দাউদুল ইসলাম-এর ব্লগ

সব সময় নিজেকে বলি-
মানুষ হবি যদি-
অন্ধকার ঘরে যখন একা থাকবি তখন নিজেকে জিজ্ঞেস করে নিস তুই কতটা মানুষ।
কতটা তোর সভ্যতা
কতটা তোর ভদ্রতা!
স্নান ঘরে যখন একা শাওয়ারের নিচে দাঁড়াস-
তখন নিজেকে জিজ্ঞেস করিস কত টা আছে তোর মনুষত্বের রুচি!
জিজ্ঞেস করিস কতটা তুই ভদ্র, সভ্য!

দেবী ও কবি
দেবী ও কবি
নিঃশ্বাসের উত্তাপে হৃদয় বিগলিত উম্মুল সন্তাপ
আদিম হিংস্রতায় বাস্তবতার প্রজ্বলিত রক্ত চক্ষু
জীবনের সিথানে জাত বিজাতের বুভুক্ষু হীনন্মন্যতা ;
প্রাণের নিগৃহীত অণুজীব কষ্ট ক্লেদ মেখে ফিরে আসে
আড়ালের নিন্দুক বার বার হেসে উঠে কটাক্ষে,
মানুষের জগতে মানুষের ভালোবাসা বড় অসহায়! ফুট ফুটে আলোর ধারায় ফেরে পড়ুন
কবিতা | | ২ টি মন্তব্য | ৭২ বার দেখা | ১০২ শব্দ ১টি ছবি
অলীক স্বান্তনা
অলীক স্বান্তনা
প্রগাঢ় ক্লেদাক্ত রাত ভুগে
প্রবেশ করি আরেকটি গ্লানি ভার রাতে
দীর্ঘশ্বাসে চাপা নিগূঢ় অন্ধকারে
উন্মুক্ত করি নিরবতার গিঁট কান্না পেঁচানো কণ্ঠে!
বাতাসের হু হু শব্দের সাথে বৃক্ষের স্পন্দিত আত্মা
একাত্মতা ঘোষণা করে
আমাকে থামাতে চায়, অলীক সান্ত্বনায় পড়ুন
কবিতা | ১টি মন্তব্য | ৩৫ বার দেখা | ৩৪ শব্দ ১টি ছবি
অক্ষত নেই কিছু
অক্ষত নেই কিছু
অক্ষত নেই কিছু
অক্ষত থাকেনা, থাকতে পারেনা। বেড়ে চলছে মাথা পিছু ঋণের বোঝা
আনুপাতিক হারে বাড়ছে ক্ষত, যন্ত্রণা! ধুলোর কাছে বৃক্ষের ঋণ!
ক্ষত ঢাকতে
বৃক্ষের কাছে ছায়ার ঋণ, শিশিরের কাছে ঘাসফুল, মেঘের কাছে বৃষ্টির ঋণ!
ক্লেদ ঝরাতে-
বোঝা পড়ার দিন আসে না- কখনো সীমাহীন আনন্দ, কখনো পড়ুন
কবিতা | | ৩ টি মন্তব্য | ৭৪৭ বার দেখা | ১৭৮ শব্দ ১টি ছবি
লালসা নয়
লালসা নয়
চুম্বনের অধিকার পাইনি বলে ভালোবাসা নিষ্ক্রিয় নয়
অবজ্ঞার মুখোমুখি দাঁড়িয়ে প্রতিমার নিটোল চোখে
ঢেলে দিই সমগ্র বিনয়, আকুতি বেশুমার!
ক্রোধ’ক্ষে
তুমি খুলে নাও কল্পলোকের দর্পণ! তাই বলে
আমিও যে দাবী তুলে নেবো, কিংবা ভুলে যাবো সবিই
অতটা কৃপণ প্রেমিক তো নই!
অধিকার পাইনি মানে- ভালবাসা তীব্র থেকে পড়ুন
কবিতা | ২ টি মন্তব্য | ৮১ বার দেখা | ৫২ শব্দ ১টি ছবি
হৃদয়ের প্রকোষ্ঠে- বুক সেলফ
হৃদয়ের প্রকোষ্ঠে- বুক সেলফ
বুক সেলফ-এ দাঁড়িয়ে আছে সারি বদ্ধ বই
মলাটে মলাটে বাঁধানো নৈবেদ্য, স্বপ্ন থই থই
দাঁড়িয়ে আছে একে অপরের বুকে
তাঁকে তাঁকে একে অন্যের পিঠে হেলান দিয়ে
রবীন্দ্রনাথের লম্বা সারির পর শরৎচন্দ্রের ভারী ভারী গ্রন্থ
নজরুল, বঙ্কিমের সাথে রয়েছে মধু সূদন দত্ত
রয়েছে তারা শংকর, সুনীল, পড়ুন
কবিতা | ১টি মন্তব্য | ৭০ বার দেখা | ৪৩০ শব্দ ১টি ছবি
ভুল সাঁতার
ভুল সাঁতার
ভুল কথা
তুমুল হট্টগোলে মিশে যায়
বেরিয়ে আসে নির্ভুল দেবতা! ভুল দৃষ্টি
প্রতিমার নিষ্পলক চোখের ভাষা পড়ে
নেমে আসে শ্রাবণ- বৃষ্টি! ভুল কদম
বইছে জীবন নদী, যখন থেকে
আদম- হাওয়া খেয়েছে নিষিদ্ধ গন্দম! ভুল সাঁতার
জলের তলে উত্তপ্ত সাগর
জেগে থাকে জলসাঘর। ভুল ভাবনা
উসুলে নেই লোকসান; চলছে লেনাদেনা
নিরন্তর জীবন। পড়ুন
কবিতা | ১টি মন্তব্য | ৫৭ বার দেখা | ৩৭ শব্দ ১টি ছবি
নির্বাক দহন
নির্বাক দহন
চৈত্রের খরা থেকে উষ্ণতা চেয়ে নিলাম আঙ্গুলে
উত্তপ্ত সারা শরীর, মনের ভুলে খুলে দিলাম বুকের বোতাম
উদাম বক্ষে দখিনা হাওয়ার প্রশান্ত মমতা; দোল খেলে যায়
হৃদয়ের ত্রিসীমানায়।
তুমি জানো কি? কিসের তাগিদে
আবেগের দুর্দম ঘোড়া টগবগ করে ছুটে চলে দুর্গম পথে! ভর দুপুর।
প্রান্তর পড়ুন
কবিতা | ১টি মন্তব্য | ৫৮ বার দেখা | ১১০ শব্দ ১টি ছবি
নিস্তরঙ্গ জল
নিস্তরঙ্গ জল
নিস্তরঙ্গ জল
কিংকর্তব্যবিমূঢ়, টলমল
যেন নৈসর্গিক কবিতার আঁচল পেতে অপেক্ষমাণ কবি;
দহনের উত্তাপে বিদগ্ধ অঞ্জলি,স্বপ্ন, স্বাদ সবি।
পোড়নের বিশুদ্ধতায় নির্বাক-মৃত্যুর মুখোমুখি;
তুমি জানতেও পারোনি-
তোমার হাতের এক কোশ জলের দাবীতে রুখে আছে জীবনের মনছবি। পড়ুন
কবিতা | ১টি মন্তব্য | ২০২ বার দেখা | ২৮ শব্দ ১টি ছবি
মৃতরা যখন বাঁচতে শিখে
মৃতরা যখন বাঁচতে শিখে
তুমি বেঁচে আছো সুখ বাহারে
দহন শেষে
মরেছি আমি অকথ্য অন্ধকারে। এবং
দুঃখ আমাকে ঢেকে ফেলেছে
ধোঁয়া উঠা শীতেকুয়াশার চাদরে। আমরা দুজন কতকাল একসঙ্গে ছিলাম?
যতক্ষণ সময়ে
বড়জোর একটা পরিতৃপ্ত নিদ্রা ভোগ করা যায়! এখন আবার
তেঁতে উঠেছে পড়ুন
কবিতা | | ২ টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ৯১ বার দেখা | ৬৩ শব্দ ১টি ছবি
ঝলসানো হৃদপিণ্ড
ঝলসানো হৃদপিণ্ড
অনেক বেশী পেয়ে গেছি এক জীবনে, অনেক
বামনের হাত চাঁদে পৌঁছায় না জেনেও-
হাত বাড়িয়েছি নির্বাণ আগুনে, দহনের লীলায়
ছাই হইয়ে গেছি; নির্বাক! অবশিষ্ট প্রাণে
পদদলিত হতে হতে পৌঁছে গেছি পৃথিবীর এক কোণে! যেখান থেকে কান্নার শব্দ বের হতে অক্ষম
আকুতির ভাষা যেখানে তুচ্ছ,
মিনতির হাত পড়ুন
কবিতা | ২ টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ৬২ বার দেখা | ১১০ শব্দ ১টি ছবি
অবহেলার অভিযোগ কোন দিন না
অবহেলার অভিযোগ কোন দিন না
আমি বার বার বুঝতে চেয়েছি আমাকে
আয়নার সামনে দাঁড়িয়ে খুঁজেছি এক একটি যতি চিহ্ন
জীবনের বাঁকে বাঁকে ফোটা ঘাসফুল, বসন্তের রঙ, কাল বৈশাখের তাণ্ডব
দেখতে চেয়েছি কোন অসুখের কবলে মুচড়ে গেছে মনুষ্যত্ব!
কোন ভাঙনের তোড়ে ভেসে গেছে অনন্ত যৌবনের বীরত্ব। আমি শুধু দেখতে চেয়েছি আমারই পড়ুন
কবিতা | ২ টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ১৭১ বার দেখা | ৯৫ শব্দ ১টি ছবি
এই বৈশাখে
এই বৈশাখে
এই বৈশাখে
হেসে উঠুক প্রাণের বাংলা
লাল সবুজের বুকে
আপন মহিমায়
জ্বলে উঠুক প্রাগৈতিহাসিক প্রদীপ;
পিঞ্জিরার মণিকোঠা সুরম্য প্রাসাদ ভেদ করে উঠে আসুক প্রাচীন বাংলা
নতুন ধানের ম ম গন্ধ বাহারী পিঠা!
নাচুক নন্দ
তুমুল আনন্দ মৃদুমন্দ দুপুর
নাচুক ঘুঙুর
চির চঞ্চল কিশোরীর আলতা পড়ুন
কবিতা | ১টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ৭০ বার দেখা | ১০৮ শব্দ ১টি ছবি
ফিরিয়ে দাও
ফিরিয়ে দাও
আমি ফেরত চাই আমার বিশ্বাস
ফেরত চাই আমার সবুজ মনন
আমার অবুঝ মন
আমার সহজ দৃষ্টি
ফেরত চাই আমার রাঙাদিন
আমার স্বপ্নিল রাত
আমার শব্দের বালখিল্যতা
আমার মমতা
আমার প্রাণের ছায়া জীবনের মায়া। পড়ুন
কবিতা, জীবন | ২ টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ৬৪ বার দেখা | ২৫ শব্দ ১টি ছবি
নির্জীব প্রতিচ্ছবি
নির্জীব প্রতিচ্ছবি
পারিনা
একদম খাপ খাইয়ে চলতে পারিনা,
হোচট খাওয়া পায়ে খুঁড়ে খুঁড়ে পথ চলি
তোমাদের কাছে আমি এক বেখাপ্পা জীব!
অথচ
সজীব মনের আয়নায়
তোমাদের নির্জীব প্রতিচ্ছবি বলে দেয়
এই বেলাজ চরিত্র কথা, গুপ্ত কাহিনী!
আমার খুব ব্যথা লাগে-
মানুষ হয়ে পড়ুন
কবিতা | ১টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ৬৮ বার দেখা | ১৬৭ শব্দ ১টি ছবি
খাদ্য উৎসব ও কেনাকাটার উন্মাদনাঃ রমজানে সংযত হোন
খাদ্য উৎসব ও কেনাকাটার উন্মাদনাঃ রমজানে সংযত হোন
রমজানে সংযত হোন। বর্জন করুন খাদ্য উৎসব ও কেনাকাটার উন্মাদনা। খাবার বা ভুরিভোজের চেয়ে এই এবাদত টা জরুরী। খাদ্য উৎসবের চাপে আমরা ভুলেই যাই যে ইফতার ও সেহেরী একটা এবাদত!
নবীজি সা: বলেছেন–
ইফতারের আগ মূহূর্ত হচ্ছে দোয়া কবুলের উত্তম সময়। আল্লাহ পড়ুন
অন্যান্য | ২ টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ১১৪ বার দেখা | ১৩২৫ শব্দ ১টি ছবি