জাহাঙ্গীর আলম অপূর্ব-এর ব্লগ

জাহাঙ্গীর আলম অপূর্ব সিরাজগঞ্জ জেলার রায়গঞ্জ উপজেলার নলছিয়া নামক গ্রামে ১০ ই জুন ২০০১ সালে জন্ম গ্রহণ করেন।
তার লেখা গুলো বাস্তব ধর্মীয়। লেখা তার নেশা।
সবচেয়ে বেশি ভালো লাগে কবিতা লিখতে।

ঠাঁই
আমার মাথা গোঁজানো ঠাঁই নেই,
থাকতাম ঐ পথের ধারে দাঁড়িয়ে থাকা
শিমুল গাছের নিচে বসে।
জন্মের পর আমার কাছে কেউ নেই
আমার সব তো ছিল ঐ শিমুল গাছ খানি
হঠাৎ এক ঝড় এসে আমার মাথা গোঁজানোর ঠাঁই
টুকুও অনায়াসে কেড়ে আমার ঠাঁই টুকু।
জীবনের পড়ুন
কবিতা | ৪ টি মন্তব্য | ৫৯ বার দেখা | ৯৬ শব্দ
অপূর্ণ জীবনের প্রহরগুলো
আমি তোমাকে যে ভালোবাসা দিয়েছিলাম
তা আমাকে ফিরিয়ে দাও।
তুমি আমাকে প্রতিশ্রুতি দিয়েছিল
সুখে দুঃখে থাকবে পাশে পাশে
ছলনা করে ছেড়ে গেলে তুমি
বিরহ অনলে পুড়ছি আমি
আমাকে ফিরিয়ে দাও,
আমার ভালোবাসা। যে ভালোবাসা ছিল আমার হৃদয়ে সুপ্ত
তা কেন করলে পড়ুন
কবিতা | ৪ টি মন্তব্য | ৬৫ বার দেখা | ৩৭০ শব্দ
রাজাকারদের তান্ডব
আকাশ সাক্ষী, বাতাস সাক্ষী
সাক্ষী এই গ্রাম বাংলার মেঠোপথ,
পাকদের সাথে নিয়ে রাজাকারেরা গ্রামের সব সম্পদ লুন্ঠন করেছে যে রথ রথ। বাধা দিয়েছে মা বাবা, দিয়েছে বাধা তার সন্তান,
তাদের মেরে পাক আর রাজাকারেরা গ্রামকে করেছে গোরস্থান। এত অত্যাচারে ফুল ফুটে না,
পাখি তার মনের আকিঞ্চনে গায় না,
নদী ও তার পড়ুন
কবিতা | ১টি মন্তব্য | ৫৯ বার দেখা | ১৪৩ শব্দ
মাতৃস্নেহ
মাতৃস্নেহের কি তুলনা আছে?
সেই স্নেহকে মিথ্যা প্রমাণ করার জন্য
নিন্দুক ঘোরে মায়ের পাছে পাছে। ওরে নিন্দুক একটু এগিয়ে এসে শোন
যদি মাতৃস্নেহ মিথ্যা প্রমাণ করতে পারস
স্বপ্নভরা পৃথিবী দেব আরো দেব রাজকুমারী বোন। এই পৃথিবীর পড়ুন
কবিতা | ৫ টি মন্তব্য | ১৯৩ বার দেখা | ১৭২ শব্দ
ভাষার জন্য
ভাষার জন্য
বাংলা আমার মায়ের ভাষা
জনম থেকে জানি,
সেই ভাষাতে হাত দিল ওরা
হায়েনা পাকিস্তানী। বাংলা মায়ের দামাল ছেলে
ভয় করেনি কভু,
হাসতে হাসতে ভাষার জন্য
জীবন দিলেন তবু। সংশপ্তক ছিলেন তারা পড়ুন
কবিতা | ৪ টি মন্তব্য | ৬৩ বার দেখা | ৮৩ শব্দ ১টি ছবি
বীরঙ্গনা
মাগো পুইয়ের মাচা পুরো খালি
তুমি চারা লাগাবে বলে,
আমি দুটো পুইয়ের চারা এনেছি
চারাগুলো আজ নুয়ে পড়ছে,
প্রখর রোদে।
মাগো তুমি কোথায়
তোমায় তো আমি সারাবেলা খুজলাম
তুমি তো কোথাও নেই,
মাগো তুমি কোথায়,
তোমায় না পেয়ে আমি বসে আছি,
হিজল অশ্বত্থ গাছের পড়ুন
কবিতা | ৪ টি মন্তব্য | ৬০ বার দেখা | ১৯৯ শব্দ
স্বাধীনতা চাই
আমরা বাংলার মানুষ
আমরা স্বাধীনতা চাই,
আমরা বাংলার নির্যাতিত নিপীড়িত কৃষক
আমরা আমাদের অধিকার চাই
স্বাধীনতা চাই, স্বাধীনতা।
আমরা বাংলার শ্রমিক জনতা
আমরা আমাদের স্বাধীনতা চাই,
স্বাধীনতা।
আমরা বাংলার মাসুম শিশু
আমরা স্বাধীতা চাই।
সমাবিষ্ট বাংলার মানুষের আজ একটাই চাওয়া
স্বাধীনতা,স্বাধীনতা।
শুধু স্বাধীনতা নেই বলে সমগ্র পড়ুন
কবিতা | ৬ টি মন্তব্য | ৭৩ বার দেখা | ১৪৪ শব্দ
কে তুমি?
দৃপ্ত পায়ে যাচ্ছো কোথায়
একটু দাঁড়াও ভাই,
কে তুমি?
কথাটির জবাব দিয়ে যাও।
শোন তাহলে –
কে আমি
শুদ্ধ আমি, শান্ত আমি
ভ্রান্ত আমি নয়। বেলি আমি, টগর আমি
ফুুলের রাণী নয়। পদ্মা আমি, মেঘনা আমি
গঙ্গা আমি নয়। তাঁরা আমি, জোনাকি আমি
আঁধার আমি পড়ুন
কবিতা | ৮ টি মন্তব্য | ৮৩ বার দেখা | ৮২ শব্দ
রক্তে ভেজা একুশ
রক্তে ভেজা একুশ
একুশের রক্ত লেগে আছে
বাংলার পলাশ আর কৃষ্ণচূড়ায়,
লেগে আছে রাজপথে
আরো লেগে আছে দুঃখী মায়ের হৃদয়ে
একুশের আগমনে মনে জাগে সেই দিনের কথা
যে দিন আমার ভাইয়ের উপর পাকরা করছে
কত পাশবিক পৈশাচিকভাবে নির্যাতন
আজও মায়ের বুক কাঁদে পড়ুন
কবিতা | ৬ টি মন্তব্য | ১১৪ বার দেখা | ১২১ শব্দ ১টি ছবি
সুখ দুঃখ
ভালোবাসা পাপ নয়
কেন, ভুল জেনে রেখে ভালোবাসা,
স্বর্গের ফুল ভালোবাসা
ধনী দরিদ্র সবাই তো সমান
ভালোবাসা তো বিধাতার দান। ঘৃণা আছে বলেই তো ভালোবাসা আছে
সুখ আছে বলেই তো দুঃখ আছে,
অন্ধকার আছে বলেই তো আলো আছে
দরিদ্র আছে বলেই তো ধনী আছে, পড়ুন
কবিতা | ৪ টি মন্তব্য | ৪৫২ বার দেখা | ১০২ শব্দ
নদী নক্ষত্রের দেশে
মাতাপিতার সুদীর্ঘ পরিকল্পনার পর
এই নদী নক্ষত্র দেশে এসেছি আমি
অজস্র নদীর ভীড়ে আমার জীবনের
সোনালী স্বপ্ন গুলো হারিয়ে গেছে
খুঁজে পায় না সেই স্বপ্ন গুলোকে
নক্ষত্রের বর্ণিল আলোর জন্য। জীবন তো নদীর ঢেউয়ের মতো দোল খায়
নক্ষত্রের আলোর কাছে জীবন,
আবার ঘুরে দাঁড়ানোর শক্তি পায়,
জীবন মান পড়ুন
কবিতা, ছড়া ও পদ্য | ২ টি মন্তব্য | ৪০৩ বার দেখা | ৮৭ শব্দ
অমরত্বের আশা
ছোট্টা ছোট্টা শব্দে
বসে আছি আমি
অব্দের পর অব্দে,
একাকি অমরত্বের লাভের সন্ধানে
কেমনে আমি আমার
নামকে ধরার বুকে করব অক্ষয়
শুধু আমার জীবনে
সবচেয়ে বড় প্রত্যাশা
লিখব কীর্তিমানের সারিতে
আমার নাম খানি। নেই আমার মনে সুখ
শুধু আমার চিন্তা,
কীভাবে রচিতে পারি
অমর পড়ুন
ছড়া ও পদ্য | ৩ টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ৪১২ বার দেখা | ৯৯ শব্দ
মন ভালো না
ছোট্টা ছোট্টা ছন্দে
মনের আনন্দে
গেয়ে যায় জীবনের
অন্তিম পর্বের নিরবতা গান,
অন্তিম পর্বের কথা শুনলে
আমার মনে শিহরণ জাগে
ধরাকে ছেড়ে যাওয়ার
অজস্র কষ্ট আমার প্রাণে। বর্ণিল স্বপ্ন দিয়ে সাজানো
হয়েছে গেছে আমার জীবন
বিচরণের মাঝখানে দাঁড়িয়ে
যাবে শুধু মৃত্যুর পড়ুন
কবিতা, ছড়া ও পদ্য | ৬ টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ৩২২ বার দেখা | ৮০ শব্দ
অমরত্ব
ছোট্টো ছোট্টো ছন্দে
মনের আনন্দে
গেয়ে যায় মানব জীবনের
অমরত্বের লাভের গান,
যে মানব গুলো
কিছুই করে নাই
তাদের জীবন
পৃথিবীতে থেকে ম্লান। মানব মন থেকে গেছে
সেই জীবন হারিয়ে
কখনো কেউ নেই
তা মনে করবার,
অন্ধকারের মতোন
সেই জীবন গুলো
ডেকে আছে ধামাচাপায়
বিদীর্ণ পড়ুন
ছড়া ও পদ্য | ৮ টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ৪৪৩ বার দেখা | ৭৬ শব্দ
আমি দূর্বার
আমি দুর্বার, আমি দুর্বার
আমি সব অন্যায় অবিচার ভেঙে করি চুরমার। আমি মানি তো না কারো কালো আইন
যদি আমার সামনে থাকে ভয়ানক মাইন। আমি তো শূচি শুদ্ধ পাখি চাতক
আমায় বলতে পারে না কেউ ঘাতক। আমি তো অশনি সংকেতের ঝংকার ধ্বনি নয়
করি পড়ুন
কবিতা | ২ টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ১২৭ বার দেখা | ৫০ শব্দ