সৌমিত্র চক্রবর্তী-এর ব্লগ
সাধু সাবধান
সত্যি কথা বলতে কি
আমরা যখন ছোট ছিলাম-
মনের মধ্যে ভুল ছিল,
কিন্তু তখন খুশ ছিল
অভিমানে অনুরাগে
কাটিয়ে দিতাম দিনগুলো,
পরস্পরের প্রতি কেমন
অখণ্ড এক টান ছিল। মোদ্দা কথা আমরা যখন
মাঝের দলে পা দিলাম,
সবজান্তা নেতা হয়ে
পায়ের ওপর পা তুলে
ভক্কি দেওয়ার শিক্ষা পেলাম,
চালবাজি আর পরস্পরকে
প্রবঞ্চনার প্রেজেন্টেশান
আদর্শের বুলি পড়ুন
কবিতা | ১টি মন্তব্য | ৪০ বার দেখা | ১২৪ শব্দ
এক অনন্য দলিল: ২০১৪ তে লিখেছিলেন জিহান আল হামাদী
এক অনন্য দলিল: ২০১৪ তে লিখেছিলেন জিহান আল হামাদী
“৭ মার্চ ১৯৭১।
রেসকোর্স ময়দানে মঞ্চ প্রস্তুত। উপস্থিত সম্মিলিত দর্শক শ্রোতারা অধির আগ্রহে অপেক্ষা করছেন তাঁদের অবিসংবাদিত নেতার জন্য। অবশেষে তিনি এলেন এবং উঠে দাঁড়ালেন জনসমুদ্রের মঞ্চে। তিনি শুরু করলেন। তাঁর প্রতিটি শব্দ আছড়ে পড়তে লাগল, ঢেউ খেলে গেল জনসমুদ্রের পড়ুন
ইতিহাস-ঐতিহ্য | ৩ টি মন্তব্য | ১১৫ বার দেখা | ২১২৯ শব্দ ১টি ছবি
আজ নাটক
আজ নাটক
সে এক দিন। ভ্রাতৃপ্রতিম বন্ধু পরিচালক – অভিনেতা উজ্জ্বল হকের আমন্ত্রণে সিউড়িতে আননের নাটক দেখতে গেছিলাম। সেদিন অডিটোরিয়ামে বসে নাটক শুরুর আগে লিখেছিলাম নীচের কবিতা। থিয়েটার শেষ হলে সেখানে অনেকের সঙ্গে আলাপ হয়েছিল, যার মধ্যে নাট্যকার অতনু বর্মণ এখনো বন্ধু বৃত্তে আছেন। আর থিয়েটার পড়ুন
জীবন | ৩ টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ৬২ বার দেখা | ১০৩ শব্দ ১টি ছবি
কথা অকথা
মাঝে মধ্যে কথা বলার খুব ইচ্ছে করে। এমনিতে সবার সঙ্গে বসে জমিয়ে গল্প করতে আমি কোনদিনই দক্ষ নই। অনেকে বসে থাকলে অন্যদের কথা, গল্প শুনি। আর মাঝেমধ্যে টুকটাক বলি। গল্প শুনতে বেশি ভালো লাগে। কিন্তু কথা বলার সব ইচ্ছে চাগিয়ে ওঠে এরকম রাতে। বাইরে পড়ুন
জীবন | ৩ টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ৩৭ বার দেখা | ২৮০ শব্দ
শিরোনামহীন কবিতা
নারকেলের পাতার ফাঁকে পাতলা হয়ে
উঁকি দেয় গেরুয়া ঝিরিঝিরি মেঘচোখ,
তেত্রিশ সার্পেন্টাইন লেনে
সি শার্পে মাথা দোলায় ষাটের দশকের
হলদিবাড়ির স্মৃতির অ্যাকর্ডিয়ান
আর পিটারের যাযাবর গিটার,
রাত্রির দ্বিতীয় চরণ সবে আদরপর্বে। টুপচুপ আকাশগ্ল্যান্ডের ক্ষরণে
আশ্রয়চ্যুত চারপেয়ে দোপেয়ের যুগলবন্দী
খুঁজে বেড়ায় একটুকরো বেশ্যাছাদ-
অন্তত সেখানে কেউ
গেট আউট বাক্যবন্ধে বাস করেনা। একটানা ঝিমঝিম বেজে চলা টিনশেড-
দূরের কারখানার পড়ুন
কবিতা | ৪ টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ১১৫ বার দেখা | ৬৩ শব্দ
নিজকিয়া ৯
আমি কি বিষণ্ন হয়ে আছি?
আমি তো বিষণ্ন হয়ে আছি।
ঠোঁটের ওপরে ভ্যানিশিং জলরংয়ে
এঁকে রাখা হাসির নকল টুকরো
হাতের মুঠোয় এগিয়ে দেওয়া
শুভেচ্ছা সন্দেশ কেউই বোঝেনি
ঠিক কতখানি ভেজাল ছিল।
আমি তো বিষগমণ করেছি
এই পান্থবেলায়, দুহাত জড়ো করে
ওয়েলকাম করেছি তোমার
অনাকাঙ্খিত গমণ; এই অবেলায়
দরজার বাইরে জুতো খুলে
কথারা অকালমৃত হয়:আমি তো
বিষণ্নই আছি, পড়ুন
অন্যান্য | ৩ টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ১৯৯ বার দেখা | ৫২ শব্দ
দহন ২৯ এবং ৩০
দহন ২৯ এবং ৩০
দহন ২৯ মৃত্যু আসে চুপিসারে
মৃত্যু আসে কক্ষে
মৃত্যু আসে অন্ধকারে
নিবিড় কৃষ্ণ পক্ষে।
*** দহন ৩০ হাতে রইলো ক্ষয়াটে পেন্সিল
ভাঙা শ্লেট গড়াগড়ি যায়
আবহে খোয়া খোয়া চাঁদ
পাটিগণিত বাংলা নেশায়। পড়ুন
কবিতা | ২ টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ২৫ বার দেখা | ২২ শব্দ ১টি ছবি
মেমসাহেবা
মেমসাহেবা
একঘন্টা বকমবকম করার পরে আজও
আসল কথাটাই বলা হলো না,
ফোন তুললেই তুই এমন
পাহাড়ি ঝোরা হয়ে যাস!
আর আমি ভাসতে ভাসতে
সাঁঝবিহানের কল্পমানুষ হই। চার চারটে বছর মেশিন হয়েই
কাটিয়ে দিলাম এপাড়া ওপাড়া,
কলেজের পড়ার রক্তচাপ বাড়ছে যতই
ততই ইচ্ছে করছে এই সব
চারদিকে ছড়ানো ছেটানো
বই খাতা পেন পেন্সিলের পড়ুন
কবিতা | ২ টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ৪২৭ বার দেখা | ১৩৩ শব্দ ১টি ছবি
দহন ২৭ এবং ২৮
দহন ২৭ এবং ২৮
দহন ২৭ মাঝেমাঝে দুঃখ আসে
মাঝেমাঝে সুখ,
কখনো অল পারফেক্ট
কখনো ভুলচুক।
*** দহন ২৮ এভাবেই একটা করে নিস্পত্র দিন কাটে
পাগল নুড়ি ছিটকে যায় পায়ের চলন্ত ঘাতে
পাগলের কোনো বিশেষ দিন থাকে না
শুধুই ফ্যালফ্যাল চাউনিতে মেশে
গত জন্মের না পাওয়া চাওয়ার গুচ্ছ।
*** পড়ুন
কবিতা | ২ টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ১৭ বার দেখা | ৩৩ শব্দ ১টি ছবি
দহন ২৫ এবং ২৬
দহন ২৫ এবং ২৬
দহন ২৫ কাছেরা দূরে গেল
দূরেরা কাছে,
রাস্তা বদলে যায়
আমি তো একই আছি। *** দহন ২৬ বোতল গেলাশ সামনে আছে
ঢালছি কিন্তু খাচ্ছি না।
মনের অসুখ গাছ হয়েছে
জল না দিলেও কমছে না।।
*** পড়ুন
কবিতা | ২ টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ১৮ বার দেখা | ২৫ শব্দ ১টি ছবি
দহন ২৩ এবং ২৪
দহন ২৩ এবং ২৪
দহন ২৩ বছর পকেটে পুরে এগোয় পাগল
ঝাঁকড়া চুলে লুটোপুটি খায়
আদিম আকাশ
তৈরী করা নকল হাসি কিম্বা
বাকি সব বকোয়াস
*** দহন ২৪ কোথায় যেন একফোঁটা রক্ত ঝরলো কেউ আহা বললো কি! কিম্বা
কোনো উৎসুক চোখ জানলায় কুয়াশায় শুধু বেদনার্ত মুখের মিছিল।
*** পড়ুন
কবিতা | ২ টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ২০ বার দেখা | ৩২ শব্দ ১টি ছবি
গোলবাড়ির কষা মাংস!
গোলবাড়ির কষা মাংস !!
উপকরন :~
১ ১ কেজি খাসি/পাঠা-র মাংস
২ ২ টো বড় পেয়াজ সরু করে কুচানো
৩ ২ বড় চামচ রসুন বাটা
৪ ২ বড় চামচ আদা বাটা
৫ ১ বড় চামচ কাঁচা লঙ্কা বাটা
৬ ৩ বড় চামচ জিরে গুড়ো
৭ ২ বড় চামচ লঙ্কা গুড়ো
পড়ুন
জীবন | ১টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ২৮ বার দেখা | ২৬৫ শব্দ ১টি ছবি
দহন ২১ এবং ২২
দহন ২১ এবং ২২
দহন ২১ যারা মেরেছিল তারা বিলীন হয়েছে
পেছনে রেখেছে কলঙ্ক দাগ,
যারা মরেছিল আজ অক্ষয়বট
মিলিয়ে গিয়েছে দুঃখ ও রাগ।
*** দহন ২২ ভালোবাসি বললেই বেড়ার গায়ে
ফোটা ফুল নিষাদ রক্তচোখ
ভালোবাসি ভাবলেই সাধাসিধে
ফ্ল্যাটও গুয়ান্তেনামোর টর্চার সেল।
*** পড়ুন
কবিতা | ২ টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ৩৫ বার দেখা | ৩০ শব্দ ১টি ছবি
দহন ১৯ এবং ২০
দহন ১৯ এবং ২০
দহন ১৯ প্রশস্ত রাস্তা তৈরী করিনি আমার একটেরে ঘরের সামনে
মুখের ওপরে বহুবার বন্ধ করেছি ভারী সেগুন দরজা,তবুও
স্খলনের অসতর্ক সেকেন্ডে জানলার রন্ধ্রপথে
ঢুকে রেখে গেছে উন্মত্ত পায়ের ছাপ। পড়ুন
কবিতা | ৩ টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ১৭ বার দেখা | ৫২ শব্দ ১টি ছবি
দহন ১৭ এবং ১৮
দহন ১৭ এবং ১৮
দহন ১৭ প্রাত্যহিকী ক্রমেই অস্পষ্ট / হাতের রুক্ষ তালু / দূর প্রান্তিক খর্জূর বৃক্ষ / হৃদয়ের নিস্তব্ধ অতলে / বসতবাড়ির নিভৃত অন্দরমহল / জীবন আর মুখ / মুখ ও জীবন / এক সময়ে আত্মবিলোপ / পৃথিবী ঘুরে যায় শনশন্ পড়ুন
কবিতা | ৩ টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ২৩ বার দেখা | ৯৩ শব্দ ১টি ছবি