অশ্রুজল
অবিরাম ভিজে! মৃত্তিকা পান করে শোষণে। আমাকে যেতে দাও, সেই মৃত্যুর মিছিলে
শবদেহ আর সাদা কাফনে!
মুক্তির স্বাদ; অতল তলে হারিয়ে যাক, লুকিয়ে যাক
ডুবে যাক অপর পড়ুন
কবিতা | | ৫ টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ৬৩১ বার দেখা | ৬৬ শব্দ
_______লকডাউন যাপন
_______লকডাউন যাপন কত দিন পর কবিতার কি প্যাডে?
দিলাম হাত;
আর তখনই গ্রীস্মের তাপদাহ স্বর্ণচূড় ফুলে চমকায়
তোমার হাতের ছোঁয়া বিরহের নামান্তর! ধুঁ ধুঁ রৌদ্রর মরিচীকায় মৃত্যুর অম্লঘ্রাণ
ঘর্মাক্ত বিষ্ঠার বিষন্নতা ছড়িয়ে যায়,,
হাওয়ার শরীর জুড়ে; সরীস্রিফের শীতনিদ্রার মতো
লকডাউন যাপন।
তোমায় মনে পড়েছিল খানিক রোদ্রপোলাপে
সজুব ঘাসে চিতল হরিণীর
ঘাসে যাবর কাটার মতো করে;
বনুনে নন্দন পড়ুন
কবিতা | | ৬ টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ৬২৩ বার দেখা | ৬১ শব্দ
অদৃশ্য ঘণ্টাধ্বনি
অদৃশ্য ঘণ্টাধ্বনি
কোথায় ও
কোন ঘণ্টা বাঁধা নেই?
তবুও ঘণ্টার আওয়াজ ভেসে আসে
যেন মেঘের চাতাল হতে!
ঢ়েরা পেটার মতো
সারা পৃথিবী জুড়ে বিমর্ষ এক ঘণ্টাধ্বনি
বেজে চলেছে তো চলছে
যেন এক রাজার আদেশ? এখনি তাঁর দরবারে
হাজির হতে হবে;
না হলে শাস্তি অশেষ বিড়ম্বনার! নাকে খত দেবার মতো
আর ও পথে হেঁটো না; ও যে পড়ুন
অন্যান্য | | ৪ টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ৩০৮ বার দেখা | ৮৭ শব্দ
হাওয়া ময়
_______হাওয়া ময় শোনছো না কি?
আজরাইল ঘুরছে, হাওয়া ময়
হাওয়ায় জীবন
চঞ্চলতা, চপলতায় ভরা; সেই হাওয়ায় এখন
লিখছে মৃত্যু সনদ!
লীলা খেলা তাঁরই। মৃত্যু বিলাপ
তাঁরই হাতেই নিত্য চলাচলে
ধরার বায়ু আলখেল্লা বসনে ছুটে চলে পৃথিবী ময়
কেউ বা বাঁচিবে কেউ বা মরিবে
তাঁর সনদ তাঁরই হাতে উল্‌টায়
সত্য বিধান তলবে; বার বার খেই হারিয়ে যায়
সু মন্দ পড়ুন
কবিতা | | ৭ টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ২৭৮ বার দেখা | ৬২ শব্দ
এমনি তোমার যুগপৎ আমন্ত্রণ
=======এমনি তোমার যুগপৎ আমন্ত্রণ পলাশ শিমুল পার্বণের
তোমার বাসন্তী দিনে, দক্ষিণা বাতাস আঁচল উড়ায়
মুর্ততায় অভিমানে।
আকাশ নীলের
ব্যথিত বেদন, ঘুচিয়েছে নীল যাতনার অপার
যেন কস্তুরী ঘ্রাণ। এমনি তোমার যুগপৎ আমন্ত্রণ
এসেছ ফিরে এমন বসন্ত দিন, মলিন বেদন আজ
উঠেছে জেগে শুভ্র সতেজ মননে। ফুল আর ফুলে করিতে খেলা
দিবা রাত্রির সময় ক্ষয়ে ক্ষয়ে, ভুলেছ পড়ুন
কবিতা | | ৩ টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ১৭২ বার দেখা | ৫২ শব্দ
পাখিদের নিশি কাব্য
______পাখিদের নিশি কাব্য আজ পৌষ পার্বণ;
তুমি ফিরে এলে না! বাতাস কানে, আজ না তোমার কথা শুনলুম
সবুজ পাতার শিশির ভেজা ঘ্রাণে
আমলকী বন।
পৌষ হাওয়া বয় উত্তরের
কদাচিৎ সজনে ডাল কেঁপে উঠে, শিশির জমানো ফোটা
মাকড়ষার জালে গেঁথে রয়। তুমি ফিরবে বলে;
ঝিরঝির বাতাসে লাউ ফুলে কস্তরি হলুদ পোকাটা পাখনা মেলে উড়ে
ধুলো পড়ুন
কবিতা | | ৪ টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ১৯৪ বার দেখা | ৮৬ শব্দ
আমাকে ক্ষমা কর মা
____আমাকে ক্ষমা কর মা আমাকে ক্ষমা কর মা! আমরা পারিনি,
তোমার রক্তের ঋণ করিতে শোধ!
রক্ত দানে; যে স্বাধীনতা কেনা! স্বপ্ন সম্ভার মুক্তির,
ফিরে ফিরে মূল্য খুঁজি তার!! আজও কৃষকের লাঙ্গলের ফলায় গেঁথে উঠে
বীর শহিদের করোটি;
অস্থি মজ্জায় সোদা রক্তের ঘ্রাণ, অমানিশায়
বিলিয়ে দিয়েছে জীবন; ৭১ এর রনাঙ্গণে।
ওদেরকে ভুলি কেমনে মা!
পারিজাত পড়ুন
কবিতা | | ২ টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ১৮৬ বার দেখা | ৬৭ শব্দ
প্রেম যে কস্তুরী ঘ্রাণ
প্রেম যে কস্তুরী ঘ্রাণ যেতে দাও আজ তোমার অবরুদ্ধ নগরীতে
বন্ধ দ্বার এবার খুলে দাও, নন্দন
কোলাহলে।
আর কত দিন রইবে অবরুদ্ধ, বন্দি অভিমানে
দ্যাখো হেমন্তের নবান্ন সুবাস, তোমার দ্বারে
খিড়কি খুলো!
কালের বার্নিশ দ্যাখো চির ধরেছে, নোনা ধরা
দেয়াল দ্যাখো পড়ছে খসে, নন্দন বাগে ঝরছে
হলুদ পাতা। গহন লাগা প্রাচীরে আর কত ডাকবে পড়ুন
কবিতা | | ১৮ টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ৩২১ বার দেখা | ৭৫ শব্দ
বিন্দুতে ঐ শূন্য টেনে শূন্য পথে একলা হাঁটা
—–বিন্দুতে ঐ শূন্য টেনে শূন্য পথে একলা হাঁটা ঐ চেয়ে দ্যাখো
ঘুরছে পৃথিবী; আমি তুমিও সাথে সাথে
পাঁজর ভেঙ্গে পড়ছে খসে
নক্ষত্রের ঐ পেন্ডুলাম বুনে!
যাতনা সুখের গোলাক ধাঁধা
বুদ্ধি গিলে পণ্ডিত হই। আমি তুমি ঘুরছি বেকার পৃথিবী নামের
সমতলে; বিন্দুতে যে বিন্দু মিশে
সবাই তাই সস্থি খুঁজে!
অমানিশা আর মোহনেশা
সবই তো ঐ বিন্দুতেই
কারুকার্য্যে পড়ুন
কবিতা | | ১৪ টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ২৮৬ বার দেখা | ৬৮ শব্দ