নিশ্চুপ প্রভু

নিশ্চুপ প্রভু

ধর্ম তবে কিসের তরে ধর্ম যদি মানুষ মারে! ধর্ম এখন ব্যবসা ভাই অমুক ধরো, তমুক মারো, আমি বেঁচে যাই। ইমাম, ঠাকুর, ভিক্ষু, পাদ্রী ধর্মের বাণীতে পোড়ায় মানবতা, কিসের ধর্ম, কিসের বাণী যদি না থাকে সহমর্মিতা। কোন বাণীতে কোথায় আছে সাম্প্রদায়িকতা খুলে দেখাও কোরআন, বাইবেল, ত্রিপিটক, গীতা। আমি জানি, সবই জানি কিন্তু মানি না, এমন ধর্ম … Continue reading “নিশ্চুপ প্রভু”

নারী তোমারে সেলাম

নারী তোমারে সেলাম

নারী তুমি অহংকার সে-তো মা শাসনের ছলে ভালবাসার ঝংকার। নারী তুমি প্রচন্ড টান সে-তো বোন কখনো খেলার সাথী কখনো হাতেখড়ির দান। নারী তুমি অর্ধেক জীবন সে-তো সহধর্মিণী রস-কষে চলা আমরণ। নারী তুমি ইতিহাস তেরেসা,রোকেয়া এমনকি অজানা বহু নারী অনেক কিছু শেখার বাণী। নারী তুমি প্রেম গুপ্ত ভালবাসায় ভেসে গেলাম তোমারই আমার সেলাম।

আপন ভাবি

আপন ভাবি

আপন ভাবি আপন ভেবে পাশে চলি আপন আপন করে সব কথা বলি সীমারের মত তীর ছুঁড়ে আপন যাদের মানি। পথে পথে কতজনের দেখা কত-শত হিসেব কষে আপন হলো যারা মুখে মুখে আপন তাদের, অন্তরে বিষ ভরা আপন হতে পারে কয়জন স্বার্থ ছাড়া! আপন আপন করে আপন হতে গিয়ে উষ্ঠা খেলাম বারংবার আপন পায়ে, বহুপথ পাড়ি … Continue reading “আপন ভাবি”

তোমার দৃষ্টান্ত

তোমার দৃষ্টান্ত

তুমি গ্রীষ্মের তীব্র কিরণ তুমি হিমেল সমীরণ, তুমি চঞ্চলায় চমকানো রাত্রী তুমি শরতের শুক্ল অম্বুদের উঁকি। তুমি হিমাংশুর প্রভা তুমি আগ্নেয়গিরির লরুণ আভা, তুমি অচেনা পতত্রীর কিচিরমিচির তুমি নিশাবসানের একফোঁটা শিশির। তুমি মহীধ্রের নির্ঝর তুমি জোনাকি ভরা শর্বর, তুমি অবনীর এক প্রতীতি তুমি আমার নেত্র দৃষ্টি। সরিৎ যেমন অম্বুধির সাথে মিলত হয় আমিও তেমন তোমায় … Continue reading “তোমার দৃষ্টান্ত”

বাংলাদেশ

বাংলাদেশ

১. বাংলাদেশ তুমি দ্বিজাতি ভাঙন বাংলাদেশ তুমি ৫২’র ভাষা আন্দোলন বাংলাদেশ তুমি ৫৩’র শহীদ মিনার গঠন বাংলাদেশ তুমি ৫৪’র যুক্তফ্রন্ট নির্বাচন বাংলাদেশ তুমি ৫৮’র সামরিক শাসন বাংলাদেশ তুমি ৬২’র শিক্ষা আন্দোলন বাংলাদেশ তুমি ৬৬’র ছয়দফা অনশন বাংলাদেশ তুমি ৬৯’র গণঅভ্যুত্থান বাংলাদেশ তুমি ৭১’র পাক-হানাদের নির্যাতন বাংলাদেশ তুমি ৭ই মার্চের জ্বালাময়ী ভাষণ বাংলাদেশ তুমি ২৫ই মার্চের … Continue reading “বাংলাদেশ”

স্বাধীনতা তুমি কি

স্বাধীনতা তুমি কি

স্বাধীনতা তুমি কি কখনো হবে এই অদমে বিলীন নাকি উত্তপ্ত পিচঢালা পথ হবে রক্তে রক্তাক্ত রঙ্গীন, স্বাধীনতা তুমি কি কখনো নুয়ে পড়া লজ্জাবতী কাঁটা নাকি বালিকার আত্মচিৎকার বদ্ধঘর হবে নীলিমার নীল নীলাঞ্জনার ভাটা, স্বাধীনতা তুমি কি কখনো রবে কৃষকের মুখে হাসি নাকি উজানে পালিয়ে যাওয়া স্রোত হবে কালো কালান্তর কালিয়া রাশি, স্বাধীনতা তুমি কি কখনো … Continue reading “স্বাধীনতা তুমি কি”

বিদায় জানাবো

বিদায় জানাবো

একদিন সবাইকে বিদায় জানাবো, সে বিদায় হবে হয়তো অনিচ্ছাকৃত বিদায়, তবুও আমি জানাবো। যারা হেয় করে হাসে যারা হিংসার দৃষ্টিতে কলুষিত করে যারা ছোট করতে উঠে পড়ে লাগে, যারা অন্যের কাছে নিচু করতে ব্যস্ত থাকে, আমি তাদের খুশি করবো, খুব শীঘ্রই আমি তাদের জয়ী করবো। জীবন মরুভূমিতে হাঁটতে হাঁটতে খুব তৃষ্ণার্ত, সে তৃষ্ণা নিয়ে এক … Continue reading “বিদায় জানাবো”

আশার উঁকি

আশার উঁকি

হতাশার চাদরে স্বপ্ন তবুও সাজিয়ে বহুদূর চলতে চলতে হঠাৎ পথের মাঝে ধর্ষণ, ভাগ্য ছয় মাসের অন্তঃসত্ত্বা জারজ হয়ে চাহিদার জন্ম, এক একটি চাহিদা অট্টহাসির আঘাতে থেতলে গিয়ে পচন ধরেছে, মুমূর্ষু হয়তো এই পচন ক্যান্সারে কেমোথেরাপিতে ন্যাড়া হবে অথবা মৃত্যুপুরীতে শেষ তীর্থ। তবুও এক চিমটি আশার উঁকিতে মনের পরিত্যক্ত ভিটায় আবার স্বপ্নের আবাস, আরেকটু সময় মাঙছি … Continue reading “আশার উঁকি”

তাদের কি বলবো

উৎস্বর্গঃ জাতির জনক বঙ্গবন্ধুকে কাকে বলবো? পরিবার! সমাজ! রাষ্ট্র! চিন্তাধারা পরিবর্তনের কথা বলতে চাই তবে কাকে বলি? বলার মত তেমন কোনো মানুষ নাই। যে পিতা নিপীড়িত মানুষের মুক্তির মহানায়ক সাড়ে সাতকোটি মানুষের আস্থা যে পিতার একটি তর্জনীর হুংকারে ধর্মের ভেদাভেদ দ্বিখণ্ডিত হয়ে যে পিতা নিরীহ জাতির জন্যে জালিম শাসকের সাথে ছিলো আপোষহীন, সে তুমি পিতার … Continue reading “তাদের কি বলবো”

কষ্টের ফেরিওয়ালা

কষ্টের ফেরিওয়ালা

আমি উদাসীন আমি কষ্টপুরে থাকি আমি নিরবে কাঁদাই, কাঁদি কষ্ট নিয়ে চলি, কষ্ট ফেরি করি আমি কষ্টের ফেরিওয়ালা। স্বপ্ন দেখিছি সুখের শাসক হতে তাই সুখের রাজ্য খোঁজে সেইদিন রাজ্যপথে সবে যাত্রা একসাথে, দু’কদম পা ফেলতে না ফেলতে বিবেক ক্ষয়ে ইচ্ছার অজান্তে “ভুল” নামক যানবাহনে উঠে গেলাম দু’জনে, হঠাৎ উদাসীনতার প্রহসনে অগনতি ত্রুটির সৃষ্টিতে, থমকে দাঁড়ালাম … Continue reading “কষ্টের ফেরিওয়ালা”