কবিতা বিভাগের সব লেখা

আমার আমিতে

ঘুমের মধ্যে কড়া নাড়ার শব্দ
কে আমাকে এমন করে ডাকে
গোটা পাড়া নিঃসাড়, নিস্তব্ধ
সম্পূর্ণিমা স্বপ্নে বিঁধে থাকে জ্যোৎস্নার কাছে রাত্রি সমর্পিতা
মহার্ণবে অলৌকিক আল্পনা
কল্পনা নয় শিল্পের আশ্রিতা
অন্ধ বনে নিঃশর্ত মুর্চ্ছনা শরীর জুড়ে রূপোলী বৈভবে
নিশুতি রাত বিমুগ্ধ, বিষ্মিত
নগ্নিকারা পড়ুন
কবিতা | ০ টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ৩৩৮ বার দেখা | ৭৭ শব্দ ২টি ছবি
মন্দ্রসপ্তক
কেবলই পিছিয়ে যায় নীলিমারা দূর থেকে দূরে
গ্যালাক্সির ঘুরপথে পথ খোঁজে অমোঘ কুয়াশা
অসহ্য বদ্বীপ ডাকে ব্যর্থতাকে শূন্য অন্তঃপুরে
পোকা- মাকড়ের চোখে ছায়া ফেলে নীরক্ত পূর্বাশা ঈষদুষ্ণ অন্ধকারে বৃষ্টি ঝরে নিরর্থক মন্ত্রে
চন্দনের বনে ব্যর্থ গবেষণা ফেলে দীর্ঘশ্বাস
আমিষের সারবস্তু পাক খায় পড়ুন
কবিতা | ০ টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ২৯৫৯ বার দেখা | ১২৮ শব্দ ২টি ছবি
মনে নেই ...
কবে দেখেছি ফুল মনে নেই
কবে শুনেছি গান ভুলে গেছি
মনের ভেতরে এখনও ভাসে
মতিহার। সবুজ ঘাসের ডগায়
চোখ রেখে কেটেছে সময়।
ধীর পায়ে নেমেছে সন্ধ্যা
আঁধারে পেয়েছে অন্যের শরীর। এখন সকাল হয় সময় ঘোড়দৌড়ে
দ্রুত আসে রাত। স্বপ্নে আলোকিত
হয় না প্রহর প্রলম্বিত। মাঝে পড়ুন
কবিতা | ০ টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ২৭০ বার দেখা | ৬৫ শব্দ
দেখা হলো
সেই যে দেখা হয়েছিলো মেলায়
কি তুমুল ভিড় ছিলো
ধূলোয় চোখমুখ সমস্ত শরীর
ছিলো একাকার। পাশাপাশি একেবারে গা ঘেঁষে
চলেছিলাম আমরা
শরীরের ভিতর একটা
আদিম শিহরণ তুলে। পাতায় কান রেখে শুনেছি বৃক্ষের কথা
তার বেড়ে ওঠা আহার নিদ্রা
সব। গাছেরা উদার হয়
অহংকার থাকে না কোন। বাতাসে শরীর ডুবিয়ে
বাড়ায় শাখা প্রশাখা
কাকেরা শাখায় ঘর বাঁধে
পরম বিশ্বাসে-
তার শেকড় পড়ুন
কবিতা | ০ টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ২৬৬ বার দেখা | ৯৭ শব্দ
দেখা হবে
আমার কথায় একদিন তুমি সাগর
মন্থন করে আনতে পারতে অমৃত
ঝাঁপ দিতে পারতে আগুনে।
তোমার যাত্রা সমুদ্রের দিকে
তুমি চেয়েছো পূর্ণতা। রাতের আকাশ থেকে প্রতিদিন
শব্দ ভেসে আসে, আমি আপ্লুত হই
নক্ষত্রেরা চুপি চুপি কথা বলে
বলে রাতের মোহনীয় রূপের কথা। আমি নক্ষত্রের কথা শুনে ঘুমের মধ্যে
হাঁটতে থাকি –
হাঁটতে হাঁটতে পড়ুন
কবিতা | ০ টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ৪০৩ বার দেখা | ১১৩ শব্দ ২টি ছবি
শ্রাবণের বৃষ্টি
কখনো দু’চোখ ভরে দেখেছো
শ্রাবণের বৃষ্টি ? দেখেছো কিভাবে মেঘের
বুকের ভেতর লুকিয়ে থাকে
জল। কখনো দেখেছো
রাতের আকাশ ? ভোরের চুমুতে কিভাবে
লুকায় স্বপ্ন, বৃক্ষ বিলায়
প্রেম। রাতের দীর্ঘ
খোয়াবের পর এসো বুকের
দরজা খুলে খুঁজি
ফুল- মাটি- শস্য। কখনো দু’চোখ ভরে দেখেছো
শ্রাবণের বৃষ্টি ? পড়ুন
কবিতা | ০ টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ১১৬৩ বার দেখা | ৩৩ শব্দ
পথের ঠিকানায়
মাঠ পেরোলেই গাঁ
যেখানে এক বৈষ্ঠমী হঠাৎ
এসে আগলে দাঁড়িয়েছিলো
পথ, বলেছিলো বৈষ্ণব হবি ? যাবি নাকি আমার সাথে পথের ঠিকানায় ?
কি ছিলো তার চোখে
আমার মুখে কথা সরেনি। আমার বুকের ভেতর কষ্ট হয়
ভীষণ কষ্ট। আমার দম বন্ধ
হয়ে আসতে চায়। পড়ুন
কবিতা, বিবিধ | ০ টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ৪৪১ বার দেখা | ১০৩ শব্দ ২টি ছবি
বৃষ্টি তোমার জন্য
হঠাৎ বৃষ্টি উড়ে এসে
ভেজালো চুল
কোন কিছু না বুঝেই
ফেরালাম চোখ;
দেখি দাঁড়িয়ে আছো তুমি
অপলক দেখছো আমায় –
দৃষ্টিতে লোভ নেই
আছে বিষণ্ণতা।
ওষ্ঠরেখায় নেই কৌতুক
জানি তুমি ভুলে গেছো
বর্ষা এলে যেমন
সবাই ভুলে যায় চৈত্রকে। বৃষ্টির জন্য আকুল ছিলে তুমি
বৃষ্টি এলো।
সবুজের জন্য আকুল হলে তুমি
বসন্ত এলো।
তোমার জন্য আকুল হলাম পড়ুন
কবিতা | ০ টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ১৪৩৭ বার দেখা | ৮১ শব্দ ২টি ছবি
নির্বাসনে ভালোবাসার হিসাব মেলে ভালো‏
তুমি যে ভূখন্ডের সাজানো ঘরে বসে
ভালোবাসার ঠোঁটে চুমু খাচ্ছো
আমি তারই সীমান্তে এসে পৌঁছেছি আজ সকালে। এখন মধ্য প্রহর
মাথার উপর সুকান্ত সূর্য সোনা রং তার আলো,
কানে সমুদ্র গর্জন, গাংচিল পাখার মায়াবী কথন। পাঁজরের হাড় যেনো সেতারের চিকন তার
সেই তারে তোমারি বিরহের সুর বাজে বার পড়ুন
কবিতা | ০ টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ৪৪৫ বার দেখা | ১৯৭ শব্দ ২টি ছবি
ত্রিজ... কবি মাসুদ খান
মধ্যরাতে ভয়ে ভয়ে চোখ তুলে দেখি,
অসংখ্য প্রিজম ফুটে আছে পুনর্ভবা নদীপারে
আর ঠিক ডাঙায়, জলের সমতলে,
হাওয়ায় হাওয়ায় করতালি-
অবিশ্রাম বর্ষণের মধ্য দিয়ে
তুখোড় তরুণ আলোকের অধ্যাপনা ভেসে যায়।
ধীরে ধীরে বিবর্তিত হতে থাকে রং
এত রং, এত আলোবিচ্ছুরণ,
লোভাক্রান- পড়ুন
কবিতা | ০ টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ৪২৬ বার দেখা | ২৪১ শব্দ ৪টি ছবি
পূর্ণ প্রহেলিকা
অন্ধকারে তোমার হাসির
বিদ্যুতে আর স্বর্ণলতার
ঢেউ- খেলানো আলিঙ্গনে
ঝলসে উঠে মধ্যরাতের
হাস্নাহেনার মদির গন্ধ। একটি স্থবির প্রহর- রন্ধ্রে
পাঁপড়ি- মেলা অনুভবে। কোন অন্তহীন নীলিমার জগতে
বিচরণ করো মূহুর্তের পলকে
লাল নয়, কালো নয়
শুধু শূন্য ও সাদায়। পৃথিবীর পাথারে করি স্নান
ভোরের শুকতারার ঈশারায়
স্বপ্নের পূর্ণিমা রাতে রথে চলি। নক্ষত্রের মুকুট মাথায় পরে
আমার শ্বেত পড়ুন
কবিতা | ০ টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ৩৫৭ বার দেখা | ৬২ শব্দ ২টি ছবি
চন্দ্রবরণ ... শেলী রহমান
এই তো সেদিন
পিচ ঢালা রাস্তায় জলপাঁই কুড়ালাম
ছিপ ছিপ সন্ধ্যায় গুড়ি গুড়ি বরষায় ভিঁজে !
কেউ ছিল না পাশে অথবা অন্য কোথাও !
তবু কে জানি পিছু পিছু পায়ে পায়ে ফিরে আসে বারবার !
কিন্তু এমন তো হবার নয় !
পঁচিশ বছর আগে সে আবেগ মূছে পড়ুন
কবিতা | ০ টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ৪৫২ বার দেখা | ১৩৮ শব্দ ২টি ছবি
মানসান্ক
অনেকটা রাস্তা ক্লান্তিহীন পেরিয়ে এসে
অবশেষে অন্ধকারের উপত্যকায়
আমি আবিস্কার করি আমাদের নিজস্ব নিয়তি। মুঠোবন্দী চাঁদের শীৎকার
শীতল উত্তাপে আমাকে নিয়ত দগ্ধ করে। অচিহ্নিত অস্তিত্বের অনন্ত আশ্লেষে
আমার সত্ত্বায়, চেতনায়
বিমূঢ় বিষ্ময়ে আমি অনুভব করি
এক রুদ্ধগতি;
ঈগলের নাভিশ্বাস ডানা- ঝাপটানি। জাগতিক ক্লেদ- গ্লানি পড়ুন
কবিতা | ০ টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ২৯৮ বার দেখা | ৬৬ শব্দ ২টি ছবি
জলের সন্ত্রাস
চারিদিকে জল যার সে আর কোথায় যাবে এই
অবেলায়, শ্রাবণের নিরুক্ত সন্ধ্যায় ? নিঃশ্বাসের
মত নিঃশব্দ, নির্জন পায়ে কারা যেন, জেনে নেই,
প্রতি রাতে এসে হানা দেয় পৌরাণিক বিশ্বাসের। মন্দিরে মন্দিরে ! তবু একদিন শেষ সাহসের
কনিষ্ঠ আঙুল ধরে ও- পাড়ার ধ্রুপদী পড়ুন
কবিতা | ০ টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ৩৩৬ বার দেখা | ১৫৪ শব্দ ২টি ছবি
মানচিত্র ফেটে গেলে
মানচিত্র ফেটে গেলে কেঁপে ওঠে কুমারীর মণি
সদরের দরোজায় কড়া নাড়ে বেখাপ্পা ব্যর্থতা
কি দিয়ে ঢাকব, বল, জীবনের আড়ষ্ঠ নগ্নতা
পাকা ধানে মই দিয়ে চলে যায় দুপুরের শনি। তীরন্দাজ ছোঁড়ে তীর, শিকারের দেহ ছিন্নভিন্ন
মহাপ্রস্থানের ছাপ পড়ে আছে নিরুদ্ধ সৈকতে
বিষাদের বরপুত্র ধাবমান শূন্যে, ছায়াপথে
চরাচরে বর্ম নেই, পড়ুন
কবিতা | ০ টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ৩৮২ বার দেখা | ৮২ শব্দ ২টি ছবি