বলে যাও প্রজাপতি

বলে যাও প্রজাপতি

কথা কও প্রজাপতি, কখনো কি তুমি দেখেছো মোর প্রিয়তমার সুন্দর মুখখানি। কখনো কি উড়ে গিয়ে, বসেছ তাঁর খোঁপায় দেখেছো কি চুলের বাহার, আছে কেমন মাথায়। দেখছো কি তাঁর চোখে হাজার কবিতার কাব্য চোখ দিয়ে আবৃত্তি করার, কার আছে সাধ্য ! কখনো কি ছুঁয়েছিলে তাঁর হাতের আঙুল স্পর্শেই রোগ সাড়ে যেন শ্বেতচন্দন ফুল। বলে যাও প্রজাপতি … Continue reading “বলে যাও প্রজাপতি”

দশটি অনুকাব্য

(১) কারো কোন দোষ নেই নেই কোন ভুল, অসময়ে কাছে আসার দিতে হচ্ছে মাশুল। (২) পাখিরা নিজেদের নীড়ে ফিরে যায় নদীগুলো মিলিত হয় মোহনায়, আমি একযুগ ধরে অপেক্ষা করছি তোমার সাথে মিলিত হওয়ার নেশায়। (৩) এক সমুদ্র ভালোবাসা নিয়ে অপেক্ষায় ক্লান্ত মন, সুখের দেখা মিলবে সেদিন তুমি আসবে যখন! (৪) হাত নিশপিশ করে চাঁদ ছুঁতে … Continue reading “দশটি অনুকাব্য”

তোমাকে চাই

তোমাকে চাই

আমি তোমাকে ঠিক সেভাবে চাই যেভাবে একটা শিশু চায় খেলনা। আমি তোমাকে সেভাবে ভালোবাসি যেভাবে মানুষ ভালোবাসে জীবনকে। আমি তোমাকে সেভাবে ছুঁতে চাই যেভাবে সবাই ছুঁতে চায় চাঁদকে। আমি তোমাকে সেভাবে কাছে চাই যেভাবে কাছে চায় মরুভূমি বৃষ্টিকে। তোমাতে সেভাবে মিশে যেতে চাই যেভাবে চায়ে মিশে যায় চিনি। তোমাকে সেভাবে আপন করতে চাই যেন দুই … Continue reading “তোমাকে চাই”

কফি শপ

একদিন কফি শপে দেখা করো যে কথা কখনও বলা হয়নি তোমায় যে কথা দু ঠোঁটের মাঝে চাপা পড়ে আছে সব দু চোখ দিয়ে বলবো। তুমিও চোখ দিয়ে শুনবে। যে ফুলের গন্ধে মাতোয়ারা দুনিয়া তার চেয়েও বেশি সুগন্ধি মেখে কেন তুমি দরজায় দাও আওয়াজ? কেন তুমি তোমার রূপ লাবণ্যের বাহার দিয়ে ঘায়েল করো আমার শরীর মন? … Continue reading “কফি শপ”

লিমেরিক

লিমেরিক

(১) অবসরে পড়লে মনে, আমায় একবার ফোন দিও আমায় যদি ভালো লাগে, ভালো লাগায় মন দিও শীত ভোরের কুয়াশা মনের সব স্বপ্ন-আশা তোমায় পাওয়ার অংক কষি, মনের ভেতর ফন্দিও। (২) মিষ্টি হেসে আসলে কাছে, আমার প্রেমের শহরে বিকালবেলায় সূয্যি ডোবে, তিন ঘণ্টার প্রহরে বাড়তি যত বায়না ভাঙা নতুন আয়না বৃষ্টিও আজ নামছে দূরে, ঝমঝমিয়ে অঝোরে। … Continue reading “লিমেরিক”

তার খুব দরকার

তার খুব দরকার

যার কারণে লেখালিখির হাতে খড়ি লাগাম ছাড়া আমার ভালোবাসার ঘুড়ি যাকে পাওয়ার জন্য নিজের সাথে লড়ি সে যেন আকাশ থেকে নেমে আসা পরী তার খুব দরকার। যার কারণে আকাশ হয়েছে রক্তিম নীল যার শরীর জুড়ে খুঁজে বেড়াতে চাই তিল যার সাথে আমার মনের অনেক মিল যার জন্য ডানামেলে হয়েছি উড়ন্ত চিল তার খুব দরকার। যার … Continue reading “তার খুব দরকার”

ভালোবাসার নদী

ভালোবাসার নদী

আমার ভালোবাসা গাল বেয়ে গড়িয়ে পড়ে- তৈরি হোক নদী। যেমন ঝর্ণা থেকে নদী হয়। সেই নদী হবে ভালোবাসার নদী। তোমার বাড়ির উঠোনের সামনে দিয়ে বয়ে চলবে। সারাদিনের কাজের ফাঁকে যতবারই তোমার চোখ জানলা গলিয়ে দূরে দিগন্তে যাবে ভালোবাসার নদী কাছে টানবে তোমায়। রোজ বিকেলে পায়চারি করতে যাবে নদী তীরে আমাকে নিয়ে লেখা কবিতাগুলো আবৃত্তি করবে … Continue reading “ভালোবাসার নদী”

ভালোবাসি তোমাকে

ভালোবাসি তোমাকে

কিছু স্বপ্ন মনের ভেতর গুমোট বেঁধে আছে – শহর থেকে একটু দূরের সেই নদীটার পারে দাঁড়িয়ে তোমার দিকে অপলক দৃষ্টিতে চেয়ে থাকবো। নৌকা দিয়ে নদীর ওই পারে যাওয়ার সময় যখন নৌকার দুলুনিতে তুমি ভয় পাবে, তখন- তোমার হাতটা ধরে বলবো ‘ভালোবাসি তোমাকে।’ বাড়ির উঠোনে একটা লাল গোলাপের গাছ লাগাবো রোজ জল দিয়ে, সার দিয়ে অপেক্ষা … Continue reading “ভালোবাসি তোমাকে”

নতুন ভোর

নতুন ভোর

আজ আকাশ মিশে যাক জমিনে ধুলো ধুসরিত হোক আমার সব কামনা, ফুলের গন্ধে এলার্জি হোক ভেঙে চুরমার হোক মনের আশিয়ানা। আজ সমুদ্রও পিপাসিত হোক বৃষ্টি পড়ুক অন্য শহরে, বিষ হোক আরোগ্যর ওষুধ দমকল ভিড় জমাক বুকের ধারে। আজ গাছেরা অক্সিজেন গ্রহণ করুক হঠাৎ থেমে যাক নদীর জল, পাহাড় আজ নতজানু হয়ে যাক দলছুট পাখিরা খুঁজে … Continue reading “নতুন ভোর”

এত দেরি করলে ?

আমার স্বপ্নে রোজ একটা মেয়ে আসে মধ্য রাতে স্বপ্নে এসে ঘুম ভাঙিয়ে দেয় তারপর বাকি রাত শুধু তার কথা ভেবেই কাটে। লাল শাড়ি পরা মেয়ে, বউয়ের সাজে দাঁড়িয়ে থাকে খুব পরিচিত মনে হয়, কিন্তু চিনতে পারি না তার চোখে অদ্ভুত চাহনি। কাজল, লিপিস্টিক, টিপ, গহনা সব কিছু দিয়ে সুন্দর করে সেজেছে। আমাকে দেখেই মুচকি হাসে … Continue reading “এত দেরি করলে ?”