কবিতা বিভাগের সব লেখা

জলের সন্ত্রাস
চারিদিকে জল যার সে আর কোথায় যাবে এই
অবেলায়, শ্রাবণের নিরুক্ত সন্ধ্যায় ? নিঃশ্বাসের
মত নিঃশব্দ, নির্জন পায়ে কারা যেন, জেনে নেই,
প্রতি রাতে এসে হানা দেয় পৌরাণিক বিশ্বাসের। মন্দিরে মন্দিরে ! তবু একদিন শেষ সাহসের
কনিষ্ঠ আঙুল ধরে ও- পাড়ার ধ্রুপদী পড়ুন
কবিতা | ০ টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ৩৫৯ বার দেখা | ১৫৪ শব্দ ২টি ছবি
মানচিত্র ফেটে গেলে
মানচিত্র ফেটে গেলে কেঁপে ওঠে কুমারীর মণি
সদরের দরোজায় কড়া নাড়ে বেখাপ্পা ব্যর্থতা
কি দিয়ে ঢাকব, বল, জীবনের আড়ষ্ঠ নগ্নতা
পাকা ধানে মই দিয়ে চলে যায় দুপুরের শনি। তীরন্দাজ ছোঁড়ে তীর, শিকারের দেহ ছিন্নভিন্ন
মহাপ্রস্থানের ছাপ পড়ে আছে নিরুদ্ধ সৈকতে
বিষাদের বরপুত্র ধাবমান শূন্যে, ছায়াপথে
চরাচরে বর্ম নেই, পড়ুন
কবিতা | ০ টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ৪২৬ বার দেখা | ৮২ শব্দ ২টি ছবি
অক্ষিরসে তুমি নেই
অকষ্মাৎ যেন খুলে গেলো আগলের ঝাঁপ
থাকে শুধু মারণ উদ্ভাস আকাশ- পাতাল।
ব্যাকরণে অনুক্ত সূত্রের তীখনো ফলা ছিন্ন করে
জরাজীর্ণ মোহ আমার। আর সুখ শীতের কুন্ডলী ধোঁয়া ছেড়ে
ফাল্গুন- বিকেল, দেখো, হিলহিলে সরীসৃপ
প্রজ্ঞা নিয়ে অস্তিত্বের একান্ত চাতালে প্রথম
জন্মের শেষ চিহ্ন রেখে যায়… শোন, কান পড়ুন
কবিতা | ০ টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ৩৪২ বার দেখা | ১০৯ শব্দ
বিদেহী বৃষ্টিপাত
প্রাগৈতিহাসিক মনসার কাল
এসে গতরাতে রেখে গেছে ইতিহাস
আমার অদৃশ্য গ্রন্থে, জানতে পারি নি। অবিমিশ্র চন্দ্রালোকে
নির্বাক নিহত আমি স্বপ্নহীন।
ভবিষ্যতশূন্য একটি জীবন
হয়তো এভাবেই ক্ষয় হয়ে যায়।
নিষিদ্ধ নির্মোহে আবৃত আমার তন্দ্রা।
পাপ- পূণ্য অর্থহীন। সমূহ আশ্বাস
কষ্ট হয়ে ঝরে পড়ে পড়ুন
কবিতা | ০ টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ৪১১ বার দেখা | ৪৯ শব্দ ২টি ছবি
সর্বনাশা
:: :: :: :: হায় ! এ তোমার কি সর্বনাশ, কেগো সর্বনাশা
তোমার পত্র- পল্লব, শাখা- প্রশাখা, কি দুরবস্থা
তোমার বক্ষের আবরণ কই, তুমি কি নগ্ন ?
আমার চোখে কি? …ছি…ছি নাহ্ এইতো ঠিক আছে;
ওগো, তোমার না অর্ধস্ফুট পুষ্প, ভ্রমরা আসতো পড়ুন
কবিতা | ০ টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ৪২২ বার দেখা | ২২৫ শব্দ ২টি ছবি
সপ্রতিভ যাতনা
যদি কোন দিন জানতে চায় ও এসে
ক্যামন আছো তুমি ? সেদিন যেন সকল যন্ত্রণা ছাপিয়ে
সকল বেদনা দমিয়ে দু’চোখে উপচে
উঠে আসা অশ্রুর প্লাবন প্রতিহত করে
নির্বিকার কন্ঠে বলতে পারি, আমি –
ভাল আছি, হ্যাঁ আমি ভীষণ ভাল আছি। ওর বিশ্বাসে গেঁথে যেন দিতে পারি পড়ুন
কবিতা | ০ টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ৩৬২ বার দেখা | ১৩১ শব্দ
মনোলগ… কবি শামস আল মমীন
রক্তসিথান। বইনের নতমুখ হুশিয়ার করে
এই মাটির খোয়াব শুভ নয়। কান
পাতি শুনি পিতৃপুরুষের জোরধ্বনি
এই মাটি তোর, এই তো মা- ভূমি। এই নুড়িপথ, জঙলার ফুল বরকল ছায়া,
পানছড়ি দিঘিনালা, এই মেঘমাখা
পাহাড় কর্ণফুলির চকচকা মাছ
নিত্য করে ছল মোর সাথে।
মুই মারমা মুরং।
মুই পড়ুন
কবিতা | ০ টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ৪০৮ বার দেখা | ২৩৫ শব্দ
অব্যক্ত কথা একদম সরল
অব্যক্ত কথা, যা কিনা বলা যায় না
পড়ে রয় মন মস্তিস্কের এক কোণে
ঠিক ফুলদানিতে জমানো
একগুচ্ছ পুস্পের মত। মনটাই বা কি চায় আমার কাছে
না কিছু লুকোয়, চায় কি কিছু পেতে,
নাকি পেয়ে হারাতে !! এত সব প্রশ্ন
তবুও ভাসা- ভাসা, মেঘের মত-
নয়তো পড়ুন
কবিতা | ০ টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ১৮৬৯ বার দেখা | ১৫৬ শব্দ
প্রবর্তনা
কে তোমার কাছে এসেছিলো কাল রাতে ? তুমি তো রমণী শুধু নও। তবু কেন জানালার
কার্নিশে চিবুক রেখে প্রলয়ের স্বপ্ন দেখো ?
বাতাসের গর্ভ থেকে-
প্রসূত জন্মের পাপ কখনও সম্ভব নয়
মুছে ফেলা। মোহনীয় দুটি হাতে
বরং এখনই তুলে নাও শর্তহীন ফল। ভৌতিক পড়ুন
কবিতা | ০ টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ৫৭৫ বার দেখা | ১১৫ শব্দ ২টি ছবি
যদি নির্বাসন দাও… সূনীল গঙ্গোপাধ্যায়
যদি নির্বাসন দাও, আমি ওষ্ঠে অঙ্গুরি ছোঁয়াবো
আমি বিষপান করে মরে যাবো!
বিষন্ন আলোয় এই বাংলাদেশ
নদীর শিয়রে ঝুঁকে পড়া মেঘ
প্রান্তরে দিগন্ত নিনির্মেষ-
এ আমারই সাড়ে তিন হাত ভূমি
যদি নির্বাসন দাও, আমি ওষ্ঠে অঙ্গুরি ছোঁয়াবো
আমি বিষপান করে মরে পড়ুন
কবিতা | ০ টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ৭৬৯ বার দেখা | ২০৪ শব্দ ২টি ছবি
রাত্রি নিয়ে কবিতায় প্রলাপ
একটি রাত্রি বাসা বাঁধে এই বুকে
একটি রাত্রি মহাকাশে মেলে ডানা
নির্জনতায় অন্ধকারের শিখা
করোটিতে জ্বালে বুনো গন্ধের ভয়। একটি রাত্রি নদী নয়, তবু নদী
আরক্ত কষ্ট গড়ে নিরুক্ত দ্বীপ
কষ্টকে কেউ চেনে না বিশ্বময়
তাবৎ পুরাণ ঘেঁটেও গ্রন্থাগারে। কম কথা নয় সমুদ্রপাড়ি পড়ুন
কবিতা | ০ টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ২০৬৩ বার দেখা | ১১১ শব্দ ২টি ছবি
কেন ডাকো
তবু কথা থাকে
বলেছেন একজন। সন্ধ্যের পরেও কথা থাকে;
রক্ষিতার মত সঙ্গোপনে রাতের নির্জন কথা
দুপুরের শেষ মৃত্যুর পরেও থেকে যায় অপরাহ্নের সংলাপ। কোন এক গোপন ঈঙ্গিতে চারটি চোখের রঙ বদলে- যাওয়ার মত
আবেশে স্পন্দিত, বৃষ্টির পরেও মেঘ-মেঘ আকাশে ভাসে
শুভ্র কথার পড়ুন
কবিতা | ০ টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ৫২৬ বার দেখা | ১০১ শব্দ ২টি ছবি
আজ আমি শান্ত
আজ আমি শান্ত।
থামিয়ে দিয়েছি আমার জীবনের সকল বসন্ত;
আজ আমার জীবন হয়েছে পুষ্প-শূন্য
শীত বৃক্ষের মতো। দেখে যাও আমার জীবনের গোধূলি- বেলা
যেখানে আছে শুধু আলো- আঁধারের খেলা
ডুবছে যেন অন্ধকারে বানানো কঠিন ভেলা
কি ত্রুটি ছিলো আমার অচেনা সুরের মেলা। হায় !! একেলা তিমিরের পড়ুন
কবিতা | ০ টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ৬৯৩ বার দেখা | ১৩০ শব্দ
ধ্রুপদী
দূর- দিগন্ত কুয়াশায় যায় ঢেকে
কনে- দেখা- আলো ধূসর ঘোমটা টানে
কড়ি ও কোমলে, প্রদোষের অভিষেকে
শিশিরের সুর বাজে মৃদঙ্গ- তানে। পৃথিবীর শেষ প্রান্তিক তটরেখা
অবগুণ্ঠিতা প্রসারিত মহাকাশে
ময়ূরপুচ্ছ জলের চিত্রলেখা
উধাও অতীতে অতুল সর্বনাশে। ভৈরবীদের ব্যাপ্ত জটার চুলে
সিজ্জিন- কাল বিদিশার নিশা পড়ুন
কবিতা | ০ টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ৫৩৪ বার দেখা | ১৪৭ শব্দ ২টি ছবি
বর্ণমালা, আমার দুঃখিনী বর্ণমালা- শামসুর রাহমান
নক্ষত্রপুঞ্জের মতো জলজ্বলে পতাকা উড়িয়ে আছো আমার সত্তায়।
মমতা নামের প্রুত প্রদেশের শ্যামলিমা তোমাকে নিবিড়
ঘিরে রয় সর্বদাই। কালো রাত পোহানোর পরের প্রহরে
শিউলি শৈশবে ‘পাখী সব করে রব’ ব’লে মদনমোহন
তর্কালঙ্কার কী ধীরোদাত্ত স্বরে প্রত্যহ দিতেন ডাক। তুমি আর পড়ুন
কবিতা | ০ টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ৬৯৩ বার দেখা | ২৫৫ শব্দ ২টি ছবি