বাবার শূন্যস্থান মর্মে বাজে
বাবার শূন্যস্থান মর্মে বাজে
মা, কোথায় আছে বাবা? সেই যে কবে মাথায় হাত রেখে বলেছিল
ভাল থাকিস বাপ, মাকে কাঁদাস নে।
আমি কি একবারও তোমাকে কাঁদিয়েছি? বল মা। তুমিইতো দেখি গোপনে কাঁদ;
আমাকে দেখে লুকানোর চেষ্টা কর,
আমার কি দোষ বল? কত দিন হলো বাবা নেই, ঘরটা খালি,
এখনও আসে না কেন?
আমাদের পড়ুন
কবিতা | ৬ টি মন্তব্য | ৮৪ বার দেখা | ১০৮ শব্দ ১টি ছবি
না, একটু ঘুমাই
মানুষ মরছে মরুক না,
কিসের এতো চিন্তা করা-
আমিতো আর মরছি না আজ,
এই দিব্যি বেঁচে থাকা। জলে ডুবছে ডুবুক না,
কেন এতো আহাজারি,
ব্যাটারা দেখ সাঁতার না জানা,
মরবেইতো মরুক না। উন্নয়নের জলস্রোতে গা ভাসিয়ে বেড়াক না,
কিসের এতো চিন্তা বলো,
শ’খানেক মরুক না-
সবাইতো আর মরছে না। তোমরা বাপু বেজায় রসহীন ,
একটু-আধটু পড়ুন
কবিতা | ২ টি মন্তব্য | ৯৮ বার দেখা | ১৬৬ শব্দ
প্রেম পিয়াসা
ভালোবাসা মন রাঙা পুণ্য তীর্থ গড়া
প্রেম পুষ্পে গাঁথা মালা বুকে থাকে ধরা,
ছলে বলে অধিকারে যদি তাকে চাও
তাহলে চোখের জল শুধু ফেলে যাও। হৃদয় অপার মর্ম পরস্পর পাশে
বাঁধনে জড়িয়ে থাকে অগাধ বিশ্বাসে,
একে অপরের কাছে শুধু হাতে হাত
এগিয়ে চলার পথে থাকে সাথে সাথ। অন্তরে চির সবুজ বন পাখি পড়ুন
কবিতা | ২ টি মন্তব্য | ৩৬ বার দেখা | ৯৯ শব্দ
যত্নে থেকো
যত্নে থেকো
তুমি ভালো থেকো
ভালো থাকার সমস্ত উপকরণ থাকুক তোমার,
আমার সারি বদ্ধ কষ্ট গুলো স্পর্শ না করুক
তুমি নিজেকে স্বযত্নে আগলে রেখো; তুমি তৃপ্ত হও
তৃপ্তির যাবতীয় আয়োজন সু সম্পন্ন হোক।
আমার ক্ষত বিক্ষত-
বুকের দগদগে গা তোমাকে মর্মাহত না করুক;
তুমি মুখ ফিরিয়ে রাখো! অসূয়া চোখে দেখিনি তোমাকে
অশুচ পড়ুন
কবিতা | | ৩ টি মন্তব্য | ১১৫ বার দেখা | ৭৭ শব্দ ১টি ছবি
মানুষ ভালো থাকুক উষ্ণ আলিঙ্গনে
আঙুলের টিপে মেরে ফেলি তারে
ভেবেছিলাম সে বুঝি দেবী
সমস্ত আরাধনা তাঁরই প্রাপ্য
অথচ শূন্য হতে হতে এখন আমি নাই হয়ে গেছি। কোন কোন ভবিষ্যৎ ডুবে থাকে তরল নীরবতার মাঝে
যা হয়েছে গত আমরা তাকে ধরে নিই ঈশ্বর হিসেবের খাতায় কলম চালিয়ে হই মহাজ্ঞানী
যতটুকু আয়োজন তার সবটুকু সম্পর্ক টিকিয়ে রাখার পড়ুন
কবিতা | ৪ টি মন্তব্য | ৫৬ বার দেখা | ৬৫ শব্দ
না বলা কথা
না বলা কথা
যে কথাটি হয়নি বলা;
তা রেখেই দিতে সংগোপনে,
এত দিন পর কেন সুপ্তাগ্নিকে জাগালে প্রজ্জলনে? সে দিন জ্বালিয়েছ নিরবতায়
আজ জ্বলছি ব্যাকুলতায়,
সেটা কি শুধুই ভুল ছিল, নাকি অন্য কিছু;
ছুটে ছিলে কোন আলেয়ার পিছু পিছু?
এই ভুলের মাশুল কি আজও গুনে যাবে?
বেলা অবেলা সারা বেলায়! পাষাণে পড়ুন
কবিতা | ৪ টি মন্তব্য | ৭৬ বার দেখা | ১৩৮ শব্দ ১টি ছবি
হিরন্ময় ঘৃণা
হিরন্ময় ঘৃণা
রাতের তীব্রতায় উড়ে যায় গৃধিনীর
ডানার নীচে থাকা শ্বেতশুভ্র বরফের নির্মাণ।
আকীর্ণ শহরের প্রলুব্ধ রঙ চোখের কোণে
রক্তজবা হয়ে জেগে ওঠে স্বপ্নের ঘোরে।
নিস্তব্ধতা জানিয়েছে আজ ইন্দ্রচাপ ছুঁড়ে দিলে
রামধনুর বুকে আঘাত লাগে না কোন।
ইচ্ছের নীলাভতম সুর জন্মে বিষণ্ন শহরের মিছিলে পড়ুন
কবিতা | ১টি মন্তব্য | ৪৩ বার দেখা | ১৩৩ শব্দ ১টি ছবি
শৈশবের পুকুর
আগুনে যখন ঝলসে যাচ্ছে গায়ের চামড়া
আমি নানা বাড়ির পুকুরে সাঁতার কাটছি। পুকুরের জলে শৈশব ভেসে থাকতো
আড়াই ঘন্টা সাঁতারেও ক্লান্তি নেই, ঘাট থেকে
মা ডাক দিত ‘উঠে আয়, জ্বর এসে যাবে’
তবু উঠতাম না দেখে মামা পুকুরে নেমে
তুলে আনত। পরের দুদিন জ্বর। তখন অন্য আহ্লাদ। আগুনে চামড়া ঝলসে যাচ্ছে, পড়ুন
কবিতা | ১টি মন্তব্য | ৩৯ বার দেখা | ৬১ শব্দ
ভাগাভাগি
ভাগাভাগি
বুইলেন মোয়াই আমরা একা কিছু খাই না
আমরা দিয়ে থুয়ে খাই।
চারদিকে যত ল্যাংড়া লুল্লু
চারদিকে যত আগাছার ঝুণ্ড
কাজে লাগে পাঁচ বছর পর
তবুও
বুইলেন মোয়াই আমরা একা কিছু খাই না
আমরা দিয়ে থুয়ে খাই। ছড়িয়ে রেখেছি বঁড়শিতে গেঁথে
লক্ষ্মী – বিধবা – কন্যা – সাইকেল
ছড়িয়ে রেখেছি পড়ুন
কবিতা | ১টি মন্তব্য | ৩৫ বার দেখা | ১২৫ শব্দ ১টি ছবি
চাঁদের হাত ধরেই
চাঁদের হাত ধরেই
জীবন সংসার মানে পূর্ণিমা রাতেই
চাঁদের সাথে উঠতি ফুর্তি প্রেমেই!
কিছুই করা ভাল না,খাই আর ঘুমাই
জগত সংসার শুধু আবেগে উড়াই-
ভাল আর মন্দ মসজিদ মন্দিরে ঘুরাই স্বার্থের বালুচরে জল দিয়ে সাঁতরাই;
মরা গাঙ্গে ঘাসফুলের মালা সাজাই-
মাটির আইলপাথারে ঠিকানা গড়াই
এই না হলো ভাবের পায়জামা সিলাই
এ ছাড়লাম পড়ুন
কবিতা | ৪ টি মন্তব্য | ৫২ বার দেখা | ৫১ শব্দ ১টি ছবি
মৃত ঘোড়ার মুখ দেখে
হর্সরেস শেষ হয়ে গেছে বেশ আগেই। যারা দেখতে এসেছিল ঘোড়দৌড়
তারা সবাই ফিরে গেছে নিজ নিজ গন্তব্যে। আমি একা দাঁড়িয়ে আছি।
আমার নির্দিষ্ট কোনো গন্তব্য না থাকায়— পথ থেকে পথে দীর্ঘদিন বড়
সুখে বাজিয়েছি সানাই। উৎসব নয়, তবু আনন্দে নেচেছি নদীর মতো।
আর আকাশের সীমানা থেকে ধার নিয়ে পড়ুন
কবিতা | ১টি মন্তব্য | ৪১ বার দেখা | ১৩৯ শব্দ
স্বপ্ন
বিলম্বিত ঠাণ্ডা কফির ধোঁয়া-সিঁদুরের মতো
স্রোত ধরে কী যে মহুয়া ঠোঁটের উপত্যকায়-
আশ্রিত স্বপ্ন ভাসে। ঘনশীল সবুজ পাতার
সন্ধ্যায়-বেঁচে থাকা কল্পনার নিঃশ্বাসে
তুমি পালানো-হরিণ, মাংসাশী বাতাস-
এক সঙীন জীবন নিয়ে ছুটছে। ঘরানার শহরে-
কেবল লুডুর গুটির মতো-অলীকবন,
গল্পের নিচে-কাপহীন পিরিচের শব্দ,
ঋষিঋদ্ধ সবুজ সমুদ্রে আশাবাদী মানুষ,
জিততেই হবে। এমন তো শিকারি মুহূর্ত
তোমাকে কেন্দ্র পড়ুন
কবিতা | ১টি মন্তব্য | ৫৩ বার দেখা | ৭৯ শব্দ
কবিতা
তোমার পায়ের পাতা মুছে নেয়া এই ঢেউ
আর কক্ষনো ফিরবে না
ভাঙা ভাঙা বুদবুদ্ আর উদ্বেল হবেনা ওই দূরে গাঙচিল পাখা ছুঁয়ে
দুএক টুকরো বাতাস তবু ছুটে আসে
এমনই এলোমেলো চুলে বারবার পায়ের চাপে ফুটেছ যে বালুচিহ্ন
তার নাম গোলাপ সাগর হতে পারে
হতে পারে বুনো ঝাউয়ের ঝাঁঝালো দুর্নাম এতকিছুর পরেও তুমি
সমুদ্র পড়ুন
কবিতা | ১টি মন্তব্য | ৩২ বার দেখা | ৫৩ শব্দ
বৃষ্টির আকাশে এক টুকরো মেঘ
বৃষ্টির আকাশে এক টুকরো মেঘ
তুমি যেন বৃষ্টির আকাশে এক টুকরো মেঘ,
ছুঁয়ে ফেলো সহজেই আমার আবেগ,
তুমি যেন রঙধনূ রঙে আঁকা নীল আকাশ,
ভালোবেসে কেড়ে নাও আমার যত দীর্ঘশ্বাস। চাই এমন আবেগী আহলাদী এই মনটারে
বেঁধে রাখো প্রেমের সুতায়, বাজাও হরদম
সুখের সুর মনের তারে!
মেঘের মত মন আমার, অল্প কষ্টেই পড়ুন
কবিতা | ১টি মন্তব্য | ৪৮ বার দেখা | ১৫৫ শব্দ ১টি ছবি
শহর থেকে এক কবি এসেছেন
শহর থেকে এক কবি এসেছেন কতোদিন পরে,
— এতোদিন ধরে কবির বুকে ধুঁকে ধুঁকে জ্বলছিলো চৈতের
চিতা, আজ আর কবিকে আটকে রাখতে পারেনি
শহরের সুনন্দ ভোগাস সৌন্দর্য; ছন্দের কাঁটাতার, শতাব্দীর লৌকিক শোভাযাত্রার ঢেউ! এসব ছেড়ে ছুঁড়ে কবি এসেছেন, এখন তাঁর দুই হাত
খালি, তবুও কবি ভুলে গেছেন পড়ুন
কবিতা | ১টি মন্তব্য | ৪১ বার দেখা | ১৯১ শব্দ