আগস্ট ২০২২ বিভাগের সব লেখা

চিনেও চিনে না
চিনেও চিনে না
রাত নিঝুম আকাশের গায়ে নাকি চাঁদ
দেখা যায় না; যত অদ্ভুত কর্মকাণ্ড মাটির
স্পর্শে! অথচ ভোরের স্নিগ্ধতায় বিবেক
শূন্য উঠনে সাত পাতার গাছে গোলাপ
ফুটে না- যাহার কোন অর্থবহ হয় না
বুঝেও না- সূর্যের কিরণ মনে; তারপরও
চঞ্চল ঘোড়ার গাড়ি রাস্তাও চিনেও চিনে না
উত্তর দক্ষিণ পড়ুন
কবিতা | ৬ টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ১০৯ বার দেখা | ৬৮ শব্দ ১টি ছবি
দেখবে এসো
দেখবে এসো পড়ছে বৃষ্টি
সারা আকাশ কালো করে
ঝমঝমিয়ে উঠোন জুড়ে
ঝরঝরিয়ে যাচ্ছে ঝরে। ছুটছে ঘোড়া টিনের চালে
জল জমেছে পথের পাশে
গাছের পাতা করছে স্নান
খিলখিলিয়ে শুধুই হাসে। ঐ যে দেখো ঝাপসা দূরে
ঘর বাড়ি সব যায় না দেখা
ঠায় দাঁড়িয়ে ভিজছে মাটি
সরস সজীব একলা একা। কড়কড়াকড় পড়ছে যে বাজ
ঝলকানিতে ভরছে আলো
গুরু পড়ুন
কবিতা | ২ টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ৫১ বার দেখা | ৬২ শব্দ
ছন্ন ছাড়া
আমাদের পা আছে, অথচ !
আমাদের সবগুলো পা একত্রিত হয়ে আজ মিছিলে হাঁটে না। আমাদের হাত আছে, অথচ !
আমাদের সবগুলো হাত একত্রিত হয়ে এখন আর গর্জে উঠেনা। আমাদের মুখ আছে, অথচ !
আমাদের সবগুলো মুখ একত্রিত হয়ে অন্যায়ের প্রতিবাদ করে না। আমাদের মাথা আছে, অথচ পড়ুন
কবিতা | ২ টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ৭১ বার দেখা | ৫৩ শব্দ
এই শহরে
ইট কংক্রিটের এই শহরে
মধ্য ঝাঁঝাল রোদেলা দুপুর।
ব্যস্ত নগরীর কোলাহলে মিশে
পায়ে হেঁটে হেঁটে ক্লান্ত পথিক। পিছু ফিরে বার বার ক্লান্তিতে
নির্জন নিস্তব্ধ আশ্রয়ের খোঁজে।
অনবরত কলরবে গাড়ির হর্ণ
যান্ত্রিক নগরীর বিবর্ণতা। পাখিদের সুরের মিষ্টতা নেই
গাঢ় সবুজ যেন দু’চোখে ধাঁ-ধা।
দেয়াল ঘেরা কংক্রিটের প্রাচীর
মানুষ গুলোও কেহ কার না। অথই মধ্য যুগে ডুবে আছে
মানবতা পড়ুন
কবিতা | | ২ টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ৫৯ বার দেখা | ৬০ শব্দ
এই তো আমি
এই তো আমি
তুমি যদি আমার হৃদয়কে
পুনরায় সংজ্ঞায়িত করো আমি ভুলে যাবো অতীত
বলা কথা আর কষ্টের নীল কুণ্ঠ অভিঘাত।
এই চলমান জীবনের পথে
ছন্দপতনের যন্ত্রনা কতটা ক্ষত সৃষ্টি করে
তুমি হয়তো জানো। আমি হয়তো বটবৃক্ষ হতে পারব না
শকুন্তলার সেই সলিল সমাধি
স্বপ্নহীন জীবনের মতই বেদনাদায়ক। কংক্রিটের এই শহরে
নির্মোহ পড়ুন
কবিতা | ২ টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ১১৬ বার দেখা | ২৩৭ শব্দ ১টি ছবি
জ্বীনের খিটমিটে হাসি
জ্বীনের খিটমিটে হাসি
এক সময় ষষ্ঠ শ্রেণীর উপরে অধ্যয়ণরত প্রতিটি ছাত্রেরই
লজিং অথবা বোডিং -এ থেকে লেখাপড়া করার সুবাদে
নিজেস্ব ট্রাঙ্ক থাকতো।
তখন আমি দশম শ্রেণীর ছাত্র।
তাই — ক’দিন থেকেই চলতে ফিরতে মনে হচ্ছিল
সব সময় কে যেন আমাকে ফলো করে।
কখনো ডানে কখনো বামে আবার কখনো পিছে পড়ুন
অণুগল্প | ৪ টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ১০০ বার দেখা | ২০৬ শব্দ ১টি ছবি
প্রিয় বাসিনী
প্রিয় বাসিনী
জীবন এক নৈব্যক্তিক প্রশ্নের সমাহার
ভেতরের কামনাগুলো দক্ষ জাহাজের
ক্যাপ্টেনের মতো হলে বেশ ভালো হতো।
আদেশ নির্দেশ সব সংকাহীনভাবে
একসাথেই একীভূত হতো। আসলে বন্ধনহীন কামনা
সুনির্দিষ্ট নিয়ম মেনে চলেনা
ব্যক্তিত্বের পরিণত সম্পর্ক যদি
আভিজাত্যের প্রমোদ দিশায় বদলানো যেত
তবে হয়তো জীবন তার নিবিড় আলিঙ্গনে
হারাতো সুনিবিড় সরলতা। যখন, এলোমেলো দহনে জ্বলেছি পড়ুন
কবিতা, জীবন | ১টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ৭৪ বার দেখা | ২১৫ শব্দ ১টি ছবি
অনিমেষ
অনিমেষ পাল নৌকার মাস্তুলে পাল খাটাবার কাজ করে, তার কাজ এটুকুই। এর পর ছইয়ের ভিতর ঘুম। অনিমেষ যদি ঘুম জমাত; তাহলে ব্যাংকের কোন ভোল্টে জায়গা হত না। ইদানীং অনিমেষ ঘুমোতে পারছে না, ঘন্টার পর ঘন্টা অসল বসে থাকছে। দুই চোখ বুজে দেখেছে কিন্তু ঘুম পড়ুন
অণুগল্প, জীবন | ১টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ৭০ বার দেখা | ১৪৫ শব্দ
বীণাপাণি বনাম খেয়ালী
পাঁচ
শরীরগুলো মাঠে পড়ে আছে – ইঞ্জিন খুলে নিয়ে যাওয়া ওয়াগন; ঘাম, বর্ষার জল, গায়ের রঙ আর কাদা মিশে একাকার। শুধু বিকাশদা চটি-পাছায় ব’সে বিড় বিড় করছে, “পনেরো বছর সাব-ডিভিশান খেলছি, এমন গোল বাপের জম্মেও দেখিনি। বদমায়েশিটা কমালে ‘পোকা’ একদিন কলকাতা-মাঠ দাপাবে”। চাঁদ সেঁটে থাকে পড়ুন
জীবন | ১টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ৬২ বার দেখা | ৭২৫ শব্দ
অঞ্জলি লহো হে কবি...
অঞ্জলি লহো হে কবি...
যেদিন আমি হারিয়ে যাব, বুঝবে সেদিন বুঝবে, অস্তপারের সন্ধ্যাতারায় আমার খবর পুছবে – কাজী নজরুল ইসলাম (মে ২৫, ১৮৯৯ – আগস্ট ২৯, ১৯৭৬), (জ্যৈষ্ঠ ১১, ১৩০৬ – ভাদ্র ১৪, ১৩৮৩ বঙ্গাব্দ), অগ্রণী বাঙালি পড়ুন
জীবন, ব্যক্তিত্ব | ১টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ৮২ বার দেখা | ৪৪২ শব্দ ৪টি ছবি
তন্ত্রর-মন্ত্রর
তবুও ভাবি ট্যারাচোখ তুলে কিছু আলো আসবে
নিদানকালে সমস্ত আকাশ-পাতাল দু’হাতে তুলে পড়ুন
কবিতা | ১টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ৭৪ বার দেখা | ১৭১ শব্দ
রুবাইয়াত-ই-বোরহান (মা হারা মন)
রুবাইয়াত-ই-বোরহান (মা হারা মন)
(১)
মেললে বসে চাঁদ রাতে তার রূপায় মাখা রঙ তুলি,
এই প্রকৃতিই নেচে উঠে জীব খ্যালে সব ডাংগুলি।
ঘোরও আড়ে রয় না বেজার চষতে যা মান খাপছাড়া,
ডুকরে শুধু এই মনে আজ মা মা ডাকা দিনগুলি। (২)
হুতোম যদি ঠ্যাং তুলে ওই বাবলা শাখে গায় নেচে,
গুবরে পড়ুন
কবিতা | ৪ টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ১০১ বার দেখা | ১৩২ শব্দ ১টি ছবি
লোভে পাপ, পাপে মৃত্যু
লোভে পাপ, পাপে মৃত্যু
রাজায় রাজায় যুদ্ধে রাজার কোনো ক্ষতি হয় না। মরে শুধু উলু খাগড়ার দল। সামনে নির্বাচন। কে জিতবে, কে হারবে, তা বড় ব্যাপার না। বড় ব্যাপার হচ্ছে, আপনি বা আপনারা তথা কর্মীরা নির্বাচনকালীন সামান্য কিছু অর্থের বিনিময়ে রাতদিন পরিশ্রম করে প্রার্থীকে পড়ুন
রাজনীতি | ২ টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ৩৪৩ বার দেখা | ২২৯ শব্দ ১টি ছবি
বিপদ ছাড়ে না
বিপদ ছাড়ে না
বিপদের গায়ে ঠাণ্ডা বাতাসে
জল গড়ে না। মেঘলা মন
মাটির দোসর ঘাসফড়িঙে!
মনের দ্বারে দক্ষিণা আকাশ
পূর্ণিমা ফুরায়- বিপদ ফুরায় না
ঘার ঘাপটি মেরে থাকে রাস্তার
মোড়ে! অথচ মেঠোপথ ধু -ধু
শ্মশান, রাত গড়িয়ে দুপুর সন্ধ্যা;
অতঃপর বিপদ ছাড়ে না নদীর
চারিধার বালুচর কিংবা কাজল। ১৩ ভাদ্র ১৪২৯, ২৮ আগস্ট পড়ুন
কবিতা | ৪ টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ৮২ বার দেখা | ৪১ শব্দ ১টি ছবি
ভালোবাসি তোমায়
ভালোবাসি তোমায়
আর একটি বার
যদি তোমার দেখা পাই
বলেই দেবো আমি বলেই দেবো
ভালোবাসি, ভালোবাসি তোমায়। সেই হঠাৎ দেখার একটু চাওয়া
ভুলিনি আজও আমি
এই শহর নগর খুঁজে চলি, জানিনা
কোথায় আছো পড়ুন
কবিতা | ২ টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ৭১ বার দেখা | ১০১ শব্দ ১টি ছবি