আজকে মহান বিজয় দিবস
আজকে মহান বিজয় দিবস
আজকে মহান বিজয় দিবস
খুশিতে সব দোলে,
খোকা খুকি ঘুরতে যাবে
বাবা-মায়ের কোলে। আজকে মহান বিজয় দিবস
সালাম জানাই ভোরে,
সকল শহিদ মুক্তি সেনা
আসুক ফিরে দোরে। আজকে মহান বিজয় দিবস
ইতিহাস যাই ভুলে,
যুদ্ধ করে আনলো বিজয়
তাঁরাই জাতির মূলে। আজকে মহান বিজয় দিবস
একটা নতুন রবি,
এই রবিতে জেগে আছে
মুক্তিযোদ্ধার ছবি। আজকে মহান পড়ুন
কবিতা | ২ টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ৪১ বার দেখা | ৫০ শব্দ ১টি ছবি
কেমন আছি
কেমন আছি
আমি কেমন আছি ভাবতে গেলেই
চারপাশ গুলিয়ে যায়
ছোট ছোট তারা চোখের সামনে
নাচতে নাচতে বুদবুদ হয়। কাগজ কল থেকে ছাঁটাই হওয়া দাদু
কবেই মরে ভুত হয়েছে
ধুঁকতে ধুঁকতে মরে গেছে
জুট মিল থেকে ছাঁটাই জ্যাঠা। বিএসসি পাশ দাদা এখন সাইকেলে
রোজ কয়লা পাচার করে, সন্ধ্যেয়
চুল্লুর ঠেকে কাটিয়ে রাস্তার পড়ুন
কবিতা | ১টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ৩৭ বার দেখা | ১২৪ শব্দ ১টি ছবি
শোয়া-পণ্ডিতের গুষ্টি
সাত
— দাঁড়ায় জল খায় না, দিদি। বিষম লাগবেনে।
শিউলি খাটের ওপর খ’সে প’ড়ে গেলাসে চুমুক দিল।
দিদিমাবুড়িরা একটু বকর-বকর করেই থাকে :
— জীবনে আর তিন্‌ডে জিনিস মনে রাইখো। কেউ পান খাওয়াতি চালি খুলে দেখে মুখি দেবা। পাইখানা ক’রে মাটিতি হাত ঘষতি ভোলবা না। আর কোনও দিন পড়ুন
জীবন | ১টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ৩৭ বার দেখা | ৯১৪ শব্দ
সজ্জন সহোদর হারানো বিলাপ
আতর গোলাপ জলে ধৌত শেষ।
সাদা কাপড়ে মোড়া। নাকে কানে সাদা কাপড়ের টুকরা দেয়া। কপিনের চারপাশ চা’পাতি ঢালা, মাঝখানে নিঃস্তব্ধ নিঃসার সোয়ানো লাশ। মুখোমন্ডল যেন, পেলব প্রশান্তির ছাপ ধরে আছে। চিরতরে, নির্বিকার আর কারো সাথে কোন দিন চলবে না, হাঁটবে না, বলবে না পড়ুন
জীবন | ১টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ৩৮ বার দেখা | ১৪১ শব্দ
সর্পবিদ কিংবা গুরু
নাগেশের সাথে প্রথম পরিচয় ভীতিকর ছিল। স্কুলের সীমানা দেয়াল ঘিরে যে প্রাচীন বটগাছ তার ফাঁকফোকরে সাপের আস্তানা। নাগেশ প্রায় দিন স্কুলের সামনে দিয়ে কোর্টে যায়, কোর্টের সামনে বাবার সাথে সাপের খেলা দেখায়। বটগাছের নীচে বাদামওয়ালা, আইসক্রিমওয়ালা, আচারওয়ালা। তাদের ঘিরে আমরা। হঠাৎ এক পাতালতি গাছ পড়ুন
জীবন | ১টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ৪২ বার দেখা | ৪৭৬ শব্দ
অশ্রু বিভ্রান্ত
অশ্রু বিভ্রান্ত
চন্দ্রিমা রাত, বিবর্ণ প্রান্তর ছুঁয়ে
কুয়াশাস্নাত বন হরিণীর বেদনাহত দৃষ্টি
তীব্র আর্তনাদে গগন বিদারী প্রতিধ্বনি
কেউ নেই এই সৃষ্টি কূলে; সুদূরের মেঘালয়ে
চাপা পড়া তারার হাসি, মুছে দেয় গ্লানি;
প্রেমিকার হাত ধরে প্রেমিকের স্বপ্নবানী
আড়াল জুড়ে কামনার উল্কা ঝড়! চিবুক বেয়ে
গড়িয়ে পড়ে দু ফোটা অশ্রু! একি পড়ুন
কবিতা | ১টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ৬০ বার দেখা | ৫৫ শব্দ ১টি ছবি
বৃষ্টিদ্রোহী
॥ক॥
নষ্ট আগুন নিয়ে কিছু লোক চলে গেল এক্সপ্রেস ট্রেন ধরে। বিচ্ছিন্ন ঘাসের
কোলে ডুবে থাকা গ্রামগুলো ঘটনার সাক্ষী হয়ে লিখে রাখলো স্বরবর্ণের শোক।
প্রতিরোধ গড়ে তোলার কোনো ক্ষমতা ছিল না বলে ভাসমান ডিঙিও মাঝির
হাত ধরে কাঁদলো পুনরায়। আমি কোনো কবি নই। তবুও পংক্তির পুনরাবৃত্তি
দেখে পড়ুন
কবিতা | ১টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ৫৬ বার দেখা | ২০০ শব্দ
এই শুনছো?
এই শুনছো?
আহা কী যে সুন্দর আকাশটা আজ
নীলের তাকে তাকে কেবল মেঘেদের ভাঁজ,
চলো দেখে আসি আকাশ, দূরে যাই কোথাও,
এবেলা যন্ত্র শহর হতে হয়ে যাই উধাও। কী ঝলমলে রোদ্দুর, হেমন্ত দুয়ারে নাড়ছে কড়া
রোদ্দুর আলোও নয় এত কড়া
চলো না আকাশ ছুঁয়ে আসি, হেঁটে যাই বহুদূর,
চলো পড়ুন
কবিতা | ১টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ৫৪ বার দেখা | ১৩১ শব্দ ১টি ছবি
মুঠোফোন
বেশি অবসাদ এলে আশ্রয়ে যাব।
ভেতরে কেবল মালটার মতো রং
আমাকে এত প্রহর গোনায়,
বারান্দায় বসলে মৌখিক দৃশ্য শেষে
রাস্তার জ্রেবাদাগে বুক মিশিয়ে
শাদা জামার ফুলে হাঁটো, প্রতিদিন; বিজ্ঞাপনের কাগজ মৃতপ্রায়
শিরোনামে শহর দ্বিধাহীন গল্প ছাপে
আর তন্ময় ধ্যানে সাধুর মতো
আলো নিয়ে ফেরা লাবণী চোখ
আমাকে দার্শনিক করে অথচ
মুঠোফোনের যুগে কথাহীন তুমি! পড়ুন
কবিতা | ১টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ৪০ বার দেখা | ৪৩ শব্দ
দীপন্তি, তুমি চলে যাও
দীপন্তি, তুমি চলে যাও
কতকাল আঙুল ছঁইনি, ছুঁইনি নীল রঙা ফুল।
কতকাল দেখিনি,
ভোরের শিশিরে মুখের মিছিল
লাবণ্যে ছুঁয়ে থাকা ঝরা বকুল। দীপন্তি,
তুমি এলে, বড় দেরি করে এলে
মেঘময় আকাশ মধ্যরাতে ডাক পাঠাবে
এখন তুমি যাও, চলে যাও। বুকের শ্মশানে এখন অসম্ভব নির্জনতা
কাঁটার ঝোপঝাড়ে মাকড়সার পড়ুন
কবিতা | ২ টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ৪৭ বার দেখা | ১২৯ শব্দ ১টি ছবি
রায়
প্রোমোটারের যে মাফিয়াটি মন্ত্রীর ছাতার তলায় ছিল
তাকে মৃত্যুদণ্ড দিলাম,
অভাবী সংসারের যে মেয়েটি ধার করে টাকা দিয়েছিল
মন্ত্রীর শাগরেদদের, সেই মন্ত্রীকে মৃত্যুদণ্ড দিলাম,
চাল নেই বলে যে বউটি মন্ত্রীর চামুণ্ডের রুগ্ন শিস্ন দ্বারা ধর্ষিত হয়েছিল
সেই মন্ত্রীকে মৃত্যুদণ্ড দিলাম,
আমার রাষ্ট্রের, আমার রাজ্যের প্রতি সেকেন্ডে যারা রক্ত শুষে পড়ুন
কবিতা | ২ টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ৪২ বার দেখা | ৫৮ শব্দ
ধূসর পাণ্ডুলিপি
এখন বেশ আছি আঁতুড় ঘর, ক্ষুধা আর শীত
শূন্য হাত সকরুণ আকাশের দিকে তাকিয়ে থাকে
আর বাজখাঁই গলা বেসুরো হাঁকে
এ জীবনের নিবেদন; এখন মানুষগুলো
যেনো কেমন কেমন, কেউ তাকিয়েও দেখে না! ওই পাড়ায় গিয়েছিলাম জ্ঞান দর্শন; সেখানেও
ঈশ্বর জেগে জেগে ঘুমিয়ে আছে; কামলা আর
আমলা ওরাই এখন বেশ পড়ুন
কবিতা | ২ টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ৪০ বার দেখা | ৯৪ শব্দ
এখানে আলো নেই
এখানে আলো নেই
কি জানি, কেন জানি?
এখানে আলো নেই
মাথার ওপরে ইটসুরকির ছাদ! নেই আকাশ।
পথে আলো নেই,
ঘরে আলো নেই
ইট সুরকির উঁচু উঁচু দালান! সারি সারি। উঁচু গাছ নেই,
উঁচু পাহাড় নেই
গহিন পড়ুন
কবিতা | ২ টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ৩৭ বার দেখা | ৭৯ শব্দ
অবাধ্য
অবাধ্য
আর কতবার অবাধ্য হলে
অসুখের মুখে সুস্থ হবে;
প্রতিটা ঘন্টা, প্রতিটা দিন
এভাবেই চলছে অবাধ্যতা!
আকাশের বৃষ্টি দেখে বুঝাই
মাটির কাদা দেখো চৈত্রের
খরা হয়ে ফেঁটে ফেঁটে যাচ্ছে-
পাতা দেখো নিয়মে ঝরছে;
তবু তারা অবাধ্য নয় শুধু শুধু
তোমার জ্ঞানটাই যত অবাধ্য। ২৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৯, ১১ ডিসেম্বর’২২  পড়ুন
কবিতা | ৫ টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ৪৬ বার দেখা | ৩৭ শব্দ ১টি ছবি
একঘরে সরোজ
একঘরে সরোজ
নিবিড় ভোর
ঘন শীত কুয়াশা
ওপারে কাঞ্চন ব্রীজ আরেকটু এগোলেই সেই টিনের ঘর
হাতে হাতে কল্কি
জানিনা কি নেশায়
বিলীয়মান বাসের ভেতর তাকাই
কাদের যেন ছেলে এক হুহু করে চলে যাচ্ছে
কোমরে সমরাস্ত্র যুদ্ধাংদেহী
কি তার ভাব! গরম গরম!
অথচ চোখ দুটো দেখো স্বচ্ছ কেমন
কাঞ্চন ব্রীজের অদূরে শুয়ে পড়ুন
কবিতা | ৩ টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ৪৯ বার দেখা | ১০৮ শব্দ ১টি ছবি