কবিতা বিভাগের সব লেখা

ঠোঁটে তালা মেরে আর কতদিন
ঠোঁটে তালা মেরে আর কতদিন
তালো খুলো, চায়ের কাপ ছোঁয়াও এবার ঠোঁটে
এমন চুপচাপ নিরবতা ভালো নয় মোটে,
কথা বলো অনর্গল
ছেটে ফেলো মন বাগানের দ্বিধার ঝোপঝাড় জঙ্গল! ভোরের আকাশে কুয়াশা ওড়ছে
দেখো কিচিরমিচির পাখিরা গাইছে ঘুরছে,
লালাভার ছায়াতলে বসে চা খাবে?
আশাকরি চুপ থাকার স্বভাব বদলাবে! সময় গুলো হলো না তোমার আমার,
দু’জনার পড়ুন
কবিতা | ২ টি মন্তব্য | ৫৪ বার দেখা | ১২৮ শব্দ ১টি ছবি
তোমাকে চিনেছি আমি
তোমাকে চিনেছি আমি
তোমাকে চিনেছি আমি
ভোরের শিশির
নৈশব্দের দীর্ঘশ্বাস তুমি
কান্না নিরবধির ছুঁয়েছো কবির অন্তর
আতপ্ত হাতে
যৌবনন্ধ দাবীর দুর্মার
অনল নেভাতে, প্রজ্বলিত চিত্তে বেমালুম
হই মুখোমুখি
সুডোল বুকের উষ্ণতার
দিয়েছো ফাঁকি! নাকি এমনিই তোমার
স্বভাব? মমতার
হাতছানিতে পোড়াও কাবাব।
সারা রাত
নির্ঝর শিশির প্রপাত,
আমি চিনেছি তোমাকে-
বুকের ভেতর বেহিসাব আঘাত। পড়ুন
কবিতা | ২ টি মন্তব্য | ৫৬ বার দেখা | ৩৩ শব্দ ১টি ছবি
প্রণয়ের আঁধার
প্রণয়ের আঁধার
যা রে অন্তর বসে দিলাম!
কইতর পাখি বাসার মতো
অন্তর খসে জ্বলা দিল,অন্তর্যামী
আমি কি করে যে বাঁচছি-
বাঁচার স্বাদ এখন প্রণয়ের অনল;
ইটভাটা বুকের গভীরে সচল। বিকাল ছিল, রঙে রঙে রঙধনু আকাশ
সবুজ ঘিরা মাঠ আর মাঠ- ধূলি
বালি খেলার প্রাণ চঞ্চল উঠান;
সবই আজ সাদা মেঘে পড়ুন
কবিতা | ৪ টি মন্তব্য | ৫৩ বার দেখা | ৫৬ শব্দ ১টি ছবি
একদিন তোমাকে
একদিন তোমাকে কবিতার কথা বলেছিলাম
বলেছিলে, প্রীতিলতা, সূর্যসেন, তিতুমীর ওদের বলো;
আমি কোনো কিছু বলতে পারিনি!
বলতে পারিনি, ঠাট্টা ছলে তুমি সেদিন যথার্থ বলেছিলে
প্রত্যেকটি কবিতাই এক একটি জ্যান্ত বিপ্লব !! বলতে পারিনি আমার কাছে ভালোবাসা আর বিপ্লব
একই ফুলে গাঁথা মালা!
কবিতা কোনোদিন কালোকে সাদা বলে না
কবিতা কোনোদিন হেমন্তকে পড়ুন
কবিতা | ২ টি মন্তব্য | ৪২ বার দেখা | ৯০ শব্দ
সুখ মেলে শ্রমে ঘামে
সুখ মেলে শ্রমে ঘামে
সুখের রজনী পাবে গো সজনী
শ্রম-ঘাম ফেলে যাও,
কখনো না তবে বিফল না হবে
ফল হাতে হাতে নাও। তব ঘামখানি দিয়ে হাতছানি
বলে ‘নিয়ে যাও সুখ’
অলসতা জেনো দুখ দেয় মেনো
তারি দাহে পুড়ে বুক। ঘাম ঝরে বলে সুফল যে ফলে
সুখের প্লাবন নামে,
শ্রমের বদলে দুখ যায় চলে
সুখের পড়ুন
কবিতা | ১টি মন্তব্য | ২৯ বার দেখা | ৮৮ শব্দ ১টি ছবি
সৌদামিনি, আপনার অপেক্ষায়
সৌদামিনি, আপনার অপেক্ষায়
সৌদামিনি কেমন আছেন ?
আমি ভালো নেই আপনাকে ভেবে।
অনেক দিনই ত গত হলো
কই আপনার দেখা পেলাম না।
কোথায় আছেন, কেমন আছেন
এই ভাবনায় দিন কাটে না আমার। আপনার যা গত হয়েছে প্রায় চার যুগ আগে,
আমার কাছে সেটা বর্তমান !
আমি এখনও নিরব চিৎকার শুনি বুকের পড়ুন
কবিতা | ১টি মন্তব্য | ১৮ বার দেখা | ১৩০ শব্দ ১টি ছবি
আমাদেরও দেখা হবে
আমাদের দেখা হওয়ার কথা ছিল, আসোনি শেষ পর্যন্ত,
আহা আমাদের সময়গুলো ছিল কতই না প্রাণোবন্ত
তুমিই দিয়েছিলে ফিরিয়ে, ভুলে যাওয়া দিগন্তে প্রেম গিয়েছে ফিরে,
আমাদের আর দেখা হবে না ভাবছো তাই, দুঃস্বপ্ন আছে ঘিরে। আমাদের সময়গুলো থেমে আছে সেই অতীত প্রেম কাব্যে,
এই তুমি কী সেই জীবন নিয়ে আরেকবার পড়ুন
কবিতা | ১টি মন্তব্য | ৩৬ বার দেখা | ১৭৪ শব্দ
দায়মুক্তি
দায়মুক্তি
দায়মুক্তি দিলাম
উড়ে যা পরিযায়ী, নাইবা পেলাম ফিরে
দূর অতীতের ধানসিঁড়ি,
আলের পথে ওম মাখা ঘাসফুলের যৌবন;
যে বুকে তীক্ষ্ণ ঠোঁট ঠুকে ঠুকে
অজস্র কবুতর করেছে শস্য আহরণ-
ধরে নিলাম অসংখ্য রক্ত কণার মত
সঞ্চয়েতে ঠায় নিয়েছে একটি ধ্রুপদী চুম্বন! পড়ুন
কবিতা | ১টি মন্তব্য | ৩৮ বার দেখা | ৩৪ শব্দ ১টি ছবি
বিভ্রম চিত্রদাগ
বন হরিণের চিত্রদাগে এজমালি চাঁদ নিয়ে
বনসান্নিধ্যে হেঁটে যাও-নদী, প্রসূত জলে-
এত মাছগন্ধি স্নেহের শরীর তোমার
ঝিনুকের থকথক সুরে চুল ভেজানো নারী
কলাপাতা সবুজ রঙের বিস্ফারিত মাঠ
বুনোফুলের শিশির-সাম্পান ছিঁড়ে নড়ে
আমন বিকেলের মলাটে ষোড়শী কাঁচের বাক্স আবহপাখির ডানায় জরির মতো এসে
এই লাল বাড়িটার হাওয়ায় বসে বসে
লিখে যাচ্ছে একটা সুগন্ধি লেবুগাছ, পড়ুন
কবিতা | ১টি মন্তব্য | ৩৫ বার দেখা | ৫৮ শব্দ
এখন কবিতা লিখি না - ৮
নিজেকে আবিষ্কার করি এক মহাশ্মশানে তুমুল বজ্রপাত আমায় গেঁথে ফেলেছে মাটির সঙ্গে
পোড়া গাছের মতো দাঁড়িয়ে আছি দেখছি করোটির স্তুপ
কবন্ধে রক্তের ফোয়ারা
কোটি কোটি মুদ্রার পত্তনিদার জ্বালিয়েছে চিতা সদম্ভ পদচারণা করে
যত দুঃশাসনের চেলা –
তত পুতনা –
আর বারোভাতারি স্বৈরাচারীর তর্জনী করে খেলা পড়ুন
কবিতা | ১টি মন্তব্য | ২৫ বার দেখা | ৪১ শব্দ
নৈশ অভিযান
নৈশ অভিযান
রাতের তারারা জ্বলজ্বল করে আকাশে
চাঁদের আলো মেঘের ফাঁক দিয়ে উঁকি মারে।
পাইন গাছের মাথায় বাতাসের কারচুপি
গাছের ছায়া পড়ে বাড়ির চালে আর আশেপাশে।
তিরতির বয়ে চলা নদীর জলে মৃদুমন্দ ঢেউ
পার্শ্ববর্তী শহরের আলোয় চিকচিক করে।
এমনি একটি রাতে তোমার হাত ধরে হেঁটে গেছি
অনেক দূর দেবদারু পড়ুন
কবিতা | ২ টি মন্তব্য | ৪৩ বার দেখা | ৫৬ শব্দ ১টি ছবি
যুদ্ধের প্রকার
যে জনম পুনরায় খুঁজি ড্রোনসভ্যতার ভেতর-
তার কোনো চৌহদ্দি নেই। অসীম আত্মার মায়া
আমাকে শিখিয়েছে যে প্রেম,
তাকে অনেক আগেই ভাসিয়েছি বিসর্জনসন্ধ্যায়—
আর পাঁজরকে বলেছি, যুদ্ধে না থাকলে মন ভালো থাকে না। প্রেমযুদ্ধ, অস্ত্রযুদ্ধ, অর্থযুদ্ধ,
আরও কত প্রকারের যুদ্ধ। সব যুদ্ধই দখলের। সব হত্যাই
ক্রন্দন ও ধ্বংসের প্রতিভূ
আমি মাঠ’কেই আমার পড়ুন
কবিতা | ৩ টি মন্তব্য | ৪১ বার দেখা | ৫৮ শব্দ
দুঃখ তো আস‌বেই
পাহাড় সম কষ্ট এ‌সে ও‌ড়ে বস‌তে পা‌রে ম‌নের দাওয়ায়,
কিছু বিষাদ আস‌তে পা‌রে বৈরী হাওয়ায়
কষ্টগু‌লো সাম‌য়িক ভে‌বে উ‌ড়ি‌য়ে দি‌তে হয়
মন‌কে শান্ত না রাখ‌লে সময় হ‌য়ে যা‌বে লৌহময়। কখ‌নো কা‌রো অব‌হেলা,
বস‌তে পা‌রে ম‌নের মা‌ঠে বিরহ মেলা,
হেলার ভেলা হ‌তে পা স‌রি‌য়ে নি‌তে হয় ত্বরা
নই‌লে মন জ‌মি‌নে দে‌বে দেখা পড়ুন
কবিতা | ২ টি মন্তব্য | ৫০ বার দেখা | ১৬৭ শব্দ
আত্মখুনী
আত্মখুনী
প্রায়শই অভিযোগ শুনি
করোটিতে আগুন ধরিয়ে আমি নাকি আত্মখুনি!
গনগনে আগুনে
অনেকেই তো ঢেলেছো জ্বালানি
পুড়িয়েছ অসংখ্য রজনী, জ্বলজ্বলা মদ,
মনে মনে আজো ঢালছো দহনের রসদ! অভিযোগের বিপরীতে
কখনোই করা হয়নি অভিবিয়োগ!
যদিও
পোড়া লাভা স্রোতে ডুবেছে সবুজ উদ্যান
ডুবেছে অবুঝ হৃদয়, বিগলিত জ্যোতস্না রাত
প্রাণের অভ্যন্তর
ডুবে গেছে অসংখ্য স্বপ্ন; কবিতার পড়ুন
কবিতা | ১টি মন্তব্য | ৩৮ বার দেখা | ৪৭ শব্দ ১টি ছবি
রূপালি বরফের আগুন
এ শহরে অ্যাম্বুলেন্স হুইসেল বাজালে
নিঃশ্বাস গাঢ় হয়, রোজ অনতিদূর
ছুঁয়ে যায় এমন শান্ত আঁচড়ের দাগ-
চকের গুড়োয় শাদা বাড়িটার নির্জনে
এক ধরনের শীতল সমতল ধরে
রূপালি বরফের আগুন ছেঁকে দেয়
সমস্ত বাড়ির দরোজা, বহুদূরের পথ- অচিরেই বিক্ষত আকাশ নেমে আসে
ধুলট শহর নিয়ে জিরাফের গলাসম
যেটুকু ছিল পালকে আশ্রয় এখানে
বঙ্কিম সাঁতারে সমুদ্র পড়ুন
কবিতা | ১টি মন্তব্য | ৩২ বার দেখা | ৫৪ শব্দ