মুহাম্মদ দিলওয়ার হুসাইন-এর ব্লগ
একটি রূঢ় বাস্তবতার গল্প
নাম তার সুদীপ্ত চৌধুরি। তিনি একজন শিক্ষক। তাও আবার প্রবাসী বিদ্যায়তনে চাকরি করেন। স্বায়ত্ত্বশাসিত প্রতিষ্ঠান। স্যারের আত্মসম্মান বোধটা একটু বেশি। কোন অভাব অভিযোগ কারো সঙ্গে সহজে শেয়ার করতে পারেন না। তাই সবাই ভাবে, স্যারের অনেক কিছু আছে। প্রবাসের মাটিতে কোন কিছুর অভাব হয় নাকি?
কিন্তু পড়ুন
জার্নাল ও ডায়েরী | ৪ টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ৮৬ বার দেখা | ১৪১ শব্দ
আমার বাংলাদেশে
চোখ মুদে দেখি যে অবয়ব সুন্দর বর্ণিল আকাশে
তুমিও কি খুঁজেছ তারে; কোন এক অন্ধকার সাগরের তলদেশে!
লক্ষ্মীপেঁচার ডাকে ঘুম ভেঙে, এখনো কি হাতড়ে বেড়াও আঁধারের আলো
শিশিরের পতন শব্দে জলতরঙ্গের সুরে, উন্মাতাল দিন কাটে কি আজো! সবুজ ক্যানভাসে বর্ণিল রঙের ছটায়, উন্মিলিত চোখে আজো কি স্বপ্ন ভাসে
এখনো পড়ুন
কবিতা | ১৮ টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ৩৯৮ বার দেখা | ১০৬ শব্দ
একটু সতর্ক হই!
একটু সতর্ক হই!
পেইজে একসাথে পনেরটি লেখা প্রদর্শিত হয়। এই পনেরটি লেখার মধ্যে একজনের চার পাঁটটি লেখা কম সময়ের মধ্যে পোস্ট করলে অন্যের লেখা দ্রুত আড়ালে চলে যায়। আসুন লেখা পোস্ট করার ক্ষেত্রে একটু সতর্ক হই। পড়ুন
অন্যান্য | ১৬ টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ১৯৬ বার দেখা | ৩৪ শব্দ ১টি ছবি
যতো সুখ বঙ্গমায়ের উত্তরী তলে
আমার অনাদি অস্থি জুড়ে বিস্তার লাল-সবুজের
এমন বিমোহিত করা রঙ কোথাও দেখিনাকো আর
হাজার নদী পাড়ি দিয়েছি; অকূল পাথার
বিত্তের মাঝেও নেই উল্লাস; শ্যামলিমার মত তোমার। চোখে ভাসে আজো উত্তরী উড়িছে দখিনা বাতাসে
যেমন ভেসে বেড়ায় শঙ্খচিল; বাধাহীন মুক্ত আকাশে,
ঘাসফড়িং রচিছে বাসর সবুজ ঘাসে স্বাধীন ভূমে
বারণ নেই তার হারিয়ে পড়ুন
কবিতা | ১৪ টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ৩৪৩ বার দেখা | ১০৫ শব্দ
তবে কি প্রেম!
যে বৃক্ষের ছায়ার বিকল্প আছে অহরহ
হন্যে হয়ে তবু কেন খুঁজি তারে অহর্নিশ, করে নিথর দেহ
মনের জানালায় এঁকে যাই সেই কচি কিশলয়
দুর্বাঘাসের তো অভাব নেই সবুজ বাংলায়। অক্টোপাসের অষ্টপদ অদৃশ্য চাপ রেখেছে হৃদয় গহীনে
মনের চোখের দৃষ্টি কেঁড়ে নিয়েছে অতি সংগোপনে,
দেখি না তাই নীল আকাশের ওপারের নীল পড়ুন
কবিতা | ১০ টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ২৯৬ বার দেখা | ১৯১ শব্দ
ধূসর প্রবাসে-
দিনের বেলায় ডুবে থাকি কর্মযজ্ঞে
ভুলে যাই কর্ম কোলাহলে অতৃপ্ত বাসনাকে
দিবাবসানে সন্ধ্যার আলো আঁধারে হারিয়ে যায় খেই
চোখে হলুদ স্বপ্ন হয় আরো ধূসরবর্ণ যেন মুক্তি নেই। আধপেটে তোমার কোলে মাথা রেখে যখন দেখি নীলাকাশ
কেমন মায়া আছে বোঝাবার নেই অবকাশ
বিদেশ-বিভূঁইয়ে হয়তো রাশি-রাশি ধনরাশি
কোথাও দেখি না তবু তুমি আমি পড়ুন
কবিতা | ১২ টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ৩২২ বার দেখা | ১১৯ শব্দ
স্বজাতির ভুলে প্রতিশোধের মালা আমারই গলে-
দেবদারু তলায় প্রায় দেখা হতো এক বৈষ্ণবীর সনে
ব্রত ছিল তার মজিবে না আর কোন পুরুষ প্রেমে;
ছিল এক বামন ঠাকুর; কেঁড়ে নিল তার সব জীবন-যৌবন
সে হতে বৈষ্ণবী; ঘুরে দেশে দেশে, নিয়ে সন্ন্যাসি মন । ভাঙতে বৈষ্ণবীর ভ্রম, সেজেছিলাম সাধুজন
ব্রত নিয়েছিলাম কভু হানিবো না আঘাত, হবো বিশ্বাসী পড়ুন
কবিতা | ১০ টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ২৩৫ বার দেখা | ৯০ শব্দ
অনন্ত পথের সন্ধানে-
হবো এবার বিসুভিয়াসের অগ্নি উদগিরিনী বান
পুড়ে যাবে যত জ্বালা যন্ত্রণা; হবো অনির্বান-
কুইনান গিলে নেবো, অমৃত সুধা মেলেনি যখন;
নিরন্তর মরুর বুকে হেটে চলি উদ্ভ্রান্ত পথিক যেমন। সীমাহীন অনন্ত পথে হতে পারিনি অসীম
আটকে গেছি তোমার মায়া জালে, পরিসর অতি সসীম
আমার আমি হতে পারিনি আমার মত করে,
আমি যে পড়ুন
কবিতা | ১৬ টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ২৯২ বার দেখা | ১২১ শব্দ
এসো তারুণ্যের চেতনায় গড়ি বাংলাদেশ
এসো তারুণ্যের চেতনায় গড়ি বাংলাদেশ
এসো আবার তারুণ্য দীপ্তকণ্ঠে করি উচ্চারণ-
এই মাটি আমার
এই ভূখন্ড আমাদের চেতনার দামে কেনা
প্রতিটি ইঞ্চির ন্যায্য হিস্যা বুঝিয়ে দিতে হবে আমাদের।
চাই না কোন সান্ত্রি কাপুরুষের আস্ফালন-
কান পেতে আজো শুনতে পাই, নুরলদিনের আর্তচিৎকার ‘জাগো বাহে’
চোখ বুজলেই দেখতে পাই আসাদের রক্তে রঞ্জিত পড়ুন
কবিতা | ৮ টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ৬১৯ বার দেখা | ১০৭ শব্দ ১টি ছবি
বন্ধুত্ব-
বন্ধুত্ব-
তুই কি আমায় বাসবি ভালো শর্ত ছেড়ে মুক্ত মনে
তুই কি আমার সঙ্গী হবি দুর্যোগে আর জলোচ্ছ্বাসে
হৃদয়ে জমিন বিছিয়ে দিবি; স্বর্গ সুখে ঘুমিয়ে নিতে
আমার চাওয়া, তোর চাওয়াতে মিলে মিশে পথ দেখাবে। বন্ধু, আমি ডাকছি তোমায়-
বাধার দেয়াল ছিন্ন করে আয় ছুটে আয়, পড়ুন
কবিতা | ৬ টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ২৭১ বার দেখা | ১০৯ শব্দ ১টি ছবি
অম্লান ক্যানভাস
ইদানিং ঘুমের ঘোরে জেগে উঠি বার বার
আধো আলো-ছায়ায় ভেসে কিছুটা অন্ধকার;
মোহ নয়, সে তো ভালোবাসা শুধুই বন্ধুত্বের
সেই সোনালি দিনে ফিরে যেতে চাই আবার। ফিরে এসো বন্ধু ছিন্ন করি রূঢ় বাস্তবতার শিকল
যন্ত্রদানবের যান্ত্রিকতা ভেঙে দিতে হই সবল,
চেয়ে দেখো ঘাসফড়িং এখনো খুঁজে কচি পড়ুন
কবিতা | ১৬ টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ৩০১ বার দেখা | ৯৫ শব্দ
আনন্দভূমে-
ইদানিং হারিয়ে যেতে বড্ড ইচ্ছে করে-
লোকালয় থেকে অনেক দূরে, দৃষ্টি সীমার ওপারে
যেথায় লোভ নেই, দ্বেষ নেই; নেই স্বার্থের হানাহানি
মরীচিকা নেই, নির্ঝর থেকে নেমে আসে স্বচ্ছ জলরাশি। আঁধার রাতে জ্বলে জোনাকির আলো
ঝিঁঝির ডাকে সুরের মূর্ছনায় সন্ধ্যা এলো
বাতায়ন পাশে বন্য হরিণ খেলা করে পড়ুন
কবিতা | ২২ টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ২১৯ বার দেখা | ১৩০ শব্দ
প্রতিজ্ঞাপত্র
জগৎ ভুলে যায় যাক; কিছুই যায় আসে না তাতে
জ্যোতিময় চাঁদনি রাতে আসুক ঝড়; আকাশ-পাতাল ভেঙে
ধরণী কেঁপে ওঠুক রিক্টার স্কেলের সর্বোচ্চ মাত্রা ছুঁয়ে
ধ্বংস হয়ে যাক ত্রিভূবন প্রকৃতির নিয়মে!
নদী হারিয়ে যাক সাগর মায়ায়, বিসর্জনে হোক স্বধর্মচ্যুত
চিরহরিৎ অরণ্যে অগ্নিশিখায় হোক ভস্মিভূত
বৈশাখি ঝড়ের তান্ডবে ভেঙে পডুক সপ্ত আসমান
রাত্রির পড়ুন
কবিতা | ১৮ টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ১৪১ বার দেখা | ২১৩ শব্দ
বিমূর্ত
বিমূর্ত
রক্তজবার মতো যতটা বর্ণিল ততটা নও কোমল
ইথারের ওপারের শব্দ তরঙ্গের মত বুনো স্বপ্নজাল
মোহান্ধ হয়ে ডুব দাও; তলদেশে পাথারের প্রান্ত সীমায়
অন্তহীন ভালোবাসায় খুঁজে ফেরো কোন এক অজানায়। অলস তন্দ্রায় স্বপ্নালোকের অভিনয়ে হয়ে মত্ত
জীবন তরী বেয়ে চলি; সুখের খোঁজে ডাকি তারে উদাত্ত
মুখোশ আড়ালে পড়ুন
কবিতা | ১৬ টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ২২৭ বার দেখা | ৮৪ শব্দ ১টি ছবি
সেই সোনালি ভোরের প্রতীক্ষায়-
আমি যদি হতাম হংসবলাকা; এ লোকালয় ছেড়ে চলে যেতাম দূরে
অনেক দূরে! যেথায় রাশি রাশি কাশফুল দুলছে আপন তালে
শুভ্র মেঘের ভেলায়; শিশির ভেজা ভোরের হিরণ্ময় দ্যুতি
আজও যেন আমায় ডাকছে নাশিয়া অন্ধকারের দুর্গতি। ওগো জলদ, তুমি আবার অবতীর্ণ হও এই ধরাধামে
মুছে দাও আমাদের যত কলঙ্ক রেখা; মম পড়ুন
কবিতা | ২৪ টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ৩১৩ বার দেখা | ৯৫ শব্দ