এইচ এম শরীফ-এর ব্লগ

হেরো আপন হৃদয়মাঝে বিশ্ব যেন তোমার স্বদেশ||
সৌহার্দ্য হোক বিশ্বজনীন অকৃত্রিম এক হৃদ্যতা’ রেশ||

বিশ্বজনীন সৌহার্দ্য মোর অখিল বিশ্বব্যাপী।
হৃদয়জুড়ে জেগে আছে হিতৈষী এক ছবি।

ফুলের সুবাস
“ফুলের সুবাস” মনের মাঝে
থাকবে না- সে কি হয়!
ফুল ফুটিয়ে মন মাধুরি
ছড়িয়ে কেন নয়! মনের কালি’ মুছে দিয়ে
জোছনার আলো জ্বালি;
সুখটাকে আজ বিলিয়ে দিয়ে
সুখের দোলায় দুলি। যেমন করে রাতের তারা
মিটি মিটি হাসে;
শিশির বিন্দু মুক্তার মত
জ্বালে আলো ঘাসে। তেমনি করে মনের জোছনা
জ্বালিয়ে চলি এসো।
অন্যের সুখে সুখি পড়ুন
ছড়া ও পদ্য | | ৬ টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ২৫৩ বার দেখা | ৭৬ শব্দ
দিশারি
মনকলি! তুমি এক জ্বলন্ত নীহারিকা,
তোমার অগ্নিস্ফুলিঙ্গের আভায় সৃজে সহস্র কণিকা।
তুমি ঝলমলে ভাবের উন্মত্ত প্রতিমূর্তি;
তুমি দুর্দমনীয়! রুখতে পার মানবতার আর্তি।
মনোআকাশে তোমার উতকলিকা কে রুখিবে বলো!
স্বার্থোন্মত্ততার বর্জিত পথ ঘৃণাভরে মাড়িয়ে চলো। তোমার রুদ্র কণ্ঠ কে আছে রোধবার!
তুমি সদা এক অজেয় চেতনায় অগ্ন্যুদ্-গার।
তুমি ঝড়, তুমি ঝঞ্ঝা, তুমি অনির্বাণ পড়ুন
কবিতা | ১৪ টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ২১৫ বার দেখা | ১১৯ শব্দ
এক গ্লাস দুধ
এক গ্লাস দুধ
একদিন এক দরিদ্র বালক তার স্কুলে যাতায়াতের খরচ উপার্জন করার উদ্দেশ্যে বাড়ি বাড়ি ঘুরে পণ্যদ্রব্য বিক্রি করছিল। এতে সে মাত্র দশ সেন্ট উপার্জন করল। এবং সে খুব ক্ষুধা অনুভব করল। সে ভাবল, সামনের বাড়িতে গিয়ে তার নিজের খাদ্যের জন্য পড়ুন
গল্প, জীবন | | ১২ টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ৪০৪ বার দেখা | ৩৮৪ শব্দ ১টি ছবি
অপু ও একটি আহত পাখি
একদিন বিকেলে ঘনকালো আকাশ।
চার দিকে ভীষণ ভাবে অন্ধকার হয়ে আলোকিত দিনটাকে যেন গিলে ফেলছে কোন এক অশুভ শক্তি। দিকে দিকে সবাই এক অজানা আশংকায় ভীত ! কালবৈশাখী ঝড় হলো। অপুদের বাড়িতে অনেকগুলো আম গাছ। ঝড়ে গাছের নিচে ঝরা পড়ুন
গল্প | | ১২ টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ৪২৯ বার দেখা | ৫২০ শব্দ
মা' এর জন্য ভালোবাসা
মা' এর জন্য ভালোবাসা
ফুলের দোকানের সামনে এসে একজন ভদ্রলোক তার গাড়ি থামালেন।
উদ্দেশ্য তার মা’য়ের জন্য কিছু ফুল কিনবেন। যিনি এখান থেকে প্রায় দু’শ মাইল দূরে বাস করেন। গাড়ি থেকে বের হওয়ার সময়, তিনি লক্ষ্য করলেন, দোকানের পাশে, পায়ে হাঁটার পাকা রাস্তার কিনারে পড়ুন
অনুবাদ, গল্প | ১২ টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ২০৩ বার দেখা | ১৮৭ শব্দ ১টি ছবি
... তৃষ্ণা
... তৃষ্ণা
ভালোবাসার তৃষ্ণা কী
মিটে কভু সই?
যতো দিবে আরও নিতে
হাত পেতে রই। সুখে ডুবি তুমি এলে
প্রাণস্পর্শ পাই;
কবোষ্ণ ওমে ডুবে
নিজেকে হারাই। খুঁজি তোমায় সুরভিত
পাপড়ি ফুটা ফুল;
বকুলমাল্য গুঁজে দেব
কালো খোঁপা চুল’। বাতায়নে পুষ্প থোকা
সুরভিত মন;
প্রেমাঞ্জলি দিতে তোমায়
খুঁজি আসার ক্ষণ। পাইতে জীবন তোমায় নিয়ে
হাজার বছর কাল;
সময়ের পড়ুন
ছড়া ও পদ্য | | ১৭ টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ৩৪১ বার দেখা | ৪৪ শব্দ ১টি ছবি
গাঁয়ের টানে...
গাঁয়ের টানে....
একবার যেতে ইচ্ছে করে
আমার ছোট্ট গাঁয়;
শিশির ভেজা দুর্বা ঘাসে
হাটব নাঙা পায়। শীতল হবে মনটি আমার
দেখে গাঁয়ের মুখ;
মমতাময়ী মাকে দেখে
জোড়াবে মোর চোখ। সবুজ গাছের শ্যামল কুঞ্জে
পাখির কলতান;
নির্মল হাওয়া বইবে সেথা
জোড়াবে মোর প্রাণ। মেঠোপথের বাঁকে বাঁকে
ছোট্ট কোড়ে’ ঘর;
হাত পড়ুন
ছড়া ও পদ্য | | ১০ টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ৫৪০ বার দেখা | ৭১ শব্দ ১টি ছবি
বৈশাখী শপথ
বৈশাখী শপথ
স্মৃতির ভাজে অতীত হলো
সুখ বেদনার দিন;
নতুন বছর দিলো আবার
একটি ভোরের ঋণ। এসো সবাই সব ভুলে যাই;
অতীত দুঃখ গুলো;
নতুন আশায় জাগি আবার-
দৃপ্ত পদে চলো। ফুলগুলো আজ হেসে উঠছে
সুরভি মাখা ভোর;
যেতে হবে তোমায় আমায়
বন্ধু! অনেক দূর। নতুন দিনের স্বপ্নগুলো
প্রতীক্ষিত আজ;
অলস সময় বসে আর পড়ুন
কবিতা | ১২ টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ৪৫০ বার দেখা | ৯০ শব্দ ১টি ছবি
সৌহার্দ্য
এপার-ওপার দুই বাংলা
একই মায়ের স্বপন;
সুখ পাখিটা ঘুরে উড়ে
করে মিতালী বপন। স্বপন রাঙা একই আকাশ
অভিন্ন রঙধেনো;
কাব্য কথায় আঁকি আলেখ্য
মোরা পর নই জেনো! আল্পনাতে এপার-ওপার
ভাষা মোদের খেয়া;
সৌহার্দ্য হোক দুই বাংলার
মা’য়ের স্নেহে দেয়া। জ্যোৎস্না ছড়ায় চাঁদমামা ঐ
রাতে হাজার তারা;
দু’বাংলা থাক একই মঞ্চে
“সৌহার্দ্য” হোক সাড়া। কাঁটাতারে ভিন্ন ভূমি
অভিন্ন ভাষা’ দেহ;
জড়িয়ে রাখে পড়ুন
ছড়া ও পদ্য | | ১৬ টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ২৪২ বার দেখা | ৪৯ শব্দ
ছিলেনা তুমি তাই...
তুমি ছিলে না তাই আকাশে চাঁদ উঁকি দিয়েও আমার মনোরণ্য
জ্যোৎস্নার আভায় আপ্লুত করেনি।
তুমি ছিলে না তাই উর্মিমালারা আমার বেলাভূমিতে আঘাত হেনেও
জাগাতে পারেনি আমায়।
তুমি ছিলে না তাই আমার রাতের
আকাশে তারার মেলা জমলেও
আলোকিত করেনি আমার মানস মন্দির।
তুমি এলেনা তাই আমার কথার মালারা নীরব নিস্তব্ধ হয়ে পড়ুন
কবিতা | | ১৪ টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ২৩৪ বার দেখা | ৯৬ শব্দ