শূন্য দিয়ে বিকাশ তার পেছনে ঈশ্বর,
চন্দ্র সুর্য সাগর পর্বত গাছ নারী-নর।

সৃজন করেছে সবকিছু তিনিই এক,
তৈরি করেছেন সৌম্য ধরায় হরেক।

ইহকাল পরকাল দু’টি পাবে এক গা,
ধনাত্মক ঋণাত্মক সে সাথে দুটি পা।

অতীত বর্তমান ভবিষ্যৎ মিলে তিন,
জন্ম মৃত্যু বিয়ে তার কাছে যে ঋণ!

কিতাব খলিফা হামাগুড়ি সবই চার,
কোন ব্যস্ততা? ভুল যে হয় বারবার!

পাঁচ বার নামাজ, ধর্মে স্তম্ভ যে পাঁচ
কেউ মাংস খায় কেউবা সব্জি-মাছ।

ক্রিকেটে ছক্কা, জয়ে আছে যে ছয়!
গণিত কি জীবনের সবদিকেই নয়?

সাতের বেশী স্বর্গ,লাকি নাম্বারে হাত,
সা-রে-গা-মা-পা-ধা-নি তেও সাত!

এক অক্টেটে আট, ছাতাতে কত ছাঁট?
হাত পা কান চোখ, চার-জোড়া,আট।

নব্বইএ হয়না যার, তেমনি হয়নি নয়ে
মানি-কোড মতে চলে মিতব্যয়ী হয়ে!

মানুষের দুই হাতে দশ, দুর্গারও দশ,
গাণিতিক জীবন চলে,পেতে যত যশ!

==================o

অক্টেট : আট বিট (কম্পিউটার সায়েন্সে)
দুর্গা : হিন্দুধর্মে এ দেবীর দশ হাত
– – – – – – – – – – – – – – – – – – – –

উত্তর আমেরিকা,
৩রা বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

GD Star Rating
loading...
GD Star Rating
loading...
এই লেখাটি পোস্ট করা হয়েছে কবিতা-এ। স্থায়ী লিংক বুকমার্ক করুন।

২ টি মন্তব্য গাণিতিক জীবন

  1. মুরুব্বী বলেছেনঃ

    অসামান্য কবিতা উপহার দিয়েছেন কবি। একরাশ শুভকামনা আপনার জন্য। শব্দনীড়ে আপনাকে স্বাগতম। আপনার সহ-ব্লগারদের লিখায় মন্তব্য দিন। মন্তব্য এবং প্রতি-মন্তব্যে ব্লগিং হোক আনন্দের। শুভ ব্লগিং। https://www.shobdonir.com/wp-content/plugins/wp-monalisa/icons/wpml_rose.gif

    GD Star Rating
    loading...
  2. শাহ্ সাকিরুল ইসলাম বলেছেনঃ

    আপনাকে অনেক অনেক ধন্যবাদ

    GD Star Rating
    loading...

মন্তব্য প্রধান বন্ধ আছে।