জাহাঙ্গীর আলম অপূর্ব-এর ব্লগ

জাহাঙ্গীর আলম অপূর্ব সিরাজগঞ্জ জেলার রায়গঞ্জ উপজেলার নলছিয়া নামক গ্রামে ১০ ই জুন ২০০১ সালে জন্ম গ্রহণ করেন।
তার লেখা গুলো বাস্তব ধর্মীয়। লেখা তার নেশা।
সবচেয়ে বেশি ভালো লাগে কবিতা লিখতে।

* চরম মুর্খ সেই যে শিক্ষা অর্জন করে নিজের মাতৃভাষা শুদ্ধ ভাবে বলতে পারে না ।
* আমার কাছে আনুষ্ঠানিক শিক্ষা পদ্ধতি থেকে অনানুষ্ঠানিক শিক্ষা পদ্ধতি শ্রেষ্ঠ।

মুক্ত জীবন
৪৪/৪১ স্বরবৃত্ত ছন্দ বিদায় নিচ্ছে অতিমারী
হাসছে বসে সব,
প্রাণে লাগছে সুখের ছোঁয়া
শুধু কলরব। দীর্ঘদিনের প্রতীক্ষার ওই
এবার হচ্ছে শেষ,
মুক্তভাবে ঘুরবো তবে
এই না সুখের দেশ। সবার সাথে আগের মতো
হবে চলাচল,
মুক্ত জীবন সুখে থাকা
মনে দৃঢ়বল। চিন্তা ভাবনা গুলো আজই
দুর হবে সব ভাই,
সুখের সাথে করমর্দন ওই
সুখটাকে তো চাই। মনের ভিতর এলোমেলো
চিন্তা না তো রয়,
সুখের পড়ুন
কবিতা, ছড়া ও পদ্য | ১টি মন্তব্য | ১৮ বার দেখা | ৪৯ শব্দ
রংধনু
৪৪/৪২ রংধনুর ওই সাতটি রঙে
আকাশ সাজে তবে,
বৃষ্টির শেষে আকাশ থেকে
নেমে আসে ভবে। সূর্যের অপর দিক রংধনু
ঝকঝক করে ওঠে,
তাই না দেখার জন্য সবাই
দলে দলে ছোটে। প্রতিফলন প্রতিসরণ
রংধনুর সাত রঙে,
ধনুকের ন্যায় দেখায় তারে
বাহারি ওই ঢঙে। রচনাকালঃ
০৪/১১/২০২১ পড়ুন
কবিতা, ছড়া ও পদ্য | ৪ টি মন্তব্য | ৪০ বার দেখা | ৩০ শব্দ
চাঁদের আলো
৪৪/৪২ রাত্রিবেলায় চাঁদের আলো
ভীষণ লাগে ভালো,
চারিদিকটা অন্ধকারে
দেখায় শুধু কালো। ছেলেবেলায় চাঁদের আলোয়
খেলা করতাম কত,
একটি জোনাক ধরার জন্য
পিছু ছুটতাম শত। পুকুর জলে চাঁদের আলো
ঝিকিমিকি করে,
তার উপরে জোনাক পোকা
আলোর পথটা ধরে। চাঁদের আলো ধরার বুকে
থাকে কিছু সময় ,
সন্ধ্যা বেলায় ঝিঁঝি পোকার
গানে ভরা মৃন্ময়। চাঁদের পড়ুন
কবিতা, ছড়া ও পদ্য | ৬ টি মন্তব্য | ৪৯ বার দেখা | ৫৮ শব্দ
লক্ষ্মীছাড়া জীবন
৪৪/৪১ লক্ষ্মীছাড়া জীবন আমার
পাই না সুখের কুল,
তার-ই জন্য জীবন নদে
করি শুধু ভুল। ভুলে ভুলে আমার জীবন
একেবারে শেষ,
সুখ নাই তবে আমার প্রাণে
আছি দুখের দেশ। সুখ দুঃখ তো প্রভুর হাতে
সুখ মেলা তো ভার,
সুখের জন্য জীবন শূন্য
সুখ যে তবে কার। সুখ সুখ করি জগৎ মাঝে পড়ুন
কবিতা, ছড়া ও পদ্য | ৪ টি মন্তব্য | ৪০ বার দেখা | ৬৯ শব্দ
পাখির গানে মুগ্ধ
৪৪/৪২ ভরা যখন বন বনানী
পাখির কলতানে,
মনটা জুড়ায় খুকুর তখন
আনন্দ হয় প্রাণে। ডালে ডালে পাখি বসে
দেখে জুড়ায় আঁখি,
তাই না দেখে খুকু বলে
আনন্দ কই রাখি। টিয়া ময়না কোকিল ঘুঘু
আরো পাখি কত,
তাদের সাথে গল্প করতে
খুকুর ইচ্ছে শত। কিচিরমিচির শব্দ গুলো
মধুর লাগে কানে,
কাটবে সময় খুকুমণির
পাখির সাথে গানে। খুকুমণির ইচ্ছে করে
পাখির মতো গাবে,
তারই জন্য পড়ুন
কবিতা, ছড়া ও পদ্য | ২ টি মন্তব্য | ৪৫ বার দেখা | ৪৮ শব্দ
প্রেমের আগুন
৪৪/৪২ মেতে আছো নতুন প্রেমে
নতুন জনকে পেয়ে,
তোমার আশা আজও আমি
থাকি পথটা চেয়ে। ইচ্ছে খুশি শাস্তি দিতে
নিতাম মাথা পেতে,
সুখে আছো এখন তুমি
অন্যের প্রেমে মেতে। তোমার জন্য বুকে আমার
আগুন জ্বলে তবে,
ধোঁকা দিয়ে চলে গেলে
তুমি সেই যে কবে। আমার মনটা তোমার জন্য
কাঁদে প্রতি ক্ষণে,
আজও প্রিয়া আছো তুমি
আমার প্রাণে মনে। তুমি আমার জীবন পড়ুন
কবিতা, ছড়া ও পদ্য | ৩ টি মন্তব্য | ৬০ বার দেখা | ৬২ শব্দ
মানবতা
৪৪/৪২ স্বরবৃত্ত ছন্দ মানব মনের মানবতা
গেছে তো ভাই খোয়া,
তারই জন্য জীবন নদে
নাই রে সুখের ছোঁয়া। মানব মনের সুখ শান্তি তো
মানবতার তরে,
মানবতা বিহীন জীবন
ধুঁকে ধুঁকে মরে। মানব জীবন মানবতা
এক সূত্রে ওই গাঁথা,
মানবতা শূন্য জীবন
শুষ্ক গাছের পাতা। লক্ষ কোটি টাকা দিয়ে
যাই না কেনা তবে,
মানবতা অমূল্য ধন
নিখিল এই না ভবে। রচনাকালঃ
২২/০৯/২০২১ পড়ুন
কবিতা, ছড়া ও পদ্য | ৪ টি মন্তব্য | ৬১ বার দেখা | ৪৩ শব্দ
কষ্ট
৪৪/৪২ স্বরবৃত্ত ছন্দ বন্ধু তোমার কথা শুনে
কষ্ট পেলাম মনে,
কেন তুমি এ বোল করলে
ভাবি ক্ষণে ক্ষণে। সব মানুষের সব প্রতিভা
থাকে না তো কভু,
আমি তো ভাই কাব্য লিখি
সময় নিয়ে তবু। নিন্দা করা নিন্দুকের কাজ
আমার কাজ নয় তবে,
মন খুশিতে নিন্দা করো
বসে নিখিল ভবে। কাজী নজরুল রবীন্দ্রনাথ পড়ুন
কবিতা, ছড়া ও পদ্য | ২ টি মন্তব্য | ৪৫ বার দেখা | ৯৯ শব্দ
ডাহুক পাখি
ডাহুক পাখি
৪৪/৪২ জলের পাখি ডাহুক তুমি
কোয়াক কোয়াক ডাকো,
পাশের ঘরে খোকা ঘুমায়
চুপটি করে থাকো। প্রেম বিরহে ডাহুক তুমি
থাকো বিভোর তবে,
তোমার মতো পড়ুন
কবিতা, ছড়া ও পদ্য | ২ টি মন্তব্য | ৪৫ বার দেখা | ৭৪ শব্দ ৩টি ছবি
স্রষ্টা খেল
৮৬ অক্ষরবৃত্ত ছন্দ প্রভু কেমনে সৃজিলা ধরাতে মানুষ
অক্ষমতার অনলে পোড়ে নাই হুঁশ।
ধরা বুকে মানুষের শ্রেষ্ঠতম স্থান
শ্রেষ্ঠ করে অক্ষমতা দিলে দয়াবান। তোমার খেলা হে প্রভু বোঝা বড় দায়
জরাজীর্ণ ক্লিষ্ট তবে কেন পিছু ধায়।
শ্রেষ্ঠত্বের পদে এসে সহে দুখ তবু
কেন জানি এরূপ যে ভাবি ক্ষণে কভু। সৃজিলা পড়ুন
কবিতা, ছড়া ও পদ্য | ২ টি মন্তব্য | ৪৯ বার দেখা | ১১৫ শব্দ
জোনাকি
৪৪/৪২ রাতেরবেলায় গগন জুড়ে
অজস্র তারা মেলা,
তার নিচেতে জোনাক পোকা
দেখায় আলোর খেলা। ঝোপের ঝড়ে সন্ধ্যা বেলা
জোনাক পোকার আলো,
তার আলোতে দূর হয়ে যায়
সব ধরনের কালো। জোনাক হলো আলো পাখি
সদা ঘুরে চলে,
সেথায় বসে হেথায় বসে
নানা খেলার ছলে। পুচ্ছে তাহার নীল আলোটা
সুন্দর লাগে তবে,
জোনাক শুধু আলোর জন্য পড়ুন
কবিতা, ছড়া ও পদ্য | ৪ টি মন্তব্য | ৫৯ বার দেখা | ৬০ শব্দ
প্রজাপতি
৪৪/৪৪ প্রজাপতির কোমল ডানা
উড়তে যে তার নাই কো মানা।
বিকেল বেলা নদীর তীরে
লুকোচুরি ঘাসের ভীড়ে। প্রজাপতি নানা ছলে
ছুটে চলে ফুলে ফলে।
মধু খেয়ে ধেয়ে আসে
দলের সাথে মিষ্টি হাসে। প্রজাপতির রূপটা ভালো
মাঝে মাঝে হলুদ কালো।
লার্ভা থেকে জন্ম তারই
কোথায় আছে তাদের বাড়ি। পরাগায়ন পরাগ রেনু
প্রজাপতির গুনগুন বেণু।
গানে গানে মুগ্ধ করে
মধুতে ওই মুখটি পড়ুন
কবিতা, ছড়া ও পদ্য | ৪ টি মন্তব্য | ৬০ বার দেখা | ৪৫ শব্দ
বিষাক্ত প্রেমিকা
১০৮ অক্ষরবৃত্ত ছন্দ তুমি ছিলে মোর মূল প্রেম তুমি ছিলে মোর শেষ
ইচ্ছে ছিলো তোমারে নিয়ে-ই জীবন কাটাবো বেশ।
মিথ্যা আশা ভালোবাসা বুকে কষ্টের বহতা নদী,
সুখে রবো তো ধরার বুকে পাশে থাকো তুমি যদি । মিথ্যা আশা দিয়া তবে তুমি করিলে ওই ছলনা
তোমা দেখে মনে পড়ুন
কবিতা, ছড়া ও পদ্য | ২ টি মন্তব্য | ৪৮ বার দেখা | ১৮৪ শব্দ
প্রভুর প্রেমে
৪৪/৪১ ডাকছে আমায় পরম প্রভু
আমার দেশে আয়,
সুখের উল্লাস আশার বাসর
তাহার পিছু ধায়। বহুদিনের আশা ছিলো
মিলবো তাহার সাথ,
তাহার পাশে বসে তবে
পারি দেবো রাত। ইচ্ছে আমার মনের কথা
বলবো তাহার সন,
তাতে আমার ভরে যাবে
বিষন্ন ওই মন। তাহার পাশে বসে বসে
গল্প করবো ভাই,
পরম প্রভু কাছে যেতে
মনটা শুধু চাই। প্রভুর দেশে পড়ুন
কবিতা, ছড়া ও পদ্য | ২ টি মন্তব্য | ৫৬ বার দেখা | ৫৫ শব্দ
শিক্ষার আলো
৪৪/৪২ নিত্যক্ষণে পড়তে বুড়ির
লাগে না তো ভালো,
পড়ার কথা বললে মায়ে
মুখটা হয় যে কালো। বুড়ির ইচ্ছে সারাবেলা
করতে চাই যে খেলা,
মন খুশিতে চড়বে বুড়ি
নদীর ওই না ভেলা। মায়ের কাছে বলে বুড়ি
কঠিন লাগে পড়া,
আজে বাজে কথা বলে
বলে নানা ছড়া। মায়ের ইচ্ছে খেলার ছলে
নেবে বুড়ি শিক্ষা,
নানা কাজে পড়ুন
কবিতা, ছড়া ও পদ্য | ২ টি মন্তব্য | ৫৪ বার দেখা | ৬২ শব্দ