সতত অপর্যাপ্ততা এবং অর্থপ্রাপ্তির সুনিশ্চিত সম্ভাবনা না থাকার পরও শব্দনীড় ব্লগ গত এপ্রিল’১৮ থেকে অনিয়মিত ভাবে দুই দফা বন্ধের পর নিয়মিত ভাবে চলছে।

শব্দনীড় লেখকরা কেউ হয়তো স্বতঃপ্রণোদিত হয়ে আবার কোন কোন লিখা আরোপিত। তাদের কেউ কেউ তাদের লিখায় পাঠক মন্তব্যের উত্তর করছেন, কেউ নিজের পোস্টে তো উত্তর করেছনই না উপরন্তু অন্যের লিখা পড়া দূরে থাক; পাঠ প্রতিক্রিয়ায় একটি শব্দও খরচা করছেন না। নিজে লিখুন এবং অন্যের লিখা পড়ুন, মন্তব্য এবং প্রতি-মন্তব্যে ব্লগিং হোক আনন্দের এটাই ছিলো শব্দনীড় এর চাওয়া। এই চাওয়া কতটা পূরণ হয়েছে মূল্যায়নের ভার আপনাদের উপর রইলো।

শব্দনীড়কে বাঁচিয়ে রাখতে আপনাদের সঙ্গ এবং আর্থিক অনুদান দুটোই প্রয়োজন। যা সম্ভব দশের সহযোগিতা এবং আন্তরিকতা ভালোবাসায়। দুঃখজনক যে আমরা ২/৩ হতে পেরেছি; দশ হতে পারিনি। প্রয়োজন এককালীন বাৎসরিক খরচা। প্রতি মাসে শব্দনীড় ব্যায় কম বেশী প্রায় ৩,৫০০ টাকা। বাৎসরিক হলে কিছুটা সাশ্রয়।

ব্যক্তি বা প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপনের প্রদর্শনের আবাহন করা হলেও কোন সাড়া মেলেনি। দুই একজন ক্ষুদ্র বা আংশিক সহযোগিতা নিয়ে এগিয়ে এলেও ধীরে ধীরে তাও হিমঘরে যাবার সম্ভাবনা দেখা দিয়েছে। এভাবে অনলাইন প্রতিষ্ঠান চলতে পারে না। যেখানে পারস্পরিক সম্পর্কও দিন দিন দূরত্ব বাড়িয়ে চলে !!

আপনার অনুদান ছোট হলেও ক্ষতি নেই। শব্দনীড় এর হিসাব খাতে স্বনাম প্রকাশ অথবা নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক হিসেবেও আপনি থাকতে পারেন শব্দনীড়ের পাশে। যে কোন অনুদান পাঠাতে শব্দনীড় এর অফিশিয়াল এবং পার্সোনাল হিসাব নাম্বার সংগ্রহে রাখুন। শব্দনীড় সর্বজনীন। মুক্ত বাক্ স্বাধীনতায় শব্দনীড় সকলের পাশে।

প্রবাস থেকে :

13014951_1264109813618225_1805744498_n

Azad Kashmir Zaman
Mobile # 01743 918 919
NID : 464 228 1987
www

শব্দনীড় অনলাইনে থাকা কতটা দরকার আপনার মতামত জানতে দিন।

GD Star Rating
loading...
GD Star Rating
loading...

মুরুব্বী সম্পর্কে

আমি আজাদ কাশ্মীর জামান। আছি মুরুব্বী নামের অন্তরালে। কবিতা পড়ি, কবিতা লিখার চেষ্টা করি। ভেতরে আছে বাউল মন। খুঁজে ফিরি তাকে। জানা হয়নি এখনো। ঘুরতে ঘুরতে আজ পৃথিবীর স্বর্গে। এখানেই পরিচয় হয়েছিলো, কবিতা পাগল এক মানুষের সংগে। নাম জিয়া রায়হান। যার কিছু শব্দকথা, এ্যাতোদিন ভরেছে আমার পাতা। উথাল পাথাল হাওয়া, হৃদয়ে জাগালো দোলা পেলাম কিছু সমমনা মানুষের দ্যাখা। দিনভর আর রাতভর শুধু কবিতায় গেলো বেলা। সব ছেড়েছি- সব পেয়েছি- ভুলতে পারিনি শুধু কবিতার অশ্রুসজল চোখ। ভালো লাগা থেকেই দু’ একটা শব্দ সাজাবার চেষ্টা করি। মাতাল বৃষ্টিতে ভিজে ভিজে মাটির কলসে, তবলার ধ্বণী তুলে গাইতে পারি বেসুরো গান- সুর নামের অন্তরালে। ভালোলাগে পোষা কবুতরের পালক ললাটে ছোঁয়াতে। ফুল থেকে রং নিয়ে, খেলি হোলিখেলা, হৃদয়ের উঠোনে। আজ তারি ধমকে এলাম স্বরূপে- স্বকথায় ভরাবো পাতা।   hits counter
এই পোস্টের বিষয়বস্তু ও বক্তব্য একান্তই পোস্ট লেখকের নিজের,লেখার যে কোন নৈতিক ও আইনগত দায়-দায়িত্ব লেখকের। অনুরূপভাবে যে কোন মন্তব্যের নৈতিক ও আইনগত দায়-দায়িত্ব সংশ্লিষ্ট মন্তব্যকারীর।
এই লেখাটি পোস্ট করা হয়েছে অন্যান্য-এ। স্থায়ী লিংক বুকমার্ক করুন।

১৭ টি মন্তব্য শব্দনীড় অনলাইনে থাকা কতটা দরকার মতামত জানতে …

  1. সৌমিত্র চক্রবর্তী বলেছেনঃ

    নিশ্চয়ই আমি শব্দনীড়কে অনলাইনে থাকা দরকার বলে মনে করি। কিন্তু অপর্যাপ্ততা এবং অর্থপ্রাপ্তির সুনিশ্চিত সম্ভাবনা না থাকলে বরং শব্দনীড় ব্লগ বন্ধ করে দেয়াই ভালো মনে করি। কেন যে আমরা নির্লোভ একটি প্রতিষ্ঠানের পাশে এসে দাঁড়াই না এটাই বুঝি না। ০৫ জন মানুষ শব্দনীড় এর পাশে থাকলে শব্দনীড় বন্ধ হবে না আমি বিশ্বাস করি। কোথায় সেই ০৫ জন ? Frown

    GD Star Rating
    loading...
  2. মুহাম্মদ দিলওয়ার হুসাইন বলেছেনঃ

    * শব্দনীড় বেঁচে থাকুক হাজার বছর। সুপ্রিয় প্রেরণাদাতা মুরুব্বীর ডাকে সবসময় সাড়া দেয়ার চেষ্টা করেছি এবং ভবিষ্যতেও করবো। কিন্তু হতাশ হই সহব্লগারদের আচরণে তাই মাঝে মধ্যে ডুব দেই। 

    অর্থের জন্য শব্দনীড় বন্ধ হবার অবকাশ নেই তবে উদার ব্লগারের বড্ড অভাব এসময়ে। প্রতিক্রিয়াশীল লেখা ছাড়া সব লেখায় আমি মন্তব্য করার চেষ্টা করতাম পুরাতন ব্লগারদের তা অজানা নয়। 

    ভালোবাসার শব্দনীড় টিকে থাকুক অনন্তকাল। 

    GD Star Rating
    loading...
    • মুরুব্বী বলেছেনঃ

      আপনার মূল্যবান মন্তব্য গুরুত্ব এবং সম্মান সহকারে জানলাম স্যার। আমি চাইছি আরও একটু খোলামেলা আলোচনা। নতুনরাও অন্তর্ভূক্ত হোক। আসুক নতুন কোন পরিকল্পনা বা সিদ্ধান্ত। শব্দনীড় কমপক্ষে ০১ টি বছরের জন্য সুরক্ষিত থাকুক। না থাকতে পারলে বন্ধ হয়ে যাওয়া শ্রেয়। যেখানে সহব্লগারদের আচরণ যথেষ্ট শীতল।

      GD Star Rating
      loading...
  3. ইলহাম বলেছেনঃ

    "শব্দনীড়কে বাঁচিয়ে রাখতে আপনাদের সঙ্গ এবং আর্থিক অনুদান দুটোই প্রয়োজন। যা সম্ভব দশের সহযোগিতা এবং আন্তরিকতা ভালোবাসায়। দুঃখজনক যে আমরা ২/৩ হতে পেরেছি; দশ হতে পারিনি। প্রয়োজন এককালীন বাৎসরিক খরচা। প্রতি মাসে শব্দনীড় ব্যায় কম বেশী প্রায় ৩,৫০০ টাকা। বাৎসরিক হলে কিছুটা সাশ্রয়।"

    শব্দনীড় নিয়ে এমন একটি লিখা দেখে সত্যই আমি বিস্মিত!

    আমার জানা মতে, শব্দনীড় ব্লগের লেখার ভিউয়ার এর সংখ্যা শব্দনীড় এর আয়ের কোনও উৎস নয়। 

    আকাশ ছোয়া – নামক একটি অনলাইন পত্রিকার এড দেখতাম – সেটা এখন দেখছি না – এটা আয়ের কোনও উৎস ছিল কিনা আমি জানি না।

    বিজ্ঞাপনের জন্য কেউ এগিয়েও আসছে না।

    গুগল থেকে যে অটো এড গুলো আসে (এই পোস্টে বানিজ্য মেলার এড দেখাচ্ছে) সেগুলোও আয়ের উৎস নয়।

    প্রিয় বড় ভাই (মুরুব্বী),

    তাহলে আমার প্রশ্নঃ আপনি নিজের খরচে এটা চালাচ্ছেন কেন?

    আমি প্রিয় কবি সৌমিত্র চক্রবর্তী এর সাথে একমত পোষণ করে বলতে আগ্রহী, দেখুন আর কিছু দিন – ৫ জন বাংলাদেশী যদি এক হয়ে খরচ চালাতে না পারে তাহলে আপনি নিজের খরচে চালিয়ে আপনার কী লাভ হচ্ছে?

    খরচের যে পরিমান তা তো এক জনই দিতে পারে- কিন্তু যিনি দিবেন তারই বা কি লাভ?

    তাই আপনি নিজে বা ১ জন এ খরচ বহন করার কোনও মানে নেই।

    ৫ জন বাংলাদেশী হলে – এডমিন এবং মডারেটর বানিয়ে একটি শব্দনীড় কমিউনিটি বানাতে পারেন।

    আবার প্রশ্নঃ এই ৫ জনের লাভ কি?

    সেটা ঐ ৫ জনই ঠিক করবেন আগামী ৫ বছরের পরিকল্পনা।

    ভবিষ্যতে শব্দনীড় প্রকাশক নামক বই ছাপানোর বিজিনেস করবেন নাকি 

    "শব্দনীড়" পত্রিকা (অনলাইন এবং কাগজ) বের করবেন নাকি আরও কিছু করবেন তা ঐ ৫ জনই ঠিক করবেন।

    আর যদি ৫ জন না পান তাহলে প্রিয় মুরুব্বী শব্দনীড় বন্ধ করে দেয়াই ভাল কারণ কেন আপনি নিজের খরচে এটা চালাবেন?

    আর যদি চালান তাহলে "ফাইভ ইয়ার্স প্ল্যান" থাকতে হবে- তা না হলে বন্ধ করে দেয়াই   ভাল।   এটা আমার একান্ত ব্যাক্তিগত মতামত।

    GD Star Rating
    loading...
    • মুরুব্বী বলেছেনঃ

      আপনি সঠিক জানেন মি. ইলহাম। শব্দনীড় ব্লগের লেখার ভিউয়ার বাড়লে বা গুগল অটো এ্যাড শব্দনীড় এর আয়ের সাথে এর কোন সম্পর্ক নেই। কমপ্লিমেন্টারি।

      আকাশছোঁয়া অনলাইন পত্রিকা শব্দনীড়কে স্পন্সর করেছিলেন তবে ভবিষ্যতে আর করবেন কিনা আমার জানা নেই। তবে হ্যাঁ, শব্দনীড় পুনর্জাগরণে আকাশছোঁয়ার প্রতি শব্দনীড় সবসময়ই কৃতজ্ঞ। স্মর্তব্য যে শব্দনীড় একটি অলাভজনক প্রতিষ্ঠান।

      আমি বিশ্বাস করি শব্দনীড় হোক আমাদের সবার ব্লগ। সবাই সমান সাহায্যে আসবেন এই প্রত্যাশা ভুল। আর্থিক সহযোগিতার মাধ্যমে অন্তত কিছু মানুষের মনে একটি ব্লগের প্রতি দায়িত্ব বাড়বে এটাই আমার ব্যক্তিগত আশা। খরচের যে পরিমান তা তো এক জনই দিতে পারে এটা আমি মানি কিন্তু যিনি দিবেন তারই বা কি লাভ? স্পষ্ট বলতে তার বা তাদের; আমার বা আমাদের কোন লাভ নেই। বরং বলতে পারেন আর্থিক ক্ষতি। কেন'র উত্তর পোস্টে উল্লেখ রয়েছে।

      ৫ জন এর এডমিন এবং মডারেটর প্যানেল বানিয়ে শব্দনীড় কমিউনিটি বানানো সম্ভব। তাঁরা ঠিক করবেন আগামী ৫ বছরের পরিকল্পনা। এই প্রস্তাব উত্তম মনে করি। আমি একমত।

      যোগ্য উদ্যোক্তা থাকলে ভবিষ্যতে শব্দনীড় প্রকাশনী নবীন লিখকদের পাশে যেন দাঁড়াতে পারে এমনটা আমিও চাই। তবে সেটা বিজনেস বা বাণিজ্যিকীকরণ হোক বা শব্দনীড় সেখান থেকে আর্থিক লাভবান হোক এমনটা চাই না। সমন্বিত শব্দনীড় যেমন উন্মুক্ত প্লাটফরম, যেমন নবীন-প্রবীণের প্রাঙ্গণ, বাক্ স্বাধীনতার অলাভজনক খোলা দ্বার, আত্মিক প্রকাশের এই জানালা সবার জন্য সর্বদা অবারিত থাকুক এটাই আমার ব্যাক্তিগত অভিমত। মতামতের জন্য ধন্যবাদ আপনাকে।

       

      GD Star Rating
      loading...
  4. রিয়া রিয়া বলেছেনঃ

    সেই প্রথম থেকে শব্দনীড় এ আছি। ভারতে থাকার কারণে আমি অন্তত কখনই কোন কাজে আসতে পারিনি। এই একমাত্র আপনাকে আমি পেয়েছি যিনি কিনা শত প্রতিকূলতার মাঝেও শব্দনীড়কে নিয়ে ভাবেন। সবাইকে সমান চোখে দেখেন।

    এই ভাবনা বা স্বপ্ন যেটাই বলি না কেনো, অলাভজনক এই প্লাটফর্ম দুটো ভাবে বাঁচতে পারে। এক. আপনার মতো মানুষের যোগ্য নেতৃত্ব বা পরিচালনা।

    দুই. ২/১ জন মানুষ। ৫-৭ জন নয়। কারণ অতি ভীড়ে প্রত্যেকে আবার প্রত্যেকের পরে গা ছেড়ে দেবেন। মান্থলি হলে অল্প মানুষের পর্ষদই ভাল। আর বাৎসারিক এককালীন হলে সেক্ষেত্রে অনুদানকারীর সংখ্যা বাড়লে ক্ষতি নেই। অনিশ্চয়তায় বেঁচে থাকা থেকে মেয়াদী ভাল।

    অনুদানকারীরা বিজ্ঞাপন দিয়েও সাহায্য করতে পারেন। তবে যারা নির্মোহ ভাবে সামান্য অর্থের যোগান দিয়ে সকলের প্রিয় শব্দনীড়কে জাগিয়ে রাখতে সাহায্য করবে তাদেরকে আমি শব্দনীড়ের প্রকৃত সম্পদ বলতে দ্বিধা করবো না।

    GD Star Rating
    loading...
  5. আলমগীর সরকার লিটন বলেছেনঃ

    সবই ত দেখে আসতেছি –

    তবে জাকির দা কে এগে আসতে হবে

    বই মেলাতে স্টলছির আবার 

    আনতে হবে- তাহলে কিছু গতি হবে—–

    GD Star Rating
    loading...
  6. নাজমুন বলেছেনঃ

    আমি ভাবছিলাম হয়তো বিজ্ঞাপন পাচ্ছেন অথবা আয়ের সংস্থান হয়েছে তাই চলছে শব্দনীড় । কিন্তু নিজের পকেটের টাকায় আর কত চালানো যায় ?

    অনুদানের টাকায় ও বেশীদিন চালানো সম্ভব না কারণ একমাস অনুদান পেলে পরের মাসের অনুদান পাওয়া যাবে কিনা সে অনিশ্চয়তার ব্যপার । অতএব আয়ের উৎস তৈরী করতে না পারলে শব্দনীড় হুমকীর সম্মুখীন হয়েই রইলো । 

    বন্ধ করে দেয়া সমীচীন কিনা সেটা বলতে চাই না – কারণ আপনি এটা শুরু করেছেন সেই কবে থেকে এবং নিজের টাকায় যখন চালাচ্ছেন তখন এর অস্তিত্ব নিজের সন্তানের চাইতে কম নয় । তবু বিসর্জনের চাইতে আমার মনে হয় আয়ের ব্যবস্থা করা যায় কিনা সেটা আর একবার ভেবে দেখা উচিত । 

    ধন্যবাদ আপনাকে । 

    GD Star Rating
    loading...
  7. নিতাই বাবু বলেছেনঃ

    আমি অধম, অজ্ঞ আর অর্থহীন এক জীবন্ত প্রাণী। আমার কোনও অভিমত নেই আর এবিষয়ে শলাপরামর্শ দিতেও পারছি না। 

    দিতে পারতাম, যদি আমার তেমন থাকতো! কিন্তু হায়! আমি যে, নিঃস্ব তাই আমার কোনও জ্ঞান বুদ্ধিও নেই। তবু চাই শব্দনীড় বেঁচে থাকুক আমার পাশে, আমার অন্তরে আর অনলাইনে।

    GD Star Rating
    loading...
  8. মিড ডে ডেজারট বলেছেনঃ

    কিছু সঙ্গত কারণে অফ বা অনলাইন কোনভাবেই শব্দনীড়ে আসা হয়নি। অনেকগুলি প্রস্তাব এসেছে দেখলাম; সবগুলি বিবেচনা করা যেতে পারে। কম্পাইল করে রাখুন, যেটা শব্দনীড়কে অক্সিজেন দেবে সেটাই ফুসফুসে নেয়া যাবে। তবে এই মুহূর্তে এক বছরের ফান্ডস সিকিউর করা প্রথম কাজ মনে করি।বুঝা গেল, ২/৩ জন অলরেডি কন্ট্রিবিউট করার মতো আছেন। তাইলে আর ২/৩ জনের দরকার নেক্সট ১ বছরের ফান্ডস সিকিউর করতে। বাকি ২/৩ জনের ১জন আমি হতে পারি।

    কিছু কথাঃ

    ১) পোস্ট এপ্রুভাল সিস্টেম রাখা যায় কিনা? কোয়ালিটি মেটার করে! এই যেমন ধরুন, অণুগল্প বা কবিতা। আমি যতোটুকু বুঝি, অণুগল্প লিখা সবচে কঠিন কাজ। অথচ কেউকেউ ভুলভাল কিছু লিখে অণু গল্পের নামে সেগুলো অযথা কাগজে ছাপায়; মাঝখান থেকে গাছ বা বাঁশের প্রাণ যায় সেইসব লিখার কাগজের যোগান দিতে। গ্রুপে বা ব্লগে পাঠকেরও বিরক্তি জাগায়; অণুগল্প বিষয়ে পাঠককে ভুল ধারণা দেয়। কবিতার ক্ষেত্রেও কেউ কেউ এমন। মায়ের ভাষায় লেখা কবিতা যখন পড়ি, কোন কোন লেখকের কবিতা পড়ে মনে হয় এই ভাষা কী আমার মাতৃভাষা?!

    ২)ঐতিহাসিক ভাবে মীমাংশিত না হলে কোন রাজনৈতিক লেখা ব্লগে জায়গা দেয়ার ক্ষেত্রে চিন্তা ভাবনা করা বেটার। একটা ক্রিয়েটিভ গ্রুপকে মূলত  (আমার ধারণা)এডমিনের রাজনৈতিক পোস্টের কারণে কোমায় যেতে দেখেছি

    ৩) “মিডলাইফক্রাইসিস” অণুগল্পে আমি “সাদাকালো” দেশি ব্র্যান্ডের কথা উল্লেখ করেছি। এটা ওদের জন্য এডভারটাইজে রুপ নেবে যদি এই গ্রুপের বিশাল বড় কমিনিউটি গ্রুপ থাকে। আর এজন্য অনেক বেশি সংখ্যক কোয়ালিটি লেখক দরকার। বিভিন্ন গ্রুপে অনেকেই ভালো লিখেন, তাদেরকে নক করা যেতে পারে। এসব হলে হয়তো স্পন্সর পাওয়া যেতে পারে।   

    আপনার এই পোস্টটা আরও কিছুদিন “নির্বাচিত পোস্ট” হিসেবে রাখা যায় কিনা। এই যেমন আমি কমেনটে  অংশ নিতে পারিনা; এই রকম আরও কেউ থাকতে পারেন।

    ৫ জনের আমি একজন হতে পেরেছি কিনা আজ দিনের কোন একসময় এখানে আওয়াজ দিয়েন প্লিজ।  অপরিচিত নাম্বার থেকে যাবে।

    GD Star Rating
    loading...
  9. হাসনাহেনা রানু বলেছেনঃ

    শব্দনীড় ব্লগে খুব বেশি দিন আমার আগমন ঘটিনি। খুব বেশি হলে ১২/১৫ দিন হবে। আমি এই স্বল্প সময়ে বুঝতে পেরেছি শব্দনীড় ভালোবাসার একটা স্থান দখল করেছে। আমি চাই শব্দনীড় আমৃত্যু বেঁচে থাকুক লেখক, পাঠক হৃদয়ে, মননে।

    GD Star Rating
    loading...

মন্তব্য প্রধান বন্ধ আছে।