সেপ্টেম্বর ২, ২০২২ বিভাগের সব লেখা

মেঘ নেই, মোহ নেই
খুব বেশি মেঘ নেই তবুও আকাশটা আঁধার
হয়ে, আমাকেও দিয়ে যায় ধার
দেনা করে শোধ করি মৌরশী ঋণ
এভাবেই দায় নিয়ে কেটে যাবে অনাগত দিন! এভাবেই আসবে শীত, পৌষের কুয়াশা
মিশিয়ে কেউ লিখবে গান- বুকে রেখে আশা
মাঝিও ফলাবে ফসল উজানের চরে
শস্যদানার ঘ্রাণে উন্মত্ত দুপুর পাবে ফিরে সোনালী অতীত তার, লিখিত পড়ুন
কবিতা | ২ টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ১৭৩৯ বার দেখা | ৫২ শব্দ
অতঃপর তোমায় ছোঁব
পউষের সন্ধ্যা নিবিড় অন্ধকার,
শিরীষের ডালে দেখেছি শিঙের
মতন বাঁকা চাঁদ পড়ুন
কবিতা | ২ টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ৪৩ বার দেখা | ১৮৭ শব্দ
মহা মহিমের চরণে
মহা মহিমের চরণে
মগ্নধ্যানে অমৃতের নিশিভোগ
জ্যোৎস্নার উঠোনে হাওয়াইনূপুর কলতান
মদিরা পূর্ণ সম্ভোগে
ছুঁয়ে যায় দ্রবীভূত রাগ নৃত্য মুদ্রায় অন্তরাত্মায়! বাল্মিকীর ঠোঁটে নির্বাণ তৃপ্তি
পথের বাঁকে চেয়ে থাকি নতুন দিনের আগমনে
এই তো
আজানের ধ্বনি মধুময় বার্তা দিয়ে গেলো দেরী করা উচিত নয়!
কৃতজ্ঞের শির নত করো মহা মহিমের পড়ুন
কবিতা | ১টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ৪৯ বার দেখা | ৪১ শব্দ ১টি ছবি
কাঠগোলাপের গান
তারপর। প্রলেপমাখানো বিস্কুটের মতো; সরকারি দুপুর।
দীর্ঘ হতে হতে মূলত কমলালেবু থেকে খসে পড়া স্বপ্নিল
শরাবী বিকেল দৃশ্য-নগরে শনাক্ত হচ্ছে। শাদা নুনের
মায়া-মরুৎ। আর শব্দ পতনে ছুঁয়ে যায়-অখণ্ড বর্তমান-
এখানে নির্ঘুম বারান্দা ডাকে-লকলকে দারুণ ঝুরঝুরে
বালকেরা খেলে, আলগোছ ঋতুমতীর শিল্পকলাদি;
শুক্রবারের প্রেম। নীলভর্তি বোতামের আবেগ-ওসব; একে-অপরে হেসে ওঠে শেষ বিটরাই। আহ! পড়ুন
কবিতা | ১টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ৪৪ বার দেখা | ৮৫ শব্দ
জলপুরুষ
আমার দুই চোখে একটাই কবোষ্ণ নদী আছে
ঝরনার মতোন চপল, শব্দের মতো চঞ্চল;
দীঘির শান্ত জল তাকে খুউব খুউব হিংসে করে
যখন কলকল শব্দের ঢেউ তোলে জলপুরুষ,
রাংতার কাজল হয় দোভাষী প্রেম! তখনও
আমি চেয়ে দেখি দু’পাড়ের খামাখা ভাঙন
আমি চেয়ে দেখি মাথার উপর উচ্চাঙ্গ সঙ্গীত পড়ুন
কবিতা | ১টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ৩৭ বার দেখা | ১০২ শব্দ