ফেব্রুয়ারী ২০২১ বিভাগের সব লেখা

বীরঙ্গনা
মাগো পুইয়ের মাচা পুরো খালি
তুমি চারা লাগাবে বলে,
আমি দুটো পুইয়ের চারা এনেছি
চারাগুলো আজ নুয়ে পড়ছে,
প্রখর রোদে।
মাগো তুমি কোথায়
তোমায় তো আমি সারাবেলা খুজলাম
তুমি তো কোথাও নেই,
মাগো তুমি কোথায়,
তোমায় না পেয়ে আমি বসে আছি,
হিজল অশ্বত্থ গাছের পড়ুন
কবিতা | ৪ টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ১৩১ বার দেখা | ১৯৯ শব্দ
দুঃস্বপ্ন
দুঃস্বপ্ন
তুমি নীল আকাশ হয়ে এসেছিলে আমার জীবনে
আমি হয়ে গেছি ফ‍্যাকাশে বিবর্ণ, নিঃস্ব
সেই নীলের দহনে__
আজ ও হৃদয়ের ক্ষতে দক্ষিণা জানালায়,
এলোমেলো হাওয়া বহে
নীল নক্ষত্রের আলো ছায়ায়
স্বপ্নরা নিমগ্ন ;
গোলাপ কুঁড়িরা
ফোঁটেনি তখনো অথচ চারিদিকে সৌরভে মাতোয়ারা
তোমার জন্য–
শুধু তোমার জন্য
তবে কি পড়ুন
কবিতা | ৩ টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ২৫৪ বার দেখা | ৯২ শব্দ ১টি ছবি
ফেলেআসা সময় কিংবা প্রেম
ফেলেআসা সময় কিংবা প্রেম
তারপরে
বিবর্তনবাদ খুবলে খেয়ে যায়
উড়তে থাকা অনুভুতির পাখনা;
মুখ থুবড়ে পড়ে থাকা শরীর
হারায় উষ্ণতা,
মগজের কোষে যাদুমন্ত্র গুলো
নিজেকে জাগাতে নির্ভরতা ছোঁয়া খোঁজে নাগপাশে,
আর আমি তুমি কিংবা আমরা মানসিকতাকে দ্বায় চাপিয়ে
দাবা খেলার দায়িত্ব থেকে মুক্তি নেই।
তারপরে
কেউ চলে গেলে পিপাসায় জেগে উঠি মাঝরাতে,
পাশের বালিশে পড়ুন
কবিতা | ৩ টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ২০০ বার দেখা | ৮২ শব্দ ১টি ছবি
ভাইটাল গাঙের মাঝি
ভাইটাল গাঙের মাঝি
উজান গাঙে না যাও মাঝি
বৈঠা ভাংবায় চাইও
তবু যদি ভাঙ্গে খাড়াল
হালধরি নাও বাইও!
সঙ্গে থাকা মাঝি মাল্লায়
গাইতনায় আর সারি
ভাঙ্গামনে উজান গাঙে
কেমনে দিবায় পাড়ি! আন্ধাইরাতে অই তোফানে
পথচিনি নাও বাইতায়
ইয়া নফসী, ইয়া নফসী পড়ি
কেমনে বাড়ি যাইতায়।
ভাইটাল গাঙে আছ মাঝি
স্রোতের পড়ুন
কবিতা | ২ টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ১৩৭ বার দেখা | ৪৭ শব্দ ১টি ছবি
কিছু বৃষ্টির জল আর রোদের আলোয় অনুসৃতা
আজ রোদের আলোয়
ভিজে পুড়ে গিয়েছি আমি।
তুমি হয়তো তখন
জানালায় দাঁড়িয়ে একা,
বৃষ্টি দেখছিলে অনুসৃতা। সূর্য তার রাতের ক্রোধ
ছুঁড়ে দিয়ে শান্ত হয় বিকেলে।
কিন্তু আকাশ!! আকাশ,
বৃষ্টি দিয়ে মুছে দেয় সব
ক্রোধ, অভিমান আর নীচতা।
বৃষ্টিকে গ্রহণ না করে,
মনে পুষে রেখেছ বিষণ্নতা।
বৃষ্টি না পেয়ে তাই
আমি রোদে ভিজেছি,
বিষণ্নতা দূর করার আশায়। বৃষ্টি ভালবাসি তাই
কাছে পড়ুন
কবিতা | ৩ টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ২০৯ বার দেখা | ৫৪ শব্দ
মেয়ে ও মায়া, মাদক ও রাষ্ট্র
মেয়ে ও মায়া, মাদক ও রাষ্ট্র
খালামনি আপনাকে ধন্যবাদটা পৃথিবীর উপরে নীল আকাশের মত বিশাল করে দিলাম। আপনি আর আম্মু আমাকে সত্যিকার ভালোবাসে আর আপুটা একটু একটু কিন্তু আব্বু একটুও নয়। আম্মুর কাছে যেতে পারি না আব্বুর জন্য তাই আপনার কাছে ছুটে আসি, মনে কষ্ট পড়ুন
গল্প, জীবন | ৫ টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ১৬৫০ বার দেখা | ২১৪৯ শব্দ ১টি ছবি
স্বাধীনতা চাই
আমরা বাংলার মানুষ
আমরা স্বাধীনতা চাই,
আমরা বাংলার নির্যাতিত নিপীড়িত কৃষক
আমরা আমাদের অধিকার চাই
স্বাধীনতা চাই, স্বাধীনতা।
আমরা বাংলার শ্রমিক জনতা
আমরা আমাদের স্বাধীনতা চাই,
স্বাধীনতা।
আমরা বাংলার মাসুম শিশু
আমরা স্বাধীতা চাই।
সমাবিষ্ট বাংলার মানুষের আজ একটাই চাওয়া
স্বাধীনতা,স্বাধীনতা।
শুধু স্বাধীনতা নেই বলে সমগ্র পড়ুন
কবিতা | ৬ টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ১২১ বার দেখা | ১৪৪ শব্দ
বইমেলা
বইমেলায় কি কি বই বিক্রি হয়? কি কি বইয়ের স্টল বেশি। কবিতা গল্প উপন্যাস প্রবন্ধ আর সাহিত্যের বই। আর অন্যান্য বই। তবে অন্যান্য বই খুব সামান্য বিক্রি হয়।
তার মানে বইমেলায় প্রায় আশি নব্বই ভাগ সাহিত্যের বই থাকে। সাহিত্যিক ও সাহিত্য প্রকাশকরা সেই সব বই পড়ুন
আড্ডা | ৬ টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ১৪৪১ বার দেখা | ৪১১ শব্দ
কিছুই রবেনা জেনো
কিছুই রবেনা জেনো
ক্ষীরের মতো নরম মাটিতে রুয়ে দেয়া গোলাপের চারাগাছটা,
একদিন যৌবনে ভরে দেবে শতশত ফুলের ঘ্রাণে পুরোটা আঙিনা।
সুপারির ভরে নুয়ে যাবে একদিন তার সদ্য গজানো চারাটিও,
তারপর একদিন মরে যাবে এমন করে রুয়ে দেয়া সবকটি চারা।। গ্রীষ্মের তাপদগ্ধ মাটি; উনুনের মত জ্বলবে তীব্র যন্ত্রণায়,
একদিন পড়ুন
কবিতা | , | ৬ টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ৩০১ বার দেখা | ১৫৭ শব্দ ১টি ছবি
করোনা কাল
করোনা কাল
করোনা কাল!
পাল্টে দিলো জীবনের হালচাল!
কারোর হয়েছে রাতারাতি গুটি লাল!
সাধারণ মানুষকে ওরা বানিয়েছে আবাল!
করোনা কাল!
২০১৯-২০২০ পেরিয়ে ২০২১ সাল!
তবুও যেন নিরবতা সকাল-বিকাল!
দেশের অর্থনীতির হয়েছে করুণ হাল!
করোনা কাল!
কেউ মরে ভয়ে, কেউ ফেলে জাল!
সরকার দেয় ত্রাণ, তেল, লবণ, ডাল!
জনপ্রতিনিধি মারে খায় গরিবের পড়ুন
কবিতা | ৪ টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ১৮৩ বার দেখা | ৬৪ শব্দ ১টি ছবি
আলোকচিত্র » বাংলাদেশের ল্যাভেন্ডার ফুল
আলোকচিত্র » বাংলাদেশের ল্যাভেন্ডার ফুল
এবার শ্বশুর বাড়ীতে এই বেগুনি বুনোফুলের দেখা পেলাম। নাম দিয়েছি বাংলাদেশের ল্যাভেন্ডার। ফসলের ক্ষেতজুড়ে এই ফুল ফুটে আছে। এখানে সেখানে থোকা থোকা বেগুনি ফুল দেখে মনটাই আনন্দে ভরে উঠেছিলো। একটি ক্ষেত তো পুরাই এই ল্যাভেন্ডারের দখলে। শ্বশুরবাড়িতে এবার মাত্র চার দিন পড়ুন
আলোকচিত্র | ৫ টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ১৩৭৯ বার দেখা | ৬৬৬ শব্দ ২৬টি ছবি
কে তুমি?
দৃপ্ত পায়ে যাচ্ছো কোথায়
একটু দাঁড়াও ভাই,
কে তুমি?
কথাটির জবাব দিয়ে যাও।
শোন তাহলে –
কে আমি
শুদ্ধ আমি, শান্ত আমি
ভ্রান্ত আমি নয়। বেলি আমি, টগর আমি
ফুুলের রাণী নয়। পদ্মা আমি, মেঘনা আমি
গঙ্গা আমি নয়। তাঁরা আমি, জোনাকি আমি
আঁধার আমি পড়ুন
কবিতা | ৮ টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ১২৬ বার দেখা | ৮২ শব্দ
♥ প্রয়োজন
খোদা তোমায় নিয়ে গদ্য লিখতেছে
তুমি বিজ্ঞাপন হইয়া উঠতেছ
যেকোনো দুপুরে, যেকোনো সন্ধের দিকে
এমন ভাবে মুখোমুখি হয়ে উঠেছ
তোমায় চিনে ফেলবে লোকমুখ
মসৃণ কুয়াশার হরিণীঝোপে জোনাকি,
গৃহদালানের জানালা রেখার ওপাশে
রাত্রির দুহাত, হালটের জ্যোৎস্নাসম্প্রদায়
কবিতার অভ্যাসেও জড়ায়ে যাচ্ছ
আমি পাঠ করছি নীরবে, প্রয়োজনে-
মর্মরিত কোলাহল ভেসে আসার আগে
অদূরে ন্যাড়া ডালপাতার মতো তাকাই
মধুর তিক্ততা পড়ুন
কবিতা | ৬ টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ১২৩৮ বার দেখা | ৪৯ শব্দ
পদধূলি
পদধূলি
হাজার বছর পথ চলা কি? ভাবে শেষ হলো
পাখির কলরব জানলো না- বুঝল না মায়াময়!
অথচ পদধূলি ঘ্রাণটা এখন আকাশ মুক্ত!
ধোঁয়াটা ঘরবন্দী দক্ষিণা জালানাটাও মাটময়; তবুও সাদা মেঘ শুধু আকাশ জুড়ে ঘনঘটা,
হৃদয়ের বাঁকে ছবিটা রঙিন যেন সোনালি মাঠ। যে দিকে পড়ুন
কবিতা | ৮ টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ১৩০০ বার দেখা | ৬৯ শব্দ ১টি ছবি
রক্তে ভেজা একুশ
রক্তে ভেজা একুশ
একুশের রক্ত লেগে আছে
বাংলার পলাশ আর কৃষ্ণচূড়ায়,
লেগে আছে রাজপথে
আরো লেগে আছে দুঃখী মায়ের হৃদয়ে
একুশের আগমনে মনে জাগে সেই দিনের কথা
যে দিন আমার ভাইয়ের উপর পাকরা করছে
কত পাশবিক পৈশাচিকভাবে নির্যাতন
আজও মায়ের বুক কাঁদে পড়ুন
কবিতা | ৬ টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ২৮৪ বার দেখা | ১২১ শব্দ ১টি ছবি