মুহাম্মদ দিলওয়ার হুসাইন-এর ব্লগ
এ যুগের কবি
এ যুগের কবি সন্ন্যাসি হতে ঘুরেছি দেশে দেশে, হেরেছি কত মনোরম দৃশ্য
পাইনি যোগিনীর দেখা; যোগমায়ার মায়ার ছলে, আমি যে নিঃস্ব!
কাব্য দেবীর আরাধনায় উদাস নয়নে চেয়ে থাকি সম্মুখ পানেতে
দেখি শুধু ধুধু বালুচর; একজোড়া শ্বেত বলাকা রয়েছে অনভিপ্রেত ছোটাছোটিতে। তোমার সাধনায় রাতের দ্বিপ্রহরে মগ্ন তপস্যার ধ্যান–
দেখেছি বার বার পড়ুন
কবিতা | ৩ টি মন্তব্য | ২৮ বার দেখা | ১১২ শব্দ
স্বপ্ন
স্বপ্ন কত রঙের স্বপ্ন বুনি প্রতিনিয়ত;
লাল নীল হলুদ বেগুনি আর-
নাম না জানা হাজার রঙের স্বপ্ন!
কোনোটা বাহারি, কোনোটা বিমূর্তপ্রায়! হরদম জাগরণে, অঘোর ঘুমের ঘোরে
বিরামহীম স্বপ্ন বুনে যাই অহরহ–
কখনো বিশ্বব্রহ্মাণ্ড ঘুরে আসি নিমিষে
পাতাল পুরীর অপ্সরার সনে বসি প্রেমালাপে
কখনোবা বিলগ্রেটকে হার মানিয়ে ধন কুবের সেজে
বিশ্বের সব সুখ কিনে নিই পড়ুন
কবিতা | ৪ টি মন্তব্য | ১৭ বার দেখা | ১২১ শব্দ
অম্লান ক্যানভাস
ইদানিং ঘুমের ঘোরে জেগে উঠি বার বার
আধো আলো ছায়ায় ভেসে কিছুটা অন্ধকার;
মোহ নয়, সেতো ভালোবাসা শুধুই বন্ধুত্বের
সেই সোনালি দিনে ফিরে যেতে চাই আবার। ফিরে এসো বন্ধু ছিন্ন করি রূঢ় বাস্তবতার শিকল
যন্ত্র দানবের যান্ত্রিকতা ভেঙে দিতে হই সবল,
চেয়ে দেখ ঘাস ফড়িং এখনো খুঁজে কচি পড়ুন
কবিতা | ৩ টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ৫৭ বার দেখা | ৯৬ শব্দ
অম্লান...
হবো এবার বিসুভিয়াসের অগ্নি উদগিরিনী বান
পুড়ে যাবে যত জ্বালা যন্ত্রণা; হবো অনির্বান—
কুইনান গিলে নেবো, অমৃত সুধা মেলেনি যখন;
নিরন্তর মরুর বুকে হেটে চলি উদ্ভ্রান্ত পথিক যেমন। সীমাহীন অনন্ত পথে হতে পারিনি অসীম
আটকে গেছি তোমার মায়া জালে, পরিসর অতি সসীম
আমার আমি হতে পারিনি আমার মত করে,
আমি যে পড়ুন
কবিতা | ১০ টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ৭৪ বার দেখা | ১২১ শব্দ
কাব্য দেবীর অলঙ্কার
তোমার সাধনে হয়েছি পথের বিবাগী
মার্তন্ড প্রায় করেছি সন্নিকটে; হয়ে উদাসী
ছেদন করিতে দ্বিধা করিনি সংসারের মায়াজাল
অর্ঘ্য হাতে বসে আছি; রক্ত আভায় মম কপোল । দেবী, জানিনে তব; জগত সংসারে তোমার বসতি
তবে কেন মরু মায়ায় বিফল তপে মজেছি;
দীনহীনের মোটা বসনেও তুমি রূপসী অনন্যা
দেখি আবার পড়ুন
কবিতা | ৯ টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ৭০ বার দেখা | ৭৯ শব্দ
অস্থিরতা
নশ্বর
অবিনশ্বর
চিরন্তর!
শব্দ দ্যোতনায় নিরন্তর!! সুন্দর; সেওতো নশ্বর
তবে কি আছে অবিনশ্বর!
ভালোবাসার বন্ধন! সেও নয় চিরন্তর
স্বার্থের টানে চলে যাই; বহুদূর দূরান্তর! রবির আলো; এতো আলোকিত, আঁধার আছে বলে
আঁধারের মাঝে ডুব দেই, প্রভাত কাছে পাওয়ার ছলে
ঘূর্ণায়মান পৃথিবীর মাঝে ঘুরে ফিরি অহর্নিশ
স্থির নয়, সবই ধাবমান, চোখে ভাসে আশীবিষ।। পড়ুন
কবিতা | ৮ টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ১৩০ বার দেখা | ৪২ শব্দ
সনাতনী
নৈরাশ্যবাদ আমায় ছোঁয় না, যদিও আশার পথ রুদ্ধ
বক্র পথে হই না আগুয়ান; সরল পথে চলে যুদ্ধ,
সনাতনী ঠিকানা আজো ভুলিনি,
তন্দ্রা চোখে ছুটে চলি, তারই অলিগলি। জীবন যুদ্ধে হয়েছি কি জয়ী; ভাবিনি কোন দিন
কর্মই ধর্ম ব্রত মেনে চলেছি, নিদ্রাহীন
আজন্ম স্বীয় বিশ্বাসে; প্রত্যয়ের দৃঢ়তায়
দুরন্ত পথের পথিক হয়েছি কোন পড়ুন
কবিতা | ১২ টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ১৩২ বার দেখা | ৭১ শব্দ
আহ্বান
অভিমান যে আমারও হয়না তা নয়!
যখন দেখি অনেকগুলো প্রিয় মুখ সাথে আছেন অথচ সহব্লগারের লেখায় চোখ বুলিয়ে নেয়ার তাগিদও বোধ করেন না! আবার মন্তব্যের উত্তর দেয়ার ক্ষেত্রেও কুন্ঠিত। চুপচাপ সয়ে যাই, হারিয়ে যাই নীরবে!! একদা মন্তব্য দেয়ার প্রতিযোগিতা হত। কে আগে মন্তব্য দিতে পেরেছি! কিছু পড়ুন
আড্ডা, স্মৃতিকথা | ১৪ টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ১৪৪ বার দেখা | ১২০ শব্দ
স্বপ্নরাজ
কত রঙের স্বপ্ন বুনি প্রতিনিয়ত;
লাল নীল হলুদ বেগুনি আর-
নাম না জানা হাজার রঙের স্বপ্ন!
কোনোটা বাহারি, কোনোটা বিমূর্তপ্রায়!
হরদম জাগরণে, অঘোর ঘুমের ঘোরে
বিরামহীম স্বপ্ন বুনে যাই অহরহ–
কখনো বিশ্বব্রহ্মাণ্ড ঘুরে আসি নিমিষে
পাতাল পুরীর অপ্সরার সনে বসি প্রেমালাপে
কখনোবা বিলগ্রেটকে হার মানিয়ে ধন কুবের সেজে
বিশ্বের পড়ুন
কবিতা | ৯ টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ১১৮ বার দেখা | ১২৭ শব্দ
শূন্য রোদন
কী এমন ঘটে গেলো সহসা
প্লাবিত হয়ে গেলো বসুন্ধরা!
অনিমেষ হয়ে গেলো নির্মিলিত
বসন্ত সমীরণেও সন্দেশ আজ দূষিত। অচলার উন্নত মম শির যেন আনত
ভাগ্যদেবী খেলিছে এ কোন খেলা প্রতিনিয়ত!
অরণ্যের মাঝে নেই কোন শ্যামল ছায়া
সাগরের বুকে গড়ে উঠেছে অট্টালিকা! শ্রাবণ গগণ মাঝে ত্যাজিছে জ্বলন শিখা
সদুত্তর চেয়ে রোহিণী ছুটিছে দেখেও পড়ুন
কবিতা | ৬ টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ৫৯ বার দেখা | ৬৩ শব্দ
অবোধ বিবাগী
খুঁজি, খুঁজছি নিরন্তর
লোকালয় থেকে বহু দূরের কোন এক তেপান্তর
পাইনা কোথাও;
দখিনা সমীরণের তালে তালে অহর্নিশ
মেঘমালার গতি দেখে
সুর্যোদয় কিংবা অস্ত দেখে
ঝড়ের গতি মেপে মেপে
দক্ষিন মেরু থেকে উত্তর মেরুতে
কখনোবা পূর্ব থেকে পশ্চিমে
খুঁজে চলি অহরহ,
পাইনা কোথাও!
আলোক পিয়াসী নীল পতঙ্গের মতো খুঁজি
হয়ে যাই যন্ত্রমানব
খুঁজে চলে আবেগী পড়ুন
কবিতা | ৬ টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ৬৭ বার দেখা | ৮৮ শব্দ
অপেক্ষা-
ঘর হইতে বাহির হইনু-
লভিতে অপরুপ শোভা দেশে বিদেশে
দেখিয়াছি গগণচুম্বী অট্টালিকা-
মানবরূপী খেলনা মানব করিছে খেলা অন্দরে বাহিরে
দেখিনি প্রাণের ছোঁয়া; যেমন দেখিয়াছি রমনা বটমূলে! গিয়াছি বরফের দেশে-
শ্বেতশুভ্র মায়া মমতা বুঝি এইখানে রহিয়াছে সবার অন্তরালে
পাইনি আমি পাইনি খুঁজিয়া-
যেমন তুমি লালন করিয়াছিলে শ্যামল আবেশে। মরুর দেশের মরুর পড়ুন
কবিতা | ৬ টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ১০১ বার দেখা | ৮২ শব্দ
বেলা শেষে...
আঁধারের গভীরতা ভালোবাসি তবু
সন্ধ্যা থেকে মধ্যরাত যদিও সময়টুকু পাইনি কভু
আলো আঁধারি খেলা খেলেছি সময় ছিল অবিরত
প্রতীক্ষা অপেক্ষা শব্দ দুটি আমার বেশ পরিচিত। নীড় হারা পাখির আত্মনাদে অভ্যস্থ হয়ে পড়েছি কখনো
পদ্মার বুকে হারিয়ে যাওয়া বসত বাড়ি দেখেছি শতশত
তোমার নাতিদীর্ঘ আলাপচারিতায় আমি ডুব দেই ভূমধ্য সাগরে
লৌহমানব হতে পড়ুন
কবিতা | ৪ টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ১৩২ বার দেখা | ১৩১ শব্দ
আমার স্বাধীনতা
আমার স্বাধীনতা শব্দটি
মনে করতে চোখে ভেসে ওঠো লাখো শহিদের প্রতিচ্ছবি
আজো শুনতে পাই স্বজন হারানো আত্মচিৎকার
ইথারের মত ভেসে আসে সকরুণ সুর। চোখে ভাসে আজো হায়নার হিংস্র থাবা
শ্যামলিমার বুকে দাউ দাউ অগ্নশিখা
নদী মাতার বুকে বয়ে যায় রক্ত গঙ্গা
রাজপথ হয় লাখো শহিদের রক্তে রাঙা। জ্বলে শহর; জ্বলে গ্রাম, পড়ুন
কবিতা | ২ টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ৪৭ বার দেখা | ৯৫ শব্দ
ধূসর প্রবাসে
দিনের বেলায় ডুবে থাকি কর্মযজ্ঞে
ভুলে যাই কর্ম কোলাহলে অতৃপ্ত বাসনাকে
দিবাবসানে সন্ধ্যার আলো আধারে হারিয়ে যায় খেই
চোখে হলুদ স্বপ্ন হয় আরো ধূসরবর্ণ যেন মুক্তি নেই। আধপেটে তোমার কোলে মাথা রেখে যখন দেখি নীলাকাশ
কেমন মায়া আছে বোঝাবার নেই অবকাশ
বিদেশ বিভূঁইয়ে হয়তো রাশি রাশি ধনরাশি
কোথাও পড়ুন
কবিতা | ৬ টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ৮০ বার দেখা | ১২৩ শব্দ