দাউদুল ইসলাম-এর ব্লগ

সব সময় নিজেকে বলি-
মানুষ হবি যদি-
অন্ধকার ঘরে যখন একা থাকবি তখন নিজেকে জিজ্ঞেস করে নিস তুই কতটা মানুষ।
কতটা তোর সভ্যতা
কতটা তোর ভদ্রতা!
স্নান ঘরে যখন একা শাওয়ারের নিচে দাঁড়াস-
তখন নিজেকে জিজ্ঞেস করিস কত টা আছে তোর মনুষত্বের রুচি!
জিজ্ঞেস করিস কতটা তুই ভদ্র, সভ্য!

হীনমন্যতা! ...
হীনমন্যতা! .....
হীনমন্যতা একটি মারাত্মক রোগ।
এটিকে যদিও মানসিক রোগ বলে বিবেচনা করা হয়,কিন্তু ধীরে ধীরে এটি নিজের শারিরীক অসুস্থতার অন্যতম কারন হয়ে দাঁড়ায়।
আর এই থেকে মুক্তি অসম্ভব হয়ে পড়ে যদি না ব্যক্তি তার দৃষ্টিভঙ্গি পরিবর্তন করতে না পারে। হীনমন্যতা শুরু হয়-
#অন্যের সাথে নিজের পড়ুন
জীবন | ১টি মন্তব্য | ২১ বার দেখা | ১৬৫ শব্দ ১টি ছবি
শুভ সকাল
শুভ সকাল
তোমার হাতে তুলে দিলাম প্রভাতের স্নিগ্ধতা
তোমার সাথে মেতে রইলাম মিষ্টি রোদের উষ্ণতা। ঊষার দেশে বাল্মীকি হেসে উঁকি দেয় নব যৌবন
ভালবাসা আশায় থাকে, স্বপ্ন আঁকে নিভৃত মন; যেমন চাও কাছে এসো, আমাকেও যেতে দাও অমর্ত্য পুরে
রৌদ্র উজ্জ্বল গালে সোনালি চুম্বন পেয়ে যাও ভরা পড়ুন
কবিতা | ১টি মন্তব্য | ৪০ বার দেখা | ৪২ শব্দ ১টি ছবি
বেঁচে আছি প্রতিদিন... (জন্মদিনে শব্দ'রা উথালপাতাল করে...)
বেঁচে আছি প্রতিদিন... (জন্মদিনে শব্দ'রা উথালপাতাল করে...)
এখনো/
আঁতুড় ঘরের গন্ধ গায়ে/
এখনো / মধুর স্বরে ডাকে/ মায়ে/
এখনো কেঁদে উঠি/ একাকী/
আলগা হলে / মায়ের বুক /
আসলে/
এখনো আছি/ ছোট্ট সেই পীযুষ টি/
বাবা মায়ের দাউদ/
কখনো/
উদাসী/ কখনো হাসি মুখ/
এখনো /রক্ত-ঘাম /ঝরায় /
অশ্রুত প্রার্থনায় /
চায়/ আমারই সুখ/
দেখতে দেখতে/ কেটে গেছে/ তিন যুগ/
বসন্ত/
ঝরেছে রঙ্গও পড়ুন
কবিতা | ১টি মন্তব্য | ৩১ বার দেখা | ৮৫ শব্দ ১টি ছবি
বিষাক্তের বিষে...
বিষাক্তের বিষে...
কবিতায় তোমার ব্যবচ্ছেদ হতে পারতো
শব্দ আর অক্ষর গুলোকে আমি চিরতরে নিষিদ্ধ করলাম।
পেন্সিল স্কেচ অথবা জলরঙে প্রকাশ পেতে পারত- তোমার বেহাল্লাপনা
তাবৎ তুলি আর পেন্সিল কাটার গুলো নি-স্পর্শ করে দিলাম
যদিও জেনে বুঝে তুমি ফিরে গেছো নস্টালজিক জলসা ঘরে
যে আসরে – ক্যু চক্ষের পড়ুন
কবিতা | ১টি মন্তব্য | ৪৫ বার দেখা | ১৪৮ শব্দ ১টি ছবি
মহাজনের গদি
মহাজনের গদি
ইহা এক মহাজনি দোকান
যেনো তেনো মহাজনি না
এখানে
আদর্শের তাকিয়া কে
পাপোশ বানাইয়া যতো খুশি পদদলিত করা হোক না কেন-
মহাজন সর্বদাই শির উঁচু করিয়া
খাড়াইয়া খাড়াইয়া মুত্র ত্যাগের অধিকার রাখেন!
এবং কি অমৃত অমৃত জিকির তুলে
সেই মূত্র গিলে গিলে
যে কেউই হতে পারে হৃষ্টপুষ্ট!
চোখের লাজ খুলে
বিবেকের পড়ুন
কবিতা, জীবন | ১টি মন্তব্য | ২৯ বার দেখা | ১৪৫ শব্দ ১টি ছবি
অংকবাজি
অংকবাজি
জীবনে
অংকবাজি শিখিনি
কাউকে ভালবাসলে অন্তর থেকে ভালবেসেছি
ঘৃণা করলেও অন্তর থেকে
যদিও ঘৃণার মানুষ নাই আমার
কাউকে ভাল না বাসি, ঘৃণা করিনা।
করলেও তাকে জানিয়ে দিই!
সে জানুক কেউ তাকে ঘৃণা করে
ভালবাসি নিভৃতে
জানাই কম।
কাউকে শ্রদ্ধা করলে অন্তর থেকেই করি।
তেল মারিনা
খুশি করতে রঙ মাখি না!
খুব কম মানুষ পড়ুন
কবিতা | ১টি মন্তব্য | ৩৮ বার দেখা | ৩১৬ শব্দ ১টি ছবি
কুহেলিকার পাঁজরে
কুহেলিকার পাঁজরে
বুক ডুবাতে ইচ্ছে করছে নোনা জলে
বিষম অসুখ ভরা বুক
কতকাল আর রাখবো আগলে
ভগ্নহৃদয়ক্লেদাক্ত মুখ! দূর বহুদূরে
উড়ে যেতে ইচ্ছে করছে প্রিয় নীলাচলে
প্রগাঢ় কুহেলিকার পাঁজরে
গুণগুণ করা বাতাসের মুখোমুখি দাড়িয়ে
ইচ্ছে করছে এলোমেলো হই
তোমার ঘনকালো সুগন্ধি চুলে! ইচ্ছে করছে
ডুবে যাই জোছনা পড়ুন
কবিতা | ১টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ৩০ বার দেখা | ৫১ শব্দ ১টি ছবি
মাঘী পূর্ণিমার অপেক্ষায় আছি
মাঘী পূর্ণিমার অপেক্ষায় আছি
মাঘী পূর্ণিমার অপেক্ষায় আছি
হাড় কাঁপা হিমে
জ্যোৎস্না গলা কুয়াশার আড়ালে
তোমায় নিয়ে যাবো ওমের সন্ধানে। হে নিসিন্দা নারী
আঁধারের বাঁধ ভেঙ্গে আলোর উষ্ণ অঙ্গে
এবার আমাকে ঠাঁই দাও রঙের তুলি সমেত,
বুকের সুডোলে আগলের ঝাঁপ তুলে দাও
বৃন্তের নীলে অংকিত হোক শতাব্দীর জলছবি। মাঘী পূর্ণিমার ঐশ্বরিক রূপে সমৃদ্ধ পড়ুন
কবিতা | ১টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ৪৭ বার দেখা | ১০০ শব্দ ১টি ছবি
হিয়া
হিয়া
হৃদয় গলে বেরিয়ে আসা প্রাণের স্পন্দন
তুমি বললে অশ্রু
আগুনের খোলা চিতা হতে নির্গত আত্মা
তুমি বললে দীর্ঘশ্বাস!
একবার ও চোখে চোখ রেখে দেখলে না
বহমান নদীর নির্বাক ঢেউ পড়ুন
কবিতা, জীবন | ১টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ৫৩ বার দেখা | ২৪ শব্দ ১টি ছবি
একা মানে নিঃসঙ্গ নয়
একা মানে নিঃসঙ্গ নয়
নিজের পক্ষে সংখ্যাগরিষ্ঠতা অথবা অধীক সমর্থন থাকলেই যে নিজের বা নিজ পক্ষের অবস্থান সঠিক তা কিন্তু ঠিক না;
কখনো কখনো সংখ্যালঘু বা একা পক্ষও বিজয়ী হতে পারে বা সঠিক হতে পারে। পৃথিবীর ইতিহাসে বেশির ভাগ কালজয়ী বিজয়ী বীরেরা তাদের যুদ্ধ বা পথ পড়ুন
কবিতা, জীবন | ১টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ৩৫ বার দেখা | ১৮১ শব্দ ১টি ছবি
অতটুকু অবুঝ না হলেই পারতে
অতটুকু অবুঝ না হলেই পারতে
অতটুকু অবুঝ না হলেই পারতে
আমি নিতান্তই নাদান এই তুমি জানতে।
অনন্ত আকাশের অথৈই নীলের মাতম
আর একটু কান পাতলেই শুনতে পেতে।
তুমি জানতে
প্রিয়তমা তুমি ঠিকই বুঝতে
কোন বিষাদের ভয়ে ডুবে থাকি অগাধ স্বপ্নে
কোন কারণে সাঁতরিয়ে যাই তোমার অক্ষি-সমুদ্রে
অবাধে বিবাধে
কিসের টানে নিরন্তর জেগে থাকি নৈশ পড়ুন
কবিতা | ১টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ২৫৮ বার দেখা | ১৩১ শব্দ ১টি ছবি
মৃগ মৃণাল
মৃগ মৃণাল
রাঙাপলাশের আগুন ছুঁতে গিয়ে
আমি পুড়েছিলাম তুষারমণ্ডিত ঠোঁট!
প্রকাণ্ড কম্পনে
হীমে নীল হয়ে আসা দেহারণ্য ভেদ করে
বেরিয়ে আসে মৃগ মৃণাল;
ছুটে ব্যগ্র চিত্তে…
জঙ্ঘানদীর বাঁকে
আছড়ে পড়ে আদিম কল্লোলে… পড়ুন
কবিতা | ১টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ২৭ বার দেখা | ২৬ শব্দ ১টি ছবি
অশ্রু বিভ্রান্ত
অশ্রু বিভ্রান্ত
চন্দ্রিমা রাত, বিবর্ণ প্রান্তর ছুঁয়ে
কুয়াশাস্নাত বন হরিণীর বেদনাহত দৃষ্টি
তীব্র আর্তনাদে গগন বিদারী প্রতিধ্বনি
কেউ নেই এই সৃষ্টি কূলে; সুদূরের মেঘালয়ে
চাপা পড়া তারার হাসি, মুছে দেয় গ্লানি;
প্রেমিকার হাত ধরে প্রেমিকের স্বপ্নবানী
আড়াল জুড়ে কামনার উল্কা ঝড়! চিবুক বেয়ে
গড়িয়ে পড়ে দু ফোটা অশ্রু! একি পড়ুন
কবিতা | ১টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ৬০ বার দেখা | ৫৫ শব্দ ১টি ছবি
বৈরাগ্য বিলাপ
বৈরাগ্য বিলাপ
সুরা সাগরে
অধরা প্রেম তলিয়ে গেছে অনন্ত স্রোতে
অবিমৃষ্য আবেগে আনাড়ি সন্তরণ,
ক্লান্ত অনৃত অভিসারে
দূরে বহুদূরে
ভেসে গেছে প্রমত্ত কবিতার সুবর্ণ সংলাপ
হৃদয়ের গহ্বরে
অবরুদ্ধ চেতনা করছে বৈরাগ্য বিলাপ। আদিগন্ত
দৃষ্টি খুঁজে তন্ন তন্ন করে সঞ্জীবক সত্যের আশ্রয়
আপন ঘরে সতীত্ব খুইয়েছে নারী,
স্বার্থান্ধ পড়ুন
কবিতা | ৩ টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ৫৬ বার দেখা | ৫৯ শব্দ ১টি ছবি
উৎসব হোক মৃতদেহ ঘিরে
উৎসব হোক মৃতদেহ ঘিরে
তলানিতে ঠেকে আছে জীবনের সমস্ত তপস্যা
কিছুই উত্তীর্ণ করেনি,
পরাজিত গ্লানি
আর
চরণ তলে নেতিয়ে থাকা জ্যান্ত শবদেহ! ভালোবাসা ব্যতিরেকে
কিছুই ছিলোনা জীবনানন্দের দোকানে
লাল নীল ভালোবাসা
মুঠো মুঠো স্বপ্ন
স্তরে স্তরে সাজানো আশা প্রত্যাশা কান্নার নন্দনে
অবিশ্রান্তির ধারা
চোখের কোণে পুঞ্জিভূত স্বপ্ন!
মৃত্যু এসে পড়ুন
কবিতা | ১টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ৩৭ বার দেখা | ৬৯ শব্দ ১টি ছবি