এম. হুমায়ূন কবির-এর ব্লগ

কবিতা প্রেমি। কবিতা পড়তে এবং লিখতে ভালোলাগে। জন্ম:৩০জুন ১৯৮২, নাটোর জেলায় অন্তর্গত বড়াইগ্রাম উপজেলার খিদিরপুর গ্রামে।
পড়াশোনা: এস এস সি-নিশ্চিন্তপুর উচ্চ বিদ্যালয়,
এইচ এস সি & স্নাতক – বড়াই গ্রাম ডিগ্রী কলেজ,
নাটোর।
স্নাতকোত্তর-এডওয়ার্ড গভঃ কলেজ, পাবনা।
প্রকাশিত কাব্যগ্রন্থ পোড়া গোধূলি।

জোর করে ভালোবাসা পাওয়া যায় না
জোর করে যায় না পাওয়া ভালোবাসার মন
জোর করে যায় না হওয়া কারও আপন জন
তোমার মনের ঘরে হয়নি ঠাই
কষ্ট গুলো একা সয়ে যাই
ক্ষমো মোর অপরাধ
মিটবে না জানি সাধ
চলে গেলাম বহু দূরে
ডাকবো না আর সুরে সুরে!
সুখে থেকো পড়ুন
কবিতা | ৬ টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ৩৩৮ বার দেখা | ১১৩ শব্দ
বিরহ গীতিকা
ভুলের বনে ফুল ফুটাতে চেয়েছিলাম
ভুলের আঁধারে আমি হারিয়ে গেলাম।। ভুল করে ছিলাম আমি তোমায় ভালোবেসে
এখন আমার দিন রজনী কাটে কেঁদে কেঁদে।।
সুখের আশা করে আমি
দুঃখ শুধু পেলাম
ভুলের আঁধারে আমি হারিয়ে গেলাম। ভুলের বনে ফুল ফুটাতে চেয়েছিলাম
ভুলের আঁধারে আমি হারিয়ে গেলাম।। ভুল করে বালুচরে বেঁধে ছিলাম বাসা
অচেনা মরুর পড়ুন
কবিতা | ২ টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ১৫৬ বার দেখা | ৮৪ শব্দ
বর্তমান
একদিকে চেতনাবাজদের মিথ্যের ভেলা
অন্য দিকে ধর্মের নামে আবেগ নিয়ে খেলা
মানচিত্রের দখল নিতে করে কাড়াকাড়ি
তরুণ ছেলেটা রক্তাক্ত লাশ হয়ে ফিরে বাড়ি। লোনা জলের ঝর্ণা মিশে সাগরতলি
এতো জল চারিদিকে পিপাসার্ত নুড়ি
পুঁজিবাদের পাহারায় অস্ত্র হাতে পুলি
শ্রমিকের অধিকারের বুকে চলে গুলি। ভাত চাই কাপড় চাই রাজপথে পড়ুন
কবিতা | ৩ টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ১০৫৩ বার দেখা | ৬৬ শব্দ
তারাবির সালাত
তারাবিতে দেখে এলাম কোরআনের বুলবুল
তেলাওয়াতের সুরে সুরে মন করে আকুল
হৃদয় ছুঁয়ে যায় করুণ আর্তনাদ
প্রভুর কাছে পানাহ চেয়ে করি ফরিয়াদ। বুক কাঁপে ভয়ে প্রভু যবে জানতে চান
ফাবিআইয়ি আ-লাই রাব্বিকুমা তুকাযযিবান
জলে ছলছল আঁখি নীড় বুকে ব্যথাভার
ধ্যানে মগ্ন তারাবির সালাতে দাড়িয়ে আবার
কান পেতে পড়ুন
কবিতা | ৪ টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ২৪২ বার দেখা | ৮৭ শব্দ
একটা মিছিল হবে
একটা মিছিল হবে রাজপথে আবার
দাবি নিয়ে মানুষের অধিকার
ভাতের অধিকার ;কথা বলার অধিকার
নিরাপদে চলার,বেঁচে থাকার অধিকার। একটা  মিছিল হবে রাজপথে আবার
যে মিছিলের অগ্রভাগে থাকবে
সালাম বরকত রফিক জব্বার
একটা  মিছিল হবে রাজপথে আবার। এ মিছিল নয় কোন ব্যক্তিস্বার্থের পয়গাম 
এ মিছিল মানুষের অধিকারের সংগ্রাম। পড়ুন
কবিতা | ৪ টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ৫৪৬ বার দেখা | ১১৪ শব্দ
ফাগুনের দুপুর
ফাগুনের আগুনে উদাস দুপুর
মেঘের ফাঁকে সোনালী রোদ্দুর
বাসন্তী শাড়ীতে সেজেছে আমের মুকুল
ঝরা পাতার বেদনা মুছে ফুটেছে ফুল।
নির্জন উপত্যকায় সখি আর সখা
একদিকে পাহাড় সবুজে ঘেরা
অন্য দিকে নীল সরোবর বয়ে চলে
দূরে দিগন্ত ছুঁয়ে আকাশ গেছে মিলে।
সরস্বতীর বন্দনায় সেজেছ রঙ্গিন সাজ
প্রনয়ের অনলে পুড়ে পড়ুন
কবিতা | ৫ টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ২০১ বার দেখা | ৬৬ শব্দ
ধূসর গোধূলি
ভুলের বনে ফুল ফুটাতে চেয়েছিলাম
ভুলের আঁধারে আমি হারিয়ে গেলাম
ভুল করে ছিলাম আমি তোমায় ভালোবেসে
এখন আমার দিন রজনী কাটে কেঁদে কেঁদে।
বুকের জমানো ব্যথা গুমরে কাঁদে
আঁখি জলে ভেসে যায় ঝর্ণা হয়ে।
ভুলের বালুচরে বেঁধে ছিলাম বাসা
অচেনা মরুর ঝড়ে ভেঙ্গে দিল আশা
কেন যে এমন হলো কেউ জানে পড়ুন
কবিতা | ৮ টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ১৪৩৫ বার দেখা | ৭৯ শব্দ
অনুভবে তুমি
তুমি সূর্যোদয়ের ভোরের আলো
তোমায় বড্ডবেশি বাসিভালো
ঘাসের ডগায় শিশিরের স্নানে
স্নিগ্ধ গোলাপ তুমি ভেজা কেশে।
তোমার চোখে স্বপ্ন এঁকে শুরু হয় দিন
কল্পলোকে ভাসাই সাম্পান কূল হীন
কেটে যায় বেলা নিঃসঙ্গ দুপুর
বিকেলটা থাকে বেদনায় ভরপুর।
দূর দিগন্তে অন্ধকার নিয়ে আসে সন্ধ্যা
তুমি হীনা পড়ুন
কবিতা | ৫ টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ১৪৮ বার দেখা | ৭৮ শব্দ
বেশ তো আছি
বেশ তো আছি নিজেকে নিয়ে
একাকিত্বের মাঝে খুঁজে পাই নিঃসঙ্গ আকাশ
বেদনায় কেটেছে কত রাত
একা শুধু একা!
চাঁদ একাই ঘুরে পৃথিবী ঘিরে
এইতো মাটির প্রতি ভালোবাসার টান।
বৃষ্টির সাথে দোসর হয়ে কাঁদি একা
কাউকে কান্নার দোসর বানাইনি।
অশ্বত্থ গাছটি একাই দাড়িয়ে আছে
অবজ্ঞা অবহেলার শতবর্ষ পিছে ফেলে
অশ্বত্থের পড়ুন
কবিতা | ১০ টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ১০০৪ বার দেখা | ৯০ শব্দ
দেখা হবে দু'জনায়?
অজান্তে উঁকি দিয়ে যায় কত কথা
স্মৃতিরা মেলে মায়াবী পাখনা
যে কথাটি মনে রেখেছি জমিয়ে
শুনবে কি তুমি নিশীথে গোপনে?
হৃদয়ের ভাঁজে ভাঁজে লিখেছি কবিতা
নয়নের জলরঙে তোমার ছবি আঁকা
নীল ময়ূরীর পেখন মেলা নৃত্য খেলা
দুলবো দু’জন অরন্যের ঝুলনা।
মিলবো দুজন বাধভাঙ্গা মোহনায়
যেখানে পড়ুন
কবিতা | ৭ টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ১৯০ বার দেখা | ৮৩ শব্দ
অনিবার প্রেম
(বাংলা সনেট) যে ডালে ঘুঘুর বাসা সে ডালেই সাপ
যে নিগমে লীলা নৃত্য সে পথেই পাপ
যতনে গাঁথা কুসুম হার হলো বাসি
যারে পরিলে গলে এতটা ভালোবাসি।
কত জন হলো সাথী জীবনের পথে
বিদায় বেলায় কেউ রইল না সাথে!
জমালে কতধন করে পুকুর চুরি
কাফনের পড়ুন
কবিতা | ৪ টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ১৯২ বার দেখা | ৮১ শব্দ
কালার বাঁশি
(বাংলা সনেট)
গগনেতে সন্ধ্যাতারা মিটিমিটি জ্বলে
ওপারে মেঘের ভেলা পাল তুলে চলে
দিগন্ত ছুঁয়ে যায় হেমন্তের শিশির
আকাশ জুড়ে কতই রঙের আবীর।
আধফালি চাঁদ যেন হেসে কুটি কুটি
বাগিচার গন্ধপুষ্প সুবাসিত ফুটি
নিশিজাগা পাখিরা গাইছে সুরে সুরে
হরিল হিয়া, বাজিল কার বাঁশি দূরে? বসে কালা বৃন্দাবনে পড়ুন
কবিতা | ৪ টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ১১৫০ বার দেখা | ৭৫ শব্দ
অব্যক্ত কাব্য
বুকটা যেন বাক্যের কারাগার
কত কথা বন্দী হেথা
হয়নি বলা সে ব্যথা
বয়ে চলছে কষ্টের পারাবার।
আঁখি তুলে দেখলে না
মনের ভাষা বুঝলে না
বিষ বৃক্ষের মত সয়ে গেলাম
আশার দুয়ারে কিছু না পেলাম!
শ্রাবণের আকাশ দুটি আঁখি
জেগে কাটায় প্রতীক্ষার রাতি
পাহাড়ের কান্না ঝর্ণা হয়ে বয়
সাগরের মোহনায় মিশে রয়।
আগ্নেয়গিরি পড়ুন
কবিতা | ৬ টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ১০৪০ বার দেখা | ৬১ শব্দ
পাপের পতন
যুগে যুগে কত শিমার খেলেছে রক্ত হলি
ক্ষমতার জোরে কতজনকে দিয়েছে বলি!
ভয়-ভীতি, আতংক ছড়িয়ে হয়েছে বর্বর;
নিজেকে ভেবেছে মহাশক্তিধর আকবর। পাপের ধনে গড়েছে মহল
শূন্য গৃহ  সময়ের অতল
নিপিড়ীত হৃদয়ের আর্তক্রন্দন
কেঁদেছে আকাশ কেঁদেছে পবন।
সময়ের হাওয়া বদলে যায়
অত্যাচারী হলো অসহায়
পাপের পতন হয়রে নিশ্চয়
যুগে যুগে হয়েছে পূণ্যের জয়।
অট্টহাসি পড়ুন
কবিতা | ৩ টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ১২৩৭ বার দেখা | ৫৯ শব্দ
অভিসার
ধূসর বিকেলে ধুলিমাখা মেঠোপথে
হাত ধরে হারিয়ে যাবো দূরে
অজানা কোনো গায়ে যাবো দু'জনে
পাখিরা হারায় যেমন নীল গগনে। কত রাত আমি নির্ঘুম জেগেছি
আঁখি জলে তোমার ছবি এঁকেছি!
শয়নে ভেবেছি স্বপনে পেয়েছি
নিশীথের জাগরণে তোমায় হারিয়েছি। হৃদয়ের ভাঁজে ভাঁজে লিখেছি কবিতা
নয়নের জলরঙে তোমার ছবি আঁকা
নীল ময়ূরীর পেখম মেলা নৃত্য খেলা
দুলবো দু’জন অরন্যের পড়ুন
কবিতা | ৬ টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ১১০১ বার দেখা | ৬০ শব্দ