71221

🔷কাজের প্রতিদানই কী ভাগ্য নয়! আমরা যে ভাগ্যে বিশ্বাসী সেই ভাগ্য বলে কিছু আছে কি? আপনি আজ অন্যের সাথে যে ব্যবহার করবেন ঠিক কোনো এক সময়ে আপনার কাছে সেই ব্যবহারটি ফিরে আসবে। আমরা যদি সেই বিশ্বাসটি নিয়ে আরও কিছু চিন্তা করে থাকি তবে আমরা ব্যথাটি অনুভব করতাম না। সুতরাং আমি যা বুঝতে পেরেছি তা হল নিয়তি হ’ল কর্মের ফল, কাজের প্রতিদান আপনার কাছে আসবে। আমরা যদি আমাদের জায়গা থেকে অন্যের সাথে খাঁটি আচরণ করি তবে বিনিময়ে আপনিও সেই শুদ্ধ আচরণের প্রাপ্য। আমাকে কেবল মনে রাখতে হবে যে আমি যদি এটাই চিন্তা করে জীবনকে আরও সহজ করে তুলতে পারি তবে আমাদের কোনও অনুশোচনার পথ অতিক্রম করতে হয়না।

🔷২. যেমন …
🔷সৌন্দর্যের অহংকার চূর্ণ হয়।
🔷সন্দেহের ঘর সবসময় ভগ্ন।
🔷হতাশার পথ প্রত্যেকটা মুহূর্তে রুদ্ধ।
🔷অধৈর্যের কর্ম ফলাফল সুখকর নয়।
🔷রাগের ফলাফল শূন্য।
🔷বিশ্বাস এর দরুন বিশ্বাস অর্জিত হয়।
🔷ভালবাসার প্রতিদান নৈকট্য লাভ।
🔷শ্রদ্ধার প্রতিদান ভালোবাসা।
🔷অশ্রদ্ধা ও অসম্মানের প্রতিদান লাঞ্ছিত
🔷খারাপ ব্যবহার একাকীত্ব বা নিঃসঙ্গ জীবন লাভ

🔷৩.
🔷তিরস্কৃত আচরণ আত্মসম্মানহীনতার বহিঃপ্রকাশ।
এসব কারণে হলেও মানুষকে সংযম শীল হতে হয়
বিবেকের দরজা বন্ধ রেখে যখন আপনি পথ চলবেন তখন আপনার দুনিয়াটা টোটালি অন্য দিকে মোড় নেবে যে জীবন আপনাকে খুব ভালো কিছু উপহার দিতে পারবে না।

🔷৪.
🔷অতএব, মনকে উদ্যান করুন সেখানে যেন প্রকৃতির সকল সৌন্দর্য ধরা দেয়। মনকে ময়লার স্তুপ করবেন না। মনে রাখতে হবে আমাদের কলুষিত জীবন কখনো আড়াল করা যায় না। আমাদের জীবন প্রণালীতে যার-যার অবস্থান থেকে যেমন তা যদি আপনি আমি কোনভাবেই আড়াল করতে না পারি তাহলে কি লাভ সে পথে বিচরণ করে।

.
২০.০৮.২০২১ রাত: ৮:৩৫pm.

GD Star Rating
loading...
GD Star Rating
loading...

শামীম বখতিয়ার সম্পর্কে

মুক্তধারায় জেগে ওঠা মানুষ।
এই পোস্টের বিষয়বস্তু ও বক্তব্য একান্তই পোস্ট লেখকের নিজের,লেখার যে কোন নৈতিক ও আইনগত দায়-দায়িত্ব লেখকের। অনুরূপভাবে যে কোন মন্তব্যের নৈতিক ও আইনগত দায়-দায়িত্ব সংশ্লিষ্ট মন্তব্যকারীর।
এই লেখাটি পোস্ট করা হয়েছে জীবন-এ। স্থায়ী লিংক বুকমার্ক করুন।

৩ টি মন্তব্য জীবনাদর্শন ও একান্ত ভাবনা

  1. মুরুব্বী বলেছেনঃ

    “আমরা যদি আমাদের জায়গা থেকে অন্যের সাথে খাঁটি আচরণ করি তবে বিনিময়ে আপনিও সেই শুদ্ধ আচরণের প্রাপ্য। আমাকে কেবল মনে রাখতে হবে যে আমি যদি এটাই চিন্তা করে জীবনকে আরও সহজ করে তুলতে পারি তবে আমাদের কোনও অনুশোচনার পথ অতিক্রম করতে হয়না।”

    ___ এমন সহজ সরল ভাষায় সকলের বোধগম্য বিশ্লেষণ সচরাচর দেখা যায় না। https://www.shobdonir.com/wp-content/plugins/wp-monalisa/icons/wpml_good.gif

    GD Star Rating
    loading...
  2. হ্যাপি সরকার বলেছেনঃ

    জীবনের গুরুত্ব অসীম।
    আমরা যখন জীবনের গুরুত্ব থেকে নিজেকে হাত গুটিয়ে নেব তখন জীবন হয় দুর্বিষহ।
    জীবনের পথ খুবই সংকীর্ণ কিন্তু এই পথ পাড়ি দিতে দীর্ঘায়িত জীবনের উপলব্ধি বিবেচিত হয়।
    আমরা যখন নিজেদের জায়গা থেকে জীবনের গুরুত্ব অনুভব করতে না পারব তখন জীবনের প্রত্যেকটা বাঁকে হোঁচট খেতে থাকি।
    জীবন সম্পর্কে যে প্রকাশ ঘটেছে আপনার লেখায়
    সত্যিই মানব জীবনের বাস্তবতা
    এত সুন্দর ভাবে উপস্থাপন করেছেন যে প্রত্যেক মানুষ তার নিজের মতো করে মিলিয়ে নিতে পারবে।
    জীবন দর্শন ও আপনার একান্ত ভাবনা অত্যন্ত তাৎপর্যপূর্ণ। যাকে কদর না করে পারা যায় না সুখী সুন্দর ও সুস্থ জীবন প্রত্যাশা করছি। ভালো থাকুন ভালো রাখুন সুন্দরভাবে জীবনের এই বিস্তৃত পথ পাড়ি দিয়ে ভবিষ্যতের দিকে এগিয়ে যান এই হল শুভ প্রত্যয়। ❤

    GD Star Rating
    loading...
  3. নিতাই বাবু বলেছেনঃ

    যথার্থ, যথার্থ! আপনার লেখাই আসল বাস্তবতা।

    GD Star Rating
    loading...

মন্তব্য প্রধান বন্ধ আছে।