কবিতা বিভাগের সব লেখা

কথার বন্যা
কথার বন্যা
গর্বে অহংকারে
ভরে উঠেছে নদ নদী!
খর স্রোতে ভাঙ্গছে-
বুক পাঁজর-তবু দুঃখের
অন্ত নেই! খর মুখে
অভিনয়ে যত সব খেলা!
যতদূর সুখের ভেলা;
মাথা নেই যার দুপুর বেলা
কে সুধায় রাতের কায়া
মেঘ বৃষ্টি চেয়ে থাকে সোনা
গর্বে অহংকার ভরে যায়-
কনটুসি দেহের ভাজে কান্না
কে শুনে কথার বন্যা। ১১আষাঢ় ১৪২৯, ২৬জুন’২২ পড়ুন
কবিতা | ৪ টি মন্তব্য | ৫৬ বার দেখা | ৩৯ শব্দ ১টি ছবি
একটু ফিরে চাও
একটু ফিরে চাও
ডাক বাক্সগুলো কেঁদে বলে
হে পথিক একটু ফিরে চাও,
আমি এখন কর্মহীন বেকার
আমার বাক্সে চিঠি দাও। আমি ছিলাম খুবই ব্যস্ত
তোমাদের সেবায় নিয়োজিত,
আধুনিক প্রযুক্তির যুগে
আমি হলাম এখন অবহেলিত! একসময় যখন ছিলো না
এই আধুনিক তথ্যপ্রযুক্তি,
আমাকে ছাড়া তোমাদের কেউ
হতোনা পেতও না কখনো মুক্তি! তোমাদের দেওয়া চিঠি পড়ুন
কবিতা | ৬ টি মন্তব্য | ৭৮ বার দেখা | ১৫০ শব্দ ১টি ছবি
শিল্পিত খোয়াবনামা
প্রতিদিন চক্রনাভি ছিঁড়ে বেরোচ্ছে
-বিদগ্ধ নগরে, গাঢ় শাদা রাজহংস
ধূসর পালকে হাওয়া জুড়ে ছোটে
উত্থাপিত রুপোলী মুখ বহুবার এসে
যেভাবে চোখের ওপরে ইশারা পড়ে হরিণ ক্ষুরো লম্ফঝাঁপে বেড়ে ওঠা পা
ফড়িং অথবা ফুলের রেণুমাখা বীজ-
এই সাঁতারু বৃক্ষ বটগাছের নিচে-
তরুণ শব্দের শিল্পিত খোয়াবনামা
লেখা ছিল সৌন্দর্য ভালবাসি। পৃষ্ঠা থেকে-
ঊর্ধ্বমুখি ছায়া আঁকানো প্রিয় পড়ুন
কবিতা | ১টি মন্তব্য | ৫৯ বার দেখা | ৪৬ শব্দ
অস্তগামী
অস্তগামী
সকাল থেকে রাত শুধু তোমাকেই দেখি
দেখতে দেখতে হয়রান হই
তোমার উজ্জ্বল মুখ, মায়াভরা চোখ
সবই কি আমার জন্যই ? বাস্তবতা হারিয়ে হতাশা আঁকড়ে ধরতেই
তোমার দিকে ফিরে তাকাই।
তোমার নীরব চোখদুটো হেসে বলে,
ভয় কি ? আমি ত আছি। আমি ত তোমায় ভালোবাসি তবে
কেন এত ভেঙে পড়ো পড়ুন
কবিতা | ১টি মন্তব্য | ৩৮ বার দেখা | ৫৯ শব্দ ১টি ছবি
জর্জ ফ্লয়েড
ভারোত্তোলনের গল্প শুনলেই আমাদের পাহাড়ের কথা
মনে পড়ে। যারা পর্বত কাঁধে নিয়ে ঘুরে-
তাদের কাছে আকাশকে খুবই তুচ্ছ মনে হয়।
তারা জানে, মানুষের রক্তের রং চিহ্নিত করেই
এই বিশ্বে একদিন উড়েছিল সাম্যবাদের পতাকা। তারপরও সকলের ভোটের মূল্য সমান নয়-
জানতে জানতেই এই পৃথিবীতে বেড়ে উঠে শিশু,
শত চেষ্টা করেও রাজনীতিকরা বদলাতে পড়ুন
কবিতা | ২ টি মন্তব্য | ৩৯ বার দেখা | ৯৪ শব্দ
আকাশে আর মেঘ নেই
আকাশে আর মেঘ নেই
আকাশে মেঘ নেই, রোদ্দুর অতি,
সময় দ্রুত উড়ে, যেন সে প্রজাপতি,
আকাশ দেখতে গিয়ে হোঁচট খাই
সময় পারি না ধরতে, সময় যে আমার হাতে নাই। আকাশের রঙ বদলায়, বদলায় জীবনের রঙ,
এই পৃথিবী যেন পেরেশানির আড়ঙ;
অফুরন্ত অবসর আর পাই না খুঁজে
আর পারি না রাখতে আকাশে পড়ুন
কবিতা | ১টি মন্তব্য | ১৬০ বার দেখা | ১১৮ শব্দ ১টি ছবি
কেউ প্রাপ্তি স্বীকার করে না
কেউ প্রাপ্তি স্বীকার করে না
কোন্‌ দিক দিয়ে দিন যায়, কোন্‌ দিক দিয়ে
রাত যায়, কেউ গুনে রাখে না আঙুলের কড়;
তবুও তিলতিল করে গড়ে উঠে জীবন পাথর,
মাঝে মাঝে বুঁদবুঁদ ছুঁয়ে যায় স্মৃতির মিনার
অবলীলায় আমি হেসে উঠি একবার, আবার
কেঁদে উঠি আরেকবার; পালকের পর পালক
খসে খসে পড়ুন
কবিতা | ১টি মন্তব্য | ৩৩ বার দেখা | ৮৯ শব্দ ১টি ছবি
পদ্মা সেতু ও দখিনের দুয়ার...
পদ্মা সেতু ও দখিনের দুয়ার...
পদ্মা সেতু আর স্বপ্ন নয় বাস্তব,
এক সময়ের স্বপ্নের সেতু এখন দৃষ্টির সীমায় দিগন্তজুড়ে দাঁড়িয়ে,
পদ্মার তীর থেকে দেখা যাচ্ছে পিলারের দীর্ঘ সারি,
তার উপর একে একে বসানো হচ্ছে ইস্পাতের কাঠামো সব মিলিয়ে প্রায় চার কিলোমিটার দৃশ্যমান।
পদ্মা সেতু শুধু রড, সিমেন্ট ও পাথরের পড়ুন
কবিতা | ১টি মন্তব্য | ১০৬ বার দেখা | ১৯৯ শব্দ ১টি ছবি
স্বপ্নের পদ্মাসেতু
স্বপ্নের পদ্মাসেতু
পদ্মায় জেগে উঠেছে বাংলাদেশে স্বপ্নের পদ্মাসেতু,
বিশ্ববাসীর মাথায় আঘাত হেনেছে যেন ধূমকেতু! বিশ্বব্যাংক বলছে, ‘হায় হায় শেষপর্যন্ত এ কী হলো’!
মুজিব কন্যার প্রচেষ্টায় পদ্মাসেতু হয়েই গেলো? এই হচ্ছে জাতির পিতার স্বপ্নের সোনার বাংলা,
আমরা বীর বাঙালি রুখবো আসুক যত ঝামেলা। শত বাধা অতিক্রম করে পড়ুন
কবিতা | ৩ টি মন্তব্য | ৬৭ বার দেখা | ৬৭ শব্দ ২টি ছবি
পথের ডাক
পথের ডাক
আমরা হেরে যাচ্ছি, বদলে যাওয়া মুখ দেখে প্রতিনিয়ত মরে যাচ্ছে বেঁচে থাকার সাধ।
গল্পের থালাগুলো শূন্য পড়ে আছে, নৈঃশব্দের ঘরে ঘরে না পাওয়ার হাহাকার।
স্মৃতিগুলো ফেলে দিতে পারিনি যেভাবে তুমি ফেলে দিয়েছো সুখের রাত।
হেরে যেতে চাই বলে জিতে যাওয়ার পড়ুন
কবিতা | ৩ টি মন্তব্য | ৪০ বার দেখা | ৯৭ শব্দ ১টি ছবি
বে-নামী কবিতা
বে-নামী কবিতা
বন্ধু গন
তোমাদের ভ্রু কুঁচকানোর মত কোন সত্য প্রকাশ করবো না
তোমরা বিস্মিত হলে আঘাত লাগবে আমার ক্ষুদ্র মনুষ্যত্বে;
আমি ক্ষুদ্র
হত দরিদ্র, ছাই পোষা মানুষ
গেও ভুতের বোঝা আর ঘি হজম না হওয়া কুত্তার কাতারে দাঁড়িয়ে আছি –
আই ফোনের বুকে আঙ্গুলের ক্ষীণ স্পর্শে দুনিয়া পড়ুন
কবিতা | | ৩ টি মন্তব্য | ৮১ বার দেখা | ১৮০ শব্দ ১টি ছবি
দূরত্ব
বহমান সমুদ্রের কলকল ধ্বনিতে,
পাল তোলা নৌকার বিচরণে,
ঐপাড় থেকে এপাড়ে সৌহার্দ্যের বন্ধন-
দূরত্ব ঘুচিয়েছে ভালোবাসার মিলনে। বসন্তের আগমনী গানে,
ফুলে ফুলে সয়লাব এপাড়ায়,
কোকিলের কুহুতানে কপোত-কপোতীর মননে,
দূরত্ব ঘুচিয়ে প্রেম আনে। যখন বর্ষা আসে এখানে,
কদমের শুভ্রতায়,
রিমিঝিম বরষনে-
দূরত্ব ঘুচিয়ে সতেজতা প্রকৃতিতে। শত শত উপমায় কত যে পদ্য লেখা,
কত কাগজের বুকে গল্পের পড়ুন
কবিতা | ৪ টি মন্তব্য | ৮৩ বার দেখা | ১২৮ শব্দ
ডবল লাভে হয় না সুদ
ডবল লাভে হয় না সুদ
আজ কাল চোখের ভাষাগুলো
গোলক ধাঁ ধাঁর মন- পাহাড় পর্বত হয়েছে;
আর দু’পায়ের চলন গুলো
কাঠবিড়ালী, টিকটিকি কেও হার মেনেছে
সময়ের চাকা বুকের উপর
গরুর গাড়ি আর চলে না হরেক রকম বাস;
ভাষা গুলির কোন অর্থ খুঁজি না
যত দোষ, নন্দ ঘোষ অর্থের পড়ুন
কবিতা | ৪ টি মন্তব্য | ৬০ বার দেখা | ৫১ শব্দ ১টি ছবি
নারায়ণগঞ্জের আঞ্চলিক ভাষায় লেখা
নারায়ণগঞ্জের আঞ্চলিক ভাষায় লেখা
কই যাইতাম? পারিনা বউয়ের কথা সইতাম, পারিনা মরতাম,
পারিনা সংসার হালাইয়া দূরে গিয়া থাকতাম।
অহন কী করতাম? পারিনা কারো কাছে কইতাম,
না পারি কামাইতাম, না পারি কারো কাছে চাইতাম! বাজারে দেহি, মাইনসে মাছ-মাংস করে দরদাম,
আমারঅ মনডায় কয় সামনে যাইয়া জাগাইতাম!
জিগাই না ঢরে, যাই হুটকি পড়ুন
কবিতা, জীবন | ৬ টি মন্তব্য | ৭৬ বার দেখা | ১০১ শব্দ ১টি ছবি
হরফ কুড়ানো গল্প
এ শহরে ধানশিশুর মতো হামাগুড়ি দেয়
আমার প্রথম দেখা শিকারি এজ্রাসে
জলের কল্লোল, বৃষ্টির দিনে-কবুতর
আকাশ নিয়ে খেলতে গিয়ে একটা পর্ব
শেষ না হতে আরেকটা শব্দসংখ্যায়
অভিভাবকের মতো হুদাই শৈশব টানে
দূর মফস্বল কিংবা হাট-বাজার আরও
সন্ধ্যার নাভি ছেঁড়া অন্ধকারে-একপাল
জোনাকিপোকার সাম্পানে ঘণীভূত রূপ
ব্রীজের নিচে শুঁকনো মাটির মৌসুম
মৃদু হরফ কুড়ানো গল্প নিয়ে পড়ুন
কবিতা | ৩ টি মন্তব্য | ৪০ বার দেখা | ৬৪ শব্দ