অনন্ত যাত্রা

অনন্ত যাত্রা

আরও রক্ত ঝরুক, তবুও পৃথিবী জানুক, আমরা রক্ত দিতে জানি, মাথা নোয়াতে নয়। আমাদের নেতা আমাদের রক্ত দেয়া শিখিয়েছেন, সেই যে বদরে আমরা রক্ত দিয়ে বিজয় আনলাম। তারপর থেকে আমরা রক্ত দিয়েই ইতিহাস লিখে চলেছি, কেবল বিজয় আমাদের মঞ্জিল, গোলামী আমাদের রক্তে নেই।। . কেউ বলে এত রক্তপাত কী করে শান্তি আনবে ?, আমরা বলি … Continue reading “অনন্ত যাত্রা”

তুমি যদি

তুমি যদি

তুমি যদি কখনো আমার পাশে না থাকো তবে আমার ভোরগুলো নীরস হয়ে যাবে, আমার আঙিনায় আর কোন ফুলই ফুটবেনা, আমার দুয়ারে আসবেনা বসন্ত। তুমি যদি আমাকে আর নাম ধরে না ডাকো তবে পৃথিবীর সব সুর বদলে যাবে বিশ্রী শব্দ দূষণে, পাখিদের গানগুলো সব বজ্রধ্বনির মতো এলোপাথাড়ি ডেকে যাবে। তুমি যদি আমাকে কাছে না ডাকো তবে … Continue reading “তুমি যদি”

কল্পনায় একদিন

কল্পনায় একদিন

একদিন কল্পনায় আমি হেঁটেছি কত দূর তার সাথে, ছুঁয়েছি চুড়ির রেশ হয়ে তারই হাত সারাটি পথ ধরে। হঠাৎ হাওয়ার মতো আমিও দুলে দিয়েছি এক গোছা চুল তার, নীল আচলে আমি দিয়েছি তারে বসন্তে ঝরা কত ফুল। অপলক আমিই দেখেছি তারে চোখের খুব কাছে, একদিন কেবলই কল্পনায় আমি পেয়েছি তারে ভালোবেসে।। . ০৫/০৩/২০২১ ছবিঃ গুগল থেকে

কর্তৃপক্ষের করোনা চিন্তা ও আদু ভাই তৈরি

কর্তৃপক্ষের করোনা চিন্তা ও আদু ভাই তৈরি

দেশের সবকিছু স্বাভাবিকভাবে চলতে পারবে, অফিস-আদালত, ব্যাংক, হাট-বাজার ইত্যাদি ইত্যাদি ইত্যাদি… কেবল মাত্র বন্ধ থাকবে শিক্ষাকার্যক্রম কারণ এক গবেষণায় দেখা গেছে শুধুমাত্র শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে শিক্ষাকার্যক্রম পরিচালিত হলেই করোনা ভাইরাস ব্যপকভাবে ছড়িয়ে পড়বে এবং ইহা মহামারি আকার ধারণ করবে। আর তাই আমাদের দেশের শিক্ষাকার্যক্রম পরিচালনা কর্তৃপক্ষ এক যুগান্তকারী সিদ্ধান্ত নিয়েছেন আর তা হলো ঢা.বি‘র অধিভুক্ত সাত … Continue reading “কর্তৃপক্ষের করোনা চিন্তা ও আদু ভাই তৈরি”

একুশ মানে

একুশ মানে

একুশ মানে আমার মায়ের ভাষার অহংকার, আমার ভাইয়ের রক্তে জ্বলা জাগ্রত হুংকার। একুশ মানে মাথা তুলে বাঁচার দীপ্ত পণ, রক্ত চক্ষু রুখে দেবার শপথ আমরণ।। . একুশ মানে শ্লোগান শোভিত পায়ে পায়ে মিছিল, অধিকার আদায়ে রাজপথটা রক্তে করা পিছিল। একুশ মানে উত্তাল ঠেউয়ে যুদ্ধে যাবার নেশা, বুকের ভিতর তপ্ত আগুন বারুদে পুরোটা ঠাসা।। . আমার … Continue reading “একুশ মানে”

কিছুই রবেনা জেনো

কিছুই রবেনা জেনো

ক্ষীরের মতো নরম মাটিতে রুয়ে দেয়া গোলাপের চারাগাছটা, একদিন যৌবনে ভরে দেবে শতশত ফুলের ঘ্রাণে পুরোটা আঙিনা। সুপারির ভরে নুয়ে যাবে একদিন তার সদ্য গজানো চারাটিও, তারপর একদিন মরে যাবে এমন করে রুয়ে দেয়া সবকটি চারা।। . গ্রীষ্মের তাপদগ্ধ মাটি; উনুনের মত জ্বলবে তীব্র যন্ত্রণায়, একদিন তারপর বর্ষায় ধুয়ে যাবে তার বুক; ক্ষয়ে যাবে কিছুটা। … Continue reading “কিছুই রবেনা জেনো”

নিয়মের খেলা

নিয়মের খেলা

অজস্র দক্ষ সংসারী পাখি, হঠাৎ একদিন পথ ভুল করে, হারিয়ে যায় অবেলার হাওয়ায়। সারারাত পাহারায় থাকা, নামহীন নক্ষত্রও আচমকা কখনো, খসে পড়ে নিভে যায় গভীর অন্ধকারে। এমনই কত যত্নে মোড়ানো ভালোবাসাও, ধীরে ধীরে কোন একদিন, মরে যায় কেবলই অবহেলায়।। . ২৭/১০/২০২০

অনু কবিতা- ২৯৯

অনু কবিতা- ২৯৯

তুই একা হেঁটে যা শিশিরের পথে, কান পেতে শোন বাতাসের গুঞ্জন। ছিঁড়ে দে সব ‍মায়ার বন্ধন যত, পুড়ে ফেল স্মৃতির ডায়রিটা তোর। নিজেকে আপন করে, গলা ছেঁড়ে গা, বেঁচে থাকবার গান।। . ২৬/১০/২০২০

অনু কবিতা- ৩০২

অনু কবিতা- ৩০২

কেন অকারণে দুজনেই পুষি কষ্টের পাখি…? মুখ বুজে চুপ করে থাকা মন জুড়ে ডাকাডাকি… . ০৪/০১/২০২১

অনু কবিতা- ৩০১

কোথায় যেন আজও রয়ে গেছে সে নিকটে আমার, রয়ে গেছে তার আঙুলের ঘ্রাণ, শীতল পরশ। পৌষ রাতের শিশিরের মতো সারা রাত ধরে, আজও যেন ঝরে পড়ে সে বুকের ভিতর।। . ১০/১১/২০২০