খেলা ঘর বাঁধতে লেগেছি
খেলা ঘর বাঁধতে লেগেছি কখনও এমন রাত আসে, যেসব রাতে, একলা চাঁদের পাশে লক্ষ কোটি চাঁদ জ্বলে ওঠে। সেসব রাত আসে, এখনও আসে মাঝে মাঝে। রূপকথার ঘুম-পাশ কেটে সেসব রাতেরা কালও এসেছে। ডুবিয়ে দিয়েছে গাঢ় অন্ধকারে। সবগুলো রাত শুধুই অন্ধকার নয়, কিছু রাত বখাটে, বেপরোয়া পড়ুন
জীবন | ২ টি মন্তব্য | ২১ বার দেখা | ২০৬ শব্দ
হরস্কোপ
হরস্কোপ ভাবছি একটা খাঁচাবন্ধী টিয়া হাতে
বসে যাবো রাস্তার পাশে।
তুমি বলতে পারো
এসব ভাগ্যগণনা,
হরস্কোপ টোপ সব বাজে কথা,
কুসংস্কার!
কিন্তু আমি তোমাকে নির্দ্বিধায় বলতে পারি
টিয়ার ঠোঁটে তুলে নেওয়া রংগীন কাগজে
বিশ্বাস রেখো।
সময়ের শবদেহ ক্ষমা চায় শুধু
অবিরত ক্ষমা করতে করতে
একবার আয়নার সামনে দাঁড়াই;
ক্ষমাহীন সব কালশিরা ফোটে আছে।
কেবল নিজেকেই ক্ষমা করা পড়ুন
কবিতা | ২ টি মন্তব্য | ১৪ বার দেখা | ৫২ শব্দ
ম নো রো গ
ম নো রো গ আমার হয়েছে মনোরোগ
রাত বড় হলেই বাড়ে কবিতা সম্ভোগ! তবুও আড়চোখে আলো খুঁজি
তবুও ভালোবাসার মানুষ বলতে তোমাকেই বুঝি! হোক সৌরভহীন আমার প্রহর
তবুও আলোয় ভরে উঠুক তোমার শহর!! পড়ুন
কবিতা | ৪ টি মন্তব্য | ১৬ বার দেখা | ২৮ শব্দ
নাম চাই
‘শিল্প-সাহিত্য এবং প্রকৃতি ও পরিবেশ’ এই নিয়ে একটি লিটলম্যাগ বের হবে অচিরেই। এর জন্য একটি সুন্দর নাম চাই। পড়ুন
বিবিধ | ৫ টি মন্তব্য | ২৪ বার দেখা | ১৭ শব্দ
গবলিনী কবিতা
গবলিনী কবিতা জোছনার মুখ গবলিনের মত বেঁকে থাকে
হাত নিশপিসে চুরিবিদ্যায়
অন্যের কলম চালিয়ে কবিতার নৈবেদ্য সাজায়
রোদ্দুরে আচার দেবে বলে কপালটা ফুলতে ফুলতে ক্রমশ:
গাছে গিয়ে আটকে যায় পাঁজর বেঁকিয়ে পায়ের নূপুর বাঁধতে গিয়ে দেখে
খরগোশে চুরি করে নিয়ে গেছে । ফর্ম্যালিনে কলম ভিজিয়ে ন্যাকড়ায় মোছে
ফের কবিতা চুরি করে মুণ্ডছেদের জন্য পড়ুন
কবিতা | ৩ টি মন্তব্য | ১৫ বার দেখা | ৪৩ শব্দ
একদিন_দুজনায়_অণুগল্প_৩৭৭
রিক্সাটি ভিসি হিলকে পাশ কাটিয়ে শহীদ মিনারের সামনে গিয়ে থামে। ওরা নেমে আসে। হাসিব ভাড়া মিটায়। রিক্সা চলে গেলে দু’জনায়-ই চুপচাপ। একসময় নীরবতা অসহ্য ঠেকে। পুরনো শহীদ মিনারটিকে নতুন ভাবে তৈরী করা হয়েছে। বড্ড নান্দনিক স্থাপত্যের নিদর্শণ! দু’জনেই কিছুক্ষণ সেদিকে তাকিয়ে পড়ুন
অণুগল্প | ২ টি মন্তব্য | ১২ বার দেখা | ১৪৬ শব্দ ১টি ছবি
তবু যেন থামতে চায় না
তবু যেন থামতে চায় না পথ চলতে ঘনিয়ে আসে সন্ধ্যা যখন
তবু যেন থামতে চায় না স্বপ্নের বুনন। যে পথের, নেই সীমান্ত
ক্যাক্টাসে আক্রান্ত বিক্ষত;
বুকে যার দাহ, দীর্ঘশ্বাস
অন্ধকার আর হাহুতাশ। বয়স ভার, নুব্জ্য শরীর
আকাশও ফেটে চৌচির
তবুও পথচলা অনিবার
পথেও হিংস্র জানোয়ার। হোঁচট খাওয়া বারংবার
পথের শেষ, জানা কার;
তবু আশার ঐ মরীচিকা
হেঁচড়ায়, হই পড়ুন
কবিতা | ২ টি মন্তব্য | ১১ বার দেখা | ৫৭ শব্দ
পুনর্পাঠের তথ্যতালিকা
পুনর্পাঠের তথ্যতালিকা অসম্পূর্ণ থেকে যায় পাওনার ছায়াতালিকা। দেনার নক্ষত্রগুলো লাল চোখ দেখিয়ে
পাড়ি দেয় অন্য ভূপৃষ্ঠে। এখানে কোনও সম্প্রদান নেই। যে আলো ঘিরে রাখে
প্রাকৃত সুন্দর— সেই তপস্যাগৃহে মানুষেরাই শিখে নেয় জন্মদান পদ্ধতি, প্রেমহিস্যা। মূলতঃ এই পৃথিবীও একদিন পাঠগামী ছিল। যারা পড়তে পারতো না
বৃক্ষের শরীর, তাদেরকেই বলা পড়ুন
কবিতা | ৩ টি মন্তব্য | ১৭ বার দেখা | ১০২ শব্দ
সাপের জিভ
সাপের জিভ করেছিলো অভ্র লেহন
তখনো অনাগত দু’টি পাহাড়ি স্তন;
বাতাসে ঝুলে আছে আর্তনাদের বাঁশি
ফুঁ দিয়ে যায় আবার কোন সর্বনাশী!
বিরহ টেনে আনে কামদ উপহার
সর্বহারা কবিদের অবাধ বিস্তার
উড়ে যায় দৃষ্টিপাখি শূন্য সীমানায়
পড়ে আছে রত্নখনি নিত্য আঙিনায়। জলের গভীরে বাস তবু সে তৃষিতা
এলোমেলো চুলগুলো মেঘের কবিতা;
ফাগুনের রঙে ঢঙে নেচে পড়ুন
কবিতা | ৩ টি মন্তব্য | ৩০ বার দেখা | ১২৫ শব্দ
Facebook Profile photo
নেই...
নেই ভাষা নেই
চাওয়ার মাঝে পাওয়া নেই
দূরত্বে দূর নেই
উষ্ণতায় দমকা পেয়েছি এই কথা নেই
স্বর তেষ্টায় জল নেই
চোখের বোল নেই
হৃদ্যতা পোড়া মবিল সেই নেই, নেই
প্রাপ্তির চেয়ে প্রাপ্য বেশি
কথা নেই,
ভাষা নেই,
শরতে শ্বেত শুভ্র কাশফুল নেই প্রেম নেই
মানুষে মানুষের জোর নেই
ধর্মের ধর্ম নেই
জানি তবু মৃত্যু আসবেই কথা নেই
ভাষা নেই
নেই কর্ম
তবুও বলি মানুষে মানুষই পড়ুন
কবিতা | ২ টি মন্তব্য | ১৪ বার দেখা | ৪৪ শব্দ
স্বপ্ন
স্বপ্ন কত রঙের স্বপ্ন বুনি প্রতিনিয়ত;
লাল নীল হলুদ বেগুনি আর-
নাম না জানা হাজার রঙের স্বপ্ন!
কোনোটা বাহারি, কোনোটা বিমূর্তপ্রায়! হরদম জাগরণে, অঘোর ঘুমের ঘোরে
বিরামহীম স্বপ্ন বুনে যাই অহরহ–
কখনো বিশ্বব্রহ্মাণ্ড ঘুরে আসি নিমিষে
পাতাল পুরীর অপ্সরার সনে বসি প্রেমালাপে
কখনোবা বিলগ্রেটকে হার মানিয়ে ধন কুবের সেজে
বিশ্বের সব সুখ কিনে নিই পড়ুন
কবিতা | ৪ টি মন্তব্য | ১৭ বার দেখা | ১২১ শব্দ
শিল্পের স্তবক
চাঁপাবনে কোন তাপসী
বাজায় বাঁশি
কাড়ে নক্ষত্রের ঘুম- নিঝুম ক্রন্দসী লগনে,
কার কাঁখের কলসি
ভেসে যায় নৈবদ্যের স্রোতে- অশ্রুত নয়নে।
আড়ালে বসে-
কে নাড়ে ধর্মের কল,
কোন বরষে
চরণ তলে বিছিয়ে দেয় ঘাসফুলের আঁচল!
অকুলে ডুবে ডুবে
শুনি, অচিন সুরের মাদল-
জানি নে
কোন তাপসীর শীতল পাঁজর খুলে
নেমে আসে পড়ুন
কবিতা | | ৪ টি মন্তব্য | ২৪ বার দেখা | ৯০ শব্দ ১টি ছবি
শীতের তৃতীয় শীত
শীতের তৃতীয় শীত এক
প্রত্যেক ডিসেম্বরে হলুদ লজেন্সের ভেতরে কবর দেওয়া হয় আমাকে
আর প্রতি মার্চে সমাধি ফাটিয়ে কমলারঙ মধু গড়িয়ে যায় দুই
সব রোদ বোরখাপরা, সব ধানের গুছি মুসলমান
শুধু সূর্য নয়, কাঠের ফার্নিচারের দোকানও আলো দেয়
এই শীত কোনও প্রবেশমূল্য রাখেনিএখানে-ওখানে
বিড়ি বিভাগের মুখোমুখি দাঁড়িয়ে আছে দেশলাই সম্প্রদায় সব শীতের মতো পড়ুন
কবিতা | ৩ টি মন্তব্য | ১৮ বার দেখা | ১৯২ শব্দ
খড়ি ওঠা বিকেলের গায়ে
খড়ি ওঠা বিকেলের গায়ে দেখতে দেখতেই ঘড়ি থেকে খুলে
তিন রকমারি তিন হাত ছিটকে পেছনে
মিলিয়ে যায় মরা আলোছায়ায়।
জিভে আলটাগরায় একচামচ
ভিজে ফুস্কুড়ি নিয়ে রাস্তার নোংরা
ছেলেটা সেদিকেই অন্যমনস্ক। কিভাবে যে সকাল দুপুর গড়িয়ে
প্রৌঢ় প্রোফাইলে ঢুকে পড়ে
সদ্য শাপপ্রাপ্ত দক্ষিণদুয়ারের দ্বারী,
ভাবনার পাত পেড়ে গুছিয়ে বসার আগেই! একরাশ অহমিকায় অমার্জিত বর্তমান
পেছনের সিটে কথা পড়ুন
কবিতা | ২ টি মন্তব্য | ১১ বার দেখা | ৮১ শব্দ
একটি আদর্শ রাষ্ট্রের ধারণা
একটি আদর্শ রাষ্ট্রের ধারণা নিতে হলে কোথায় যেতে হবে আমাদের?
এই প্রশ্ন করার পর জানালার পর্দাটা টানতে টানতে এক অন্ধ দার্শনিক বললেন-
আদর্শ রাষ্ট্রের ধারণা নিতে হলে আপনাকে প্লেটোর কাছেই যেতে হবে।
‘প্লেটো তো তার আদর্শ রাষ্ট্রে কবিকুলের তেমন কোন জায়গা রাখেন নি’
এই কথা শোনা মাত্রই তিনি পড়ুন
কবিতা | ৬ টি মন্তব্য | ২৩ বার দেখা | ২০৪ শব্দ