আগস্ট ২০২২ বিভাগের সব লেখা

আবেদন
আবেদন
মাননীয় প্রধানমন্ত্রী! বেতনটা বাড়িয়ে দিন। আমি একজন গার্মেন্টস কর্মী
কতই বেতন পাই!
পাঁচ ভাই বোনের সবার বড়, বাবা দিন মজুর
মাস শেষে বাড়িতে টাকা দিয়ে না খেয়ে কাটে দিন
মাননীয় প্রধানমন্ত্রী বেতনটা বাড়িয়ে দিন। আমি একটি প্রাইভেট কোম্পানিতে স্বল্প মাইনের কর্মচারী
দুই সন্তানের স্কুল ফিস, হাজার দশেক পড়ুন
কবিতা | ২ টি মন্তব্য | ১৪২ বার দেখা | ১৩৭ শব্দ ১টি ছবি
তুমিও জেনে রাখো
স্পর্শে যদি ভালবাসা প্রমাণ হয়
তবে জেনে রাখো “ইশ্বর”
তোমাকে কেউ ভালবাসেনা পড়ুন
অন্যান্য | ২ টি মন্তব্য | ১২ বার দেখা | ১০ শব্দ
মা (১৫)
অতঃপর দিন শেষে গল্পের থালাগুলো তুলে রেখে দিতেন মা
তারপর
বিকাল
সন্ধ্যা পড়ুন
কবিতা, জীবন | ২ টি মন্তব্য | ২২ বার দেখা | ১১৮ শব্দ
টোকা
টোকা
নিরেট প্রদীপ রেখা
ছুঁয়ে
যায়
ধ্রুপদী মুখ
চোখের কোটরে জমে থাকা
শীতল সুখ
ছুঁয়ে যায়
সংগুপ্ত উত্তাপঘর্মার্ত বুক
নীলকণ্ঠী রাত
নিপাট অন্ধকার
মৃদু হাওয়া
খেলা করে সুগন্ধ মোহন চুলে গ্রীবার উপর আমার তপ্ত নিশ্বাস-
আচমকা ! বাঁধ ভাঙ্গা জোয়ার
তোমার
রুদ্ধ
কপাটে পড়ে
টোকা ! পড়ুন
কবিতা | ২ টি মন্তব্য | ১৫ বার দেখা | ৩১ শব্দ ১টি ছবি
বন্যার জল হতে ইচ্ছে করে
আধো আধো ভাঙা জলধোয়া রাস্তায় অনেকটা প্রহর
কেটে গেলো আজ, কোথাও কোনো অসঙ্গতি নেই!
সত্তরের দশকের একটা জারুল গাছ সেও দেখলাম
সেও বেশ আছে, একজন তালপুকুর তার কাছে পাওনা
চাইতে এসে চুপচাপ দাঁড়িয়ে আছে,
তালপুকুর জানে ভদ্রতা বলেও তো একটা কথা আছে;
সেদিকে জারুলের কোনো ভ্রুক্ষেপ নেই, সে বেশ আছে! এতো পড়ুন
কবিতা | ১টি মন্তব্য | ১৫ বার দেখা | ৯৬ শব্দ
বৃষ্টি নামে টুপুর টাপুর ... প্লাবনে ভাসে দুইকুল আমার বর্ষণসিক্ত কবিতা (প্রথম পর্ব)
বৃষ্টি নামে টুপুর টাপুর ....... প্লাবনে ভাসে দুইকুল আমার বর্ষণসিক্ত কবিতা (প্রথম পর্ব)
বৃষ্টি নামে টুপুর টাপুর প্লাবনে ভাসে দুইকুল
আমার বর্ষণসিক্ত কবিতা (প্রথম পর্ব)
কলমে- কবি লক্ষ্মণ ভাণ্ডারী বৃষ্টি নামিল টুপুর টাপুর
অজয়ে আসিল বান,
খেয়া পারাপার বন্ধ আজিকে
বাঁধা আছে তরীখান। জোয়ারের জলে হাসিছে অজয়
ভেসে যায় দুই কূল,
প্লাবনের জলে ভাসে তরুশাখা
ভেসে যায় পড়ুন
কবিতা | ১টি মন্তব্য | ২২ বার দেখা | ৭১ শব্দ ১টি ছবি
দুর্ভোগ
দুর্ভোগ
সবুজে সমবৃদ্ধি
কোলাহলে অনাবৃতি,
জাগ্রত মহল
কাগজই সম্বল! রূপের দুনিয়ায়
মগজে পোকা,
বাস্তব চিত্তে
আগ্নেয়াস্ত্রর খেলা! মানবিক দৃশ
জগতের উৎস,
সমাদৃত অরণ্যে
কলঙ্কের মূলমন্ত্র! ভালো কাজে
রোইয়াছে চোখ,
মন্দ কাজে
নাই গো কোনো সুখ! স্বর্গের লোভ
দুনিয়ার ভোগ,
মানব রূপে
রোইয়াছে চোখ! চারকোনে দিক
সত্যের কনিশ,
নিত্যনতুন ন্যায়
তৈরী হয় ব্যয়! ভোগের তারণায়
সৃষ্ট লোভ,
অন্ন হারায়
তীক্ষ্ণ রোগ! মুক্ত মঞ্চে
নেই মুক্তি,
তস্করী তো আজ
খোলা পড়ুন
কবিতা, জীবন | ৪ টি মন্তব্য | ৩৮ বার দেখা | ৮৩ শব্দ ১টি ছবি
মরে যাবার আগে
এসো
পাখিদের মালা বদল দেখি
বন-বনানী মেরে ফেলবার আগে ডানার ভেতরে শরীর
এক মোহরে ভায়োলিন সুর
আর দুলে ওঠা গাছস্তন ঘ্রাণ-
অথবা মাছেদের জলগোসল
বাদামফুলের দিনগুলো
ডানাহীন ওড়া রোদ-ছুট সন্ধ্যা-
যা কিছুর নতুন মুদ্রণে প্রকাশ
এসবের ধৈর্য শেখানো গান
তারপর সজীবে আক্রান্ত হই। পড়ুন
কবিতা | ১টি মন্তব্য | ১২ বার দেখা | ৩২ শব্দ
আর নয় নাগাসাকি আর নয় হিরোসিমা
শোনো-
ঘরের কোণে নির্জীব
চতুঃস্পার্শে তৈরী করা
আপাত ভঙ্গুর শান্তি ভাঙতে না চাওয়া
মানুষের দল-
শোনো এক গল্প বলি-
রক্তাক্ত সে কলঙ্ক শুনে যদি ক্ষুব্ধ হও
দুঃখ আসে,ক্রোধে ফেটে পড়তে চায় মন
জানিও তা পরে। সে দিনটা ছিল টাকা রং সূর্যের
স্নেহাশীষে ধোয়া,
অগনিত ফুটফুটে শিশু
সোনালী গমের ক্ষেতে
বিকিরণ করে সুখ খেলায় খেলায়-
তরুণী গৃহিনী জল সন্ধানে-
চাষীরা পড়ুন
কবিতা, জীবন | ১টি মন্তব্য | ৩৭ বার দেখা | ২০২ শব্দ
শৃঙ্খলা
শৃঙ্খলা
এক দলা মাটি কিংবা ইট পোড়া বাসনা
হরদম চলছে বুক পাঁজরে- অথচ মেঘ
বৃষ্টির ভয় নেই-রক্তক্ষরণে জলাশয় নদ;
মনের গভীরে ইট ভাটার অনল জ্বেলে
শান্ত হতে বল মাটির চূড়া-তারপর
অহমিকা চোখের আঙ্গুলে চিনো না
এমনকি বুঝো না- এক বিদ্বেষীর তরী
ভাসাচ্ছ রোজ- রোজ! মনের সিঁড়ি কিংবা
দেওয়াল পার্থক্য পড়ুন
কবিতা | ৪ টি মন্তব্য | ৩৫ বার দেখা | ৬৪ শব্দ ১টি ছবি
ফেরা
জগতের অপর পাড়ে
হেঁটে হেঁটে কতকিছু খরিদ করলাম। আমার সঞ্চয়ে আছে
স্ট্যাচু অফ লিবার্টি
আইফেল টাওয়ার
বুর্জ আল খালিফা
ব্লু মস্ক
বার্লিন ওয়াল
বাকিংহাম প্যালেস। আছে
ইজিপ্টের দুই প্রস্থ পিরামিড
আর বেবিলনের সেই ঝুলন্ত উদ্যান। শাহজাহানের স্মৃতি বিজড়িত তাজমহলে
প্রেমের ওয়াদা করে
প্রেমিকাকে নিয়ে নায়েগ্রা ফলসে পড়ুন
কবিতা, জীবন | ১টি মন্তব্য | ১২ বার দেখা | ১০৫ শব্দ
অশ্বত্থের ছায়া
জলীয় সুতোর কারুশিল্পের সাথে
ছড়িয়ে আছে জল, মাছের শিকার
এ অদেখা এক জাল, মৎসচাষে সাধু বক
দুলে ওঠা নিয়ে সংশয় নেই হয়তো
জলভাসা মৃদু গোলাপী অহংকার
ডুবিয়ে রাখছে তোমাকে,
ডুবিয়ে রাখছে আমাকে। পুতুল ছিলাম কোনোদিন হয়তো
যদিও উপাধিতে মারমেড অথবা রাজকুমারী
মূলতঃ ছিলাম সুঁই
ফোঁড় দিয়ে অন্যের জীবনপ্রণালী গেঁথে দেয়া।
সূঁচের উপরেই নাচগানের নকশী
নাচো পুতুল, পড়ুন
কবিতা | ২ টি মন্তব্য | ২২ বার দেখা | ৭৫ শব্দ
জেগে উঠবো
জেগে উঠবো
আমি প্রতিটি পতনের পরে জেগে উঠবো
পৃথিবীর মহাপ্রলয় শেষে
ধ্বংসকে উপেক্ষা করে ধ্বংসের মহাসাগর থেকে বেরিয়ে আসবো।
জেগে উঠবো তোমারই আশায়। এবং আমি শেষ পর্যন্ত জেগে উঠবো
হার না মানা পৃথিবীর পান্থশালায়
ফিরে আসবো তোমার চলা পথে পথে।
এবং লম্বা হয়ে দাঁড়াব দুর চোখে দেখবো।
এই সুদূর পড়ুন
কবিতা | ২ টি মন্তব্য | ৩২ বার দেখা | ২৫৬ শব্দ ১টি ছবি
এই যে পাহাড় ঐ যে নদী
এই যে পাহাড় ঐ যে নদী
আমায় নিয়া যাবে বন্ধু
আমায় নিয়া যাবে?
এই যে পাহাড় ঐ যে নদী
যেতে মত বদলাবে? যাবে বন্ধু নদীর পাড়ে
ভাসবে ডিঙি নায়ে,
একটুখানি খোলা হাওয়া
দাও লাগিয়ে গায়ে! ঐ যে গিরি এই যে ঝর্না
যাবে নিয়ে আমায়?
জীবন খাতায় দেবে গড়ে
সুখের কাব্যনামায়? ঝর্না ছুঁবো স্বচ্ছ জলের
ইচ্ছে করে যেতে,
ইচ্ছের মালা বায়নার পড়ুন
কবিতা | ১টি মন্তব্য | ১৪ বার দেখা | ৭১ শব্দ ১টি ছবি
একা হেসে উঠি
একা হেসে উঠি।এবং বিরতিহীন
গান শুনছি, নেমে আসে ঘোর- ভাবছি কী লিখব, নগর কেবিনে বসে
তাঁহার দেহতল্লাটে উর্বর পলি
লবণের স্বাদে উড়ছে সারা সন্ধে! হোটেলে নান রুটি, মোরগ পোলাও
চা-কফি নিমগ্ন ঝুঁকে আছে
নতুন স্বপ্ন, স্বপ্নের ভেতরে সিরিজ;
অপেরা শরণার্থী, স্বাধীনতাকামী
রাতপোকা প্রাণী মালিকানাধীন হতে
প্রায় একা কাটে, প্রায় স্বপ্ন ভাঙে! মানুষের সঙ্গ পেতে সম্পর্ক পড়ুন
কবিতা | ১টি মন্তব্য | ৩১ বার দেখা | ৫৪ শব্দ