কবিতা বিভাগের সব লেখা

আমাদের সব কিছু
আমাদের সব কিছু
আমাদের সব কিছু আমাদের সব সম্ভাবনায় অসম্ভবের ভার
চেনা জানা সরল পথে জমে আছে ক্ষার।
আমাদের সব নগ্ন ছবি চার দেয়ালের কাছে
আটকে থাকে কাঠের ফ্রেমে যুক্তি বিহীন ছাঁচে। আমাদের সব দুঃখ গুলো তাঁতীর তাতে বোনা
দিন রাত্রি ঘটাং ঘটাং শব্দ যাবে শোনা।
আমাদের সব ভাবনা গুলো পড়ুন
কবিতা | ২ টি মন্তব্য | ২০ বার দেখা | ১০৮ শব্দ ১টি ছবি
সর্প শাপ
সর্প শাপ গাছগুলো ভিজে শেষ।
এমনদিনে সে যেন একলা থাকে
এই আকাশের সারিমেঘ
শীত শীত ব্যাকুল বাতাস আর
ভেজা মন নিয়ে
সেও যেন কাঁদে আরো কয়েকবার যে হারায় সে হারায়
যে জানে সত্যিকারের ভাসান দিতে
সে আর ডাকে না কাউকে
ফিরে ফিরে আসে হাহাকার
বুক ভরা অভিমান
দিকছাড়া ক্ষ্যাপাটে শোক যাকে সে দিয়েছে শোক তারই মতন
সেও অবিশ্বাসী পড়ুন
কবিতা | ৩ টি মন্তব্য | ১৫ বার দেখা | ৬৭ শব্দ
তুষারপাতের আগে
তুষারপাতের আগে [] জমে যাচ্ছি, প্রগাঢ় শ্বাসকষ্টের ভেতর। পাতাহীন বৃক্ষের
প্রতিবেশে পাখিরা যেমন মুখ লুকিয়ে রাখে প্রেমিকার
বুকের বা’পাশে। কাঁপছি – পালকে বুনা ভারী কোট
গায়ে দিয়ে, একাকী সড়কে। আমাকে ফেলে রেখেই
চলে যাচ্ছে যাত্রী ভরা বাস। কাজল বরণ রঙ ধারণ করে মাথার উপর,
দাঁড়িয়ে আছে উইকেন্ডের আকাশ।
পৃথিবীর অন্যপ্রান্তে, বিজয়ের পড়ুন
কবিতা | ২ টি মন্তব্য | ১১ বার দেখা | ৭৭ শব্দ
অপূরণীয় আলো
অপূরণীয় আলো রোদ মুখের ওপর পড়ে জ্যোৎস্না হয়ে গেছে
আমার হাতের আঙুলেও লেগে প্রতিমানির্মাণ।
ভাবছি, যদি কোনোদিন তোমাকে রাজি করাতে পারি মহাপীঠ পর্যন্ত
দুজনকে মুখোমুখি বসিয়ে দেখবো — আসলে কে নীলোৎপল, মণিকর্ণিকা বাইরে অপূরণীয় আলো
গাছের টেবিলে পাখিদের কফিহাউজ ভোরবেলা
দেখে মনে হবে দুঃখ কোথাও একজিস্ট করে না সব ছেড়ে দিলে যে পড়ুন
কবিতা | ২ টি মন্তব্য | ১৫ বার দেখা | ৯৫ শব্দ
Facebook Profile photo
বিব্রত অস্তিত্ব
বিব্রত অস্তিত্ব টবে লাগানো সেদিনের বেলী, আজ
স্বাদে, ঘ্রাণে বাস্তবতায় স্পর্শকাতর
অতিথি পাখিরা ঋতুর নিয়মেই আসে,
আবার ভাটার টানে চলেও যায়। সেদিন পেয়েও পেলাম না স্পর্শ
হলুদ কলঙ্ক,
প্রসন্ন গ্রীবা, স্তন, চূড়ান্ত সান্ত্বনা
ভোরের শিশির দানায় লুকোচুরি খেলা
কালো কলঙ্ক, আর বিষণ্নতায় খুলে দেয়া
স্বেচ্ছাসেবী ধর্ষণ দরজা। অতঃপর আলোর নিচে আছি বিকল্প সুখে পড়ুন
কবিতা | ৭ টি মন্তব্য | ১৯ বার দেখা | ৪২ শব্দ
সমাধি ঘরে
সমাধি ঘরে শেষে শুধু ছাই সব কিছু জ্বলে পুড়ে
থাকে না তফাৎ মানুষ আর বস্তুতে;
ভেসে বেড়ায় হৃদয় চিক ঐ ইথারে
মিশে রয় দুঃখ আর যন্ত্রণা তাতে।
বাহির থেকে কেউ বুঝে না সে আগুন
কেউ করে না অনুভব, রয় অদৃশ্য;
আর বেড়ে হয় যখন তা বহুগুণ
মানুষ হয় এত উন্মাদ, অবিশ্বাস্য। হৃদয়ের সে পড়ুন
কবিতা | ২ টি মন্তব্য | ১১ বার দেখা | ৭৫ শব্দ
সাধ ও স্বাদের সমীকরণ
চৌরাস্তার মোড়ে গুণ্ডি দোকানে ভিড় বাড়ে
পোড় তেলে পাকোড়া ভাজে সস্তায়
ছানা মুড়ির নাস্তায় চায়ের ঝড়ে, খাস্তায়।
রসের অংক কষে,
গরম কাপের উত্তাপ জুড়ায় ফু তে –
চুমুর ভঙ্গিমায়, শ্রু’তে উলুর ধ্বনি
ছোঁয়ার ধর্ম মেনে যশে চিনি, দুধের স্বাদ!
এভাবে সাধ বাড়ে
রোজ রোজ পড়ুন
কবিতা | | ৩ টি মন্তব্য | ১৬ বার দেখা | ১০৭ শব্দ ১টি ছবি
ঘুমঘরের হাহাকার
পাটওয়ারী,
তুমি কি ঘুমিয়ে গেছো?
চারদিকে এখন কাঁচা অন্ধকার
আমি দাঁড়িয়ে আছি পৃথিবীর মধ্যিখানে
উত্তুরে তারার মতো শিহরণ বুকে নিয়ে পাটওয়ারী,
এখন ঘুমানোর সময়
বুকের ভেতর তোমার রক্তিম রোগ
ইচ্ছে স্রোত বইছে সেথায়
কে শোনে সর্বনাশা পৃথিবীর বুকফাটা যন্ত্রনা এখন চন্দ্রাহত সময় ব্যথিত অহরাত্রি
পাটওয়ারী,
ঘুমিয়ে গেছো বুঝি?
তোমার নিঃশ্বাস থেকে খসে পড়ছে
নীলক্ষেত শাহবাগের হাহাকার। পড়ুন
কবিতা | ৩ টি মন্তব্য | ১৭ বার দেখা | ৪৪ শব্দ
যৌবনের কবিতা
এ যৌবন মোমের মতো গলে
কাম রূপের তীক্ষ্ণ অনলে
এ যৌবন মিশে যায় জলে
নদীর নাম সর্বনাশী বলে; টানছে কাছে দারুণ ছল
ধরতে চাই মেঘের আঁচল
যদি বৃষ্টি নামে অনর্গল
ভিজে যাবে ঘাসের দল
খুলে রেখেছি করতল
বেজে ওঠে পায়ের মল; ঢেউয়ের ওপর রেখে ডানা
ভেসে যেতে নেই তো মানা
জলপরীরা দিচ্ছে হানা
ঠোঁটে আছে মধুর ফেনা
চাঁদ পড়ুন
কবিতা | ৬ টি মন্তব্য | ৩১ বার দেখা | ১৫১ শব্দ
সাদা কাগজে জল রং
বর কনের মেলা ঘাস ফুলে শিশির দানা
মুক্তার স্ফটিক হাসে
ভোরের আলো যেই ছুঁয়েছে
ঝিকিমিকি রঙ খেলে। শিউলী ঝরে শিউলী তলায়
শিশিরে ভেজা ঘাস
ফুল কুড়াতে ভুতু সোনার
শীতে কাঁপে ঠোঁট। ফুলের ডালা শিউলী ফুলে
বাহারি রং ধরে
শিউলী ফুলে পুতুল বিয়ে
বরকনের মেলা বসে। বাঘা ফড়িং ডোবার ধারে শালিক জটলা
কিচির মিচির ডাকে
হাসের ছানা ডুব সাঁতারে
শীতল জলে পড়ুন
কবিতা | | ৫ টি মন্তব্য | ৪৬ বার দেখা | ১৪৭ শব্দ
মাত্র একটি শব্দ-উচ্চারণের হেরফের
মাত্র একটি শব্দ-উচ্চারণের হেরফের তেমন করে যাওয়া হয়না।
কোন সীমাহীনেই তো হারিয়ে যেতে চেয়েছিলাম————-
গন্তব্যবিহীন এক ট্রেনের হুইসেল যখন বেজে ওঠে,
বলি–একটু থামো।ভেবে দেখি আর আমার নেবার মতো কিছু বাকী আছে কিনা। নিতান্ত প্রকৃতির খেয়ালে বেড়ে ওঠা অশ্বত্থ–কতদূর তার শিকড় ছড়ায়
কেমন রাশি রাশি নেমে আসা ঝুরি-জটাগুলো ঘিরে রাখে তার পড়ুন
কবিতা | ৩ টি মন্তব্য | ১৬ বার দেখা | ৯৪ শব্দ
স্তব্ধ হোক এ হত্যাউল্লাস
স্তব্ধ হোক এ হত্যাউল্লাস এই বীভৎস মৃত্যুই কি প্রাপ্য ছিলো!
নপুংসক বীর্যের লেলিহান শিখায়
ঝলসে গেলো ফুলের জলসা,
এই শেষ নয়, অসংখ্য রক্ত নদীর বন্যায়
মাতৃ জঠর শব্দহীন, প্রাণহীন।
প্রাগৈতিহাসিক গুহায় –
সময় মুখ লুকিয়েছে, লজ্জায়। তবে জানি আসবেই সেই সূর্যসকাল –
যেদিন পৃথিবীর সব জহ্লাদ,
ভালোবাসার শিলালিপিগুলো
সমুদ্রের গভীরে গিয়ে তুলে আনবে,
পৃথিবীর সব মারণাস্ত্র পড়ুন
কবিতা | ৫ টি মন্তব্য | ১৮ বার দেখা | ৫৬ শব্দ
When My Feelings Sink and Die
When my feelings sink and die,
I hold feelings of nature and poetry
To feel your heart in lonely night;
When my face turns tired and fade,
I look at indigo sky and dazzling moon
To see your face in moonlight;
When my body falls and embraces soils,
I fly on পড়ুন
কবিতা | ৫ টি মন্তব্য | ১৬ বার দেখা | ৫৪ শব্দ
অভিনন্দন পত্র
অভিনন্দন পত্র যে শিশুর ভূমিষ্ঠ হতে এখনো লক্ষ কোটি বছর বাকি
তাকেও আমি অ ভি ন ন্দ ন জানিয়ে রাখি!
হয়ত তখনকার নাম গুলো মানুষের নামের মতো হবে না
হয়ত তখন নদী নামের কোনো অনাথিনী থাকবে না
হয়ত তখন পাহাড় -পাহাড়িকা নামের আর কেউ রইবে না
হয়ত চিরন্তন সত্য বলে পড়ুন
কবিতা | ৩ টি মন্তব্য | ১৪ বার দেখা | ১৫৬ শব্দ
মানুষের খুব বাজে স্বভাব
মানুষের খুব বাজে স্বভাব মানুষের খুব বাজে স্বভাব
অকারণেই তারা ঘেউ ঘেউ করে
আগুনের আংটায় ঝুলে থাকে মাংসের লোভ
একটা ধূমকেতু উড়ে যাবার পর
ছাদে উঠে যায় হাতে নিয়ে রাশিয়ান ভদকা মানুষের খুব বাজে স্বভাব
তারা অহেতুক রং বদলায়
এত পোশাক! তবু খুলে নেয় বৃক্ষের বল্কল
প্রার্থনা নয়, দু’হাতে ঘাই মারে
সোমত্ত সন্ধ্যাটা ডুবে পড়ুন
কবিতা | ৬ টি মন্তব্য | ১৭ বার দেখা | ৫৭ শব্দ