কবিতা বিভাগের সব লেখা

শীতের স্নিগ্ধতায় শীতের সকাল …শীতে কাঁপে অজয়ের চর শীতের চাদরে ঢাকা আমার কবিতা (প্রথম পর্ব)
শীতের স্নিগ্ধতায় শীতের সকাল …শীতে কাঁপে অজয়ের চর শীতের চাদরে  ঢাকা আমার কবিতা (প্রথম পর্ব)
বিভাগ – কবিতা (স্ব-রচিত)
 শিরোনাম – শীতের সকাল
 কলমে – কবি লক্ষ্মণ ভাণ্ডারী
 তারিখ – ২২০১২০২২ শীতের স্নিগ্ধতায় শীতের সকাল …শীতে কাঁপে অজয়ের চর
শীতের চাদরে ঢাকা আমার কবিতা (প্রথম পর্ব)
কলমে- কবি লক্ষ্মণ ভাণ্ডারী শীতের সকালে যখন ঘন কুয়াশায় সবকিছু ঢেকে যায় তখন প্রকৃতিকে অপূর্ব সুন্দর মনে হয়। পড়ুন
কবিতা | ১টি মন্তব্য | ৩৮ বার দেখা | ১৩৫ শব্দ ১টি ছবি
ইচ্ছে নদী
ইচ্ছে নদী
ঘাসের উপর শিশির হবো
নির্মল শৈশব দাও যদি। আহির ভৈরবে হবো ভোর
অস্তিত্বে স্নিগ্ধ হবে নদী অভিমান তীব্র হলে হবো
দহনের আগুন পোড়া রং নির্জন দুপুরে হতে পারি
মুখরিত গৌর সারং দিন অবসানে সান্ধ্য আজানে
হবো পবিত্র আলাপন ভালবাসা আর বেদনা মিশিয়ে
হবো কী বেহাগ অথবা ইমন পড়ুন
কবিতা | ৩ টি মন্তব্য | ৩৭ বার দেখা | ৩৯ শব্দ ১টি ছবি
শুক্রবার
শুক্রবারের পবিত্র বাতাস
আত্মসমর্পনের আহ্বান জানায় ধূলিসম গরিমা, উচ্চাকাঙ্ক্ষার
পারদ তলানিতে এসে ঠেকে। পাপের ময়লা সাবান দিয়ে ধুয়ে
সুগন্ধি আতরের কাপড়
পরিশুদ্ধ পথের দিকে টানে। প্রতিটি শুক্রবার ডাকে;
ভুলের পথ ছেড়ে সত্য আঁকড়ানোর
আওয়াজ দেয়। এখনো দেরী হয়নি,
এখনো আশ্রয় নিলে প্রভুর স্মরণে
মুছে যাবে বিগতের পাপ। প্রতিটি শুক্রবার বলে
চাইলেই পুনরায় শুরু করা যাবে। পড়ুন
কবিতা | ২ টি মন্তব্য | ৪১ বার দেখা | ৪২ শব্দ
অদৃশ্য মায়া
৪৪/৪১ স্বরবৃত্ত ছন্দ ভাই আর বোনের ভালোবাসায়
থাকে না তো খাদ,
নিত্যক্ষণে হাসি মজা
ভিন্ন রকম স্বাদ। দুখের দিনে ভাইবোনেরা
পাশে তবে রয়,
তখন মনের কোণে কভু
থাকে না তো ভয়। মন সাহসে জীবন মুখে
একলা চলা যাই,
ভাইবোনের ওই ভালোবাসায়
জনম জনম চাই। অদৃশ্য এই ভালোবাসা
ভোলা যায় না ভাই,
এমন মধুর পড়ুন
কবিতা, ছড়া ও পদ্য | ৪ টি মন্তব্য | ৪৫ বার দেখা | ৫০ শব্দ
তুমি বদলে যাবে
আমি বলেছিলাম ভালোবাসার পথ কষ্টের হয়;
সে সুদীর্ঘ পথে তুমি আমার পাশে হাঁটতে পারবেনা,
তুমি একটা সময়ে ঠিকঠাক বদলে যাবে।
ভালোবাসার পথে ছড়িয়ে ছিটিয়ে থাকে অজস্র কাঁটা
তাই তুমি অন্য পথ ধরে হেঁটে যাবে একটা সময়। আজ ভালোবাসার পূর্নতায় ভরিয়ে দিলে ঠিক,
কিন্তু আগামীকাল আজকের মতো পড়ুন
কবিতা | ২ টি মন্তব্য | ৩৭ বার দেখা | ৮৫ শব্দ
কে তুমি
কে তুমি নিজেকেই প্রশ্ন করো না
কি নামে ডাকবো ভেবে তো পাই না
হাসিতে মিশে আছো নাকি কান্নায়
জলে ডুবে থাকি কখনো ডাঙায়
সাঁতার শিখি নি, হাঁটতেও পারি না। চোখেচোখে আছো তবু আবছায়া
ভালোবাসা নাকি শুধুই মায়া
পথহারা যদি এই কুয়াশায়
দেখা দেবে কি আসক্ত জোছনায়
জানি রৌদ্রস্নানে তোমায় পাব না। নিঃশ্বাস পড়ুন
কবিতা | ৫ টি মন্তব্য | ৭৩ বার দেখা | ৭৯ শব্দ
দুর্বোধ্য
এখন আমার কেউ নেই এই পৃথিবীতে
তোমার আমার সহজ সরল কথাগুলি
চাপা পড়ে গেছে এলোমেলো তথ্যজটে ধীরে ধীরে আমরা একদিন উহ্য হয়ে যাব
তোমার কিছু বলার থাকবে না আমারও না
তবু মনের যোগাযোগ অবিচ্ছিন্ন রয়ে যাবে হয়তঃ অন্য কোনো পৃথিবীতে দেখা হবে
তোমার আয়ত পড়ুন
কবিতা | ২ টি মন্তব্য | ৩১ বার দেখা | ৭৩ শব্দ
সূর্যবালার হাত
রাতের ভেতরে হারিয়ে যেতে যেতে আমি আবারো
খুঁজে ফিরি আঁধারের নিজস্ব ওম। যারা নিজেদের
সাম্রাজ্য বাড়াবে বলে খুঁড়েছে আমার ভিটে, তাদের
প্রেতাত্মা দেখে আমি হেসে উঠি। এরা একাত্তরে ঠিক
এভাবেই হেরে গিয়েছিল আমার পূর্বসূরির কাছে। রক্ত
ও রোদের নিয়ন্ত্রণে জয়ী হয়েছিল সূর্যবালার দুটি হাত। দিনের ভেতরে হারিয়ে যেতে যেতে আমি পড়ুন
কবিতা | ২ টি মন্তব্য | ৩৯ বার দেখা | ৭১ শব্দ
মৃত্যুর কাছে পরাজয়
ত্রিপদী মহাপয়রা (অক্ষরবৃত্ত): ৯৯/১১ থাকিতে যে আসিনি ভবে
চলিয়া যাইব যে তবে
যাইবো ছাড়িয়া রঙ্গের ধরা,
যেইদিন মৃত্যু আসিবে
কর্মতে দুনিয়া হাসিবে
স্বজন তো থাকিবে বাড়ি ভরা। ছাড়িয়া যাইব স্বজন
মৃত্যুদূত নহে আপন
যাইবে না ছড়িয়া মোরে কভু,
রঙ্গের দুনিয়া এ থেকে
যাইবো আমি সবই রেখে
পড়িয়া রহিবে কীর্তিটা তবু। মানব জীবন পড়ুন
কবিতা, ছড়া ও পদ্য | ২ টি মন্তব্য | ৪৭ বার দেখা | ৮১ শব্দ
আর কত এখানে
আর কত এখানে
এক মাঠ সরিষা ফুল দেখে দেখে
মনের খুসি কেমনে উড়াই!
উচ্ছলায় সরিষা তেল-মন্দা রাখি ভার;
হলুদ পাখিরা সবে গান শুনায়!
চিৎকার করে বলে রাজা ফিঙে-
কাউন চাষের জমি গেলো কথাই
অথচ মন্দার চোখে তিলের খেলা;
ভালই খেলছে; জলের মেঘে যায় বেলা
এত তেল যাবে কথায়- মন্দার ভাবনা নাই
তবু পড়ুন
কবিতা | ৪ টি মন্তব্য | ৪২ বার দেখা | ৬৩ শব্দ ১টি ছবি
গ্রাম ও নদী
গ্রাম ও নদী
ছবির মতো ছায়ায় ঘেরা আমার ছোট গ্রাম
ধরার বুকে ছড়িয়ে গেছে তার যে কত নাম।
গাঁয়ের পথ বয়ে চলেছে ফুলজোড় এ নদী
নদীর তীরে ভালো লাগে যে পাখিরা গায় যদি। পাখির গানে কলতানেই ভীষণ লাগে ভালো
নিত্য রাতে জোনাকি ছাড়ে হালকা পড়ুন
কবিতা, ছড়া ও পদ্য | ৬ টি মন্তব্য | ৬৩ বার দেখা | ১৩০ শব্দ ১টি ছবি
অচল
তুমিহীন অসুখ এই মধ্যবর্তী দূরত্ব নিয়ে সংলাপ
জানি,তোমার কমোরে যে জখম ব্যথা-
রাত নামলে শুকনো নদীর কান্না আবৃত্তি করে। পড়ুন
কবিতা | ২ টি মন্তব্য | ৪৮ বার দেখা | ১৭ শব্দ
হে বন্ধু ... হে পথিক!
কখনোকি জীবনের লাভ-ক্ষতি
খুঁজেছ পথিক!
যদি খুঁজে ফিরতে
তাহলে অবশ্যই জানা হতো
কি করা দরকার আর কি না করা উচিত! কখনো কি ব্যথা ভেঙ্গে
পাহাড়ে উঠেছ পথিক?
আমি যতবারই উঠেছি
ততোবারই জীবনের বেতাল
সে পথ সংকুচিত হয়েছে। কিছুটা ভুল আমারও ছিল,
কিছুটা ভুল তোমারও ছিল।
তুমি হয়তো তা স্বীকার করো না।
তবে, যদি কোনদিন বিবেকের সাথে
বোঝাপড়া করে পড়ুন
কবিতা, জীবন | ১টি মন্তব্য | ৪৫ বার দেখা | ৩১৬ শব্দ
যোগ
যোগ তপস্যার সূত্র জানতে জানতে
একদিন ভালবেসে ফেললাম তাপসী কে।
যাকে জানলে
দুর্যোগ নামে। ঝড় উঠে দাহ গ্রামে।
দূর কৈলাসে মেঘ জমে। থম থমে আবেগ। নদীতে বাণ ডাকে। সর্বনাশের কবলে
পড়ে সহজাত আরণ্যক- জ্যোৎস্না মোহন প্রেমে। নিঃসীম পতনের নিয়মে- পড়ুন
কবিতা | ১টি মন্তব্য | ৩৯ বার দেখা | ৩৭ শব্দ
আমি বিশ্বাস করি
আমি বিশ্বাস করি,এই বাংলার আকাশে প্রতিদিন সূর্য উঠে,
শহিদের ঘাম আর দম নিয়ে। যে গোলাপ
আমার দিকে তাকিয়ে হাসে, অথবা-
যে শিশু সড়কে দাঁড়িয়ে কাঁদে, জানে সে ও,
এখানে একদিন মানুষের কান্নারও অধিকার ছিল না। আমি বিশ্বাস করি, পিতারা যুদ্ধে গেলেই,
সন্তান দ্রোহী হয়।
মায়ের আঁচলে হাত মুছে যে মেয়ে স্ট্যানগান
তুলে পড়ুন
কবিতা | ৪ টি মন্তব্য | ৪৫ বার দেখা | ৯৬ শব্দ