আলমগীর সরকার লিটন-এর ব্লগ

আলমগীর সরকার লিটন। লেখকের প্রথম কবিতা প্রকাশ হয় ‘দৈনিক যুগান্তর পত্রিকায় ‘ভিজে যাই এই বর্ষায়’ এরপর লেখকের অন্যান্য কবিতা ধারাবাহিকভাবে প্রকাশিত হতে থাকে যেমন- ত্রৈমাসিক সাহিত্য পত্রিকা “মেঘফুল”, ত্রৈমাসিক পত্রিকা ’পতাকা’, মাসিক ম্যাগাজিন, সংকলন ‘জলছাপ মেঘ’। এছাড়া অনলাইন পত্রিকায় লিখে থাকেন। প্রথম কাব্যগ্রন্থ ’’মেঠোপথের ধূলিকণা’’ প্রকাশিত।

এক শতাব্দীর বিজয়
এক শতাব্দীর বিজয়
চোখে আমার এক শতাব্দীর বিজয়
অম্লান করছে কিছু ক্ষণ সময়ের অবগাহন!
তবুও উল্লাসে পতাকা উড়াই-ধন্য বলয়
অবুঝ শিশুর হৈহুল্লোড় খেলার মাঠ-
যেনো আবেগময় একমুঠো হাতের মধ্যে বিজয়! কত বার নর্দমার কাদাযুক্ত অনুভব ছুঁড়াছুঁড়ি
কারও কথা শুনে না শুধু এগিয়ে চলা-
সমনে সমনি, পড়ুন
কবিতা | ৪ টি মন্তব্য | ৩৬ বার দেখা | ৫৩ শব্দ ১টি ছবি
সাড়ে সর্বনাশ
সাড়ে সর্বনাশ
অনেক আগেই স্বপ্ন দেখেছি কিন্তু
স্বপ্ন দেখা বাড়ন করেনি কেউ- সংগোপন ছিল খুব-
তবুও স্বপ্ন দেখি বেগম পাড়ায় বাড়ি বানাছি-
ব্যাংকে টাকা রাখছি-ভরপুর সম্পদের খেলা!
একদিন সত্যই হলো অথচ দেশের মানুষগুলোর
কোন হুশ, জ্ঞান হলো না- এতো পিরিতি ভাল নয়! কত বার চিঠি লেখেছি- ভালবাসি পড়ুন
কবিতা | ৪ টি মন্তব্য | ৬৬ বার দেখা | ৭৮ শব্দ ১টি ছবি
দিনগুলো
দিনগুলো
এখনকার দিনগুলো বড় অসহায়
কোন চঞ্চলতা নেই- নেই কোন দুরন্তপনার
একজেদি বিকালের খেলাধুলার মাঠ!
সবই জানি বয়সের কাছে হারমানো দিন;
শ্যাওলাতে পরে নয় উঠানে দ্বার কিংবা রাস্তা
তবুও রঙিন চশমা জেনো জল জল করে। অনুভবের দিনগুলোর ইচ্ছাডানার উড়েযেতে চায়
নীলাকাশে কিংবা সবুজ চিনাজানা গাঁয়ের
মেঠোপথ কিন্তু কথায় জানি পড়ুন
কবিতা | ৪ টি মন্তব্য | ৪৪ বার দেখা | ৬৫ শব্দ ১টি ছবি
স্বপ্নঘুম ভেজে যায়
স্বপ্নঘুম ভেজে যায়
এক মুঠো স্বপ্ন হেঁটেই চলছে রাতদুপুর-
দাঁড়াবার সময় নাই বুঝি আর- কি অদ্ভুত
সম্পর্কের লেশমাত্র নাই- অথচ দিনদুপুরে
খেলা করে এক নাক পৌষের ঘ্রাণ ছড়ানো স্বপ্ন; আফসোস অশ্রুজল গড়িয়ে গড়িয়ে পুকুর হলো
সেই বিলটা শুকে গেছে নতুন প্রজন্মের বস বাস-
এক রাত স্বপ্ন বলে কথা- পড়ুন
কবিতা | ৪ টি মন্তব্য | ৭৭ বার দেখা | ৮৬ শব্দ ১টি ছবি
কুয়াশার উঠান
কুয়াশার উঠান
কুয়াশা জড়ানো একটা চাদর হারিয়ে গেছে-
কোন শীত উষ্ণ বুকে! যত বার শীত আছে-
তত বার খুঁজতে থাকি- ভরা শীত পূর্ণিমায়
কিংবা অমাবস্যার রাত; অথচ তারা অন্যকিছু
ভেবেই চল্লো- সজাপথে এতটুকু হাঁটল না- কত বাহানা মনে ধরেই রাখলো- তাহলে কথায়
হারানো চাদর- খুঁজব পড়ুন
কবিতা | ৬ টি মন্তব্য | ৭১ বার দেখা | ৮৬ শব্দ ১টি ছবি
চল দুপাত্তি খেলাই
চল দুপাত্তি খেলাই
আমি হাত বান্ধিলাম নগর দুলাই-
চাঁদ রাখিলাম দীঘলকালো ঝলমল ভালাই!
সূর্যের আলো দেহ কালো- অঙ্গার হলো
মন প্রাণ-চল ফিরি সাদা মেঘে দুপাত্তি খেলাই
এই ভরা অগ্রহায়ণে- চল দুপাত্তি খেলাই। হাত ছুটে না- পাও ছুটে না- দুই বেলা
রঙিন ছবি, উঠান জুড়ে আঁকা পড়ুন
কবিতা | ২ টি মন্তব্য | ৫০ বার দেখা | ৬৮ শব্দ ১টি ছবি
আজ তোর জন্মদিন
আজ তোর জন্মদিন
তুই! ভাব আদরের ঘরে বড় হচ্ছিস,
আরও দুটি ফুল তোর হাতের মুঠোই-
কি ভাবছিস- গন্ধ ছড়াতে হবে না!
প্রতি জন্মের স্বাদটা নিচ্ছিস খুব ভালই; আমাকে ভাবিস, কিছুই পাইনি-জীবনের
বাঁকে-বুঝে নিস সবটুকু তোর আরাধনা-
ঐ তারা দেখে ভাবিস- এভাবে জন্মের
স্বাদ আসবে- একদিন আমার মতো হবি নতুন প্রজন্মের জন্য পড়ুন
কবিতা | ৬ টি মন্তব্য | ১২৫ বার দেখা | ৬২ শব্দ ১টি ছবি
অতঃপর ধৈর্য
অতঃপর ধৈর্য
জীবনের কিছু সময় কালের গর্তে হারিয়ে যাচ্ছে-
অথচ খোঁজে পাওয়া কিছু বিদ্বেষ শুধু অগ্নিময় সন্ধ্যা;
পুড়েনি দুই একটা আত্মার নির্ঘুম আর্তনাদ-
তবুও জীবনের রাস্তার মোড়ে এত সংশয় অবসাদ; বিবেক চেয়ে থাকে না-দৃষ্টিপাতে অশ্রু ভেজাই না !
তারপরও ভোর নামে শীতের কুয়াশা শিশির-
ভাবমুখর উত্তাপ মনে দুপুর পড়ুন
কবিতা | ৪ টি মন্তব্য | ১২১ বার দেখা | ৭৮ শব্দ ১টি ছবি
শীত তুমি অন্যরকম
শীত তুমি অন্যরকম
সরিষা দুপুর একটু উষ্ণতা ঝিম ঝিম
রাতের গায়ে হাত দেওয়াই যায় না-
শীত- শীত- ইট পাথর শহর জুড়ে একেমন
নেমে এসেছে এখনি যে শীত- শীত;
পিঠাপুলি খাওয়ার ধুমটা গিলে খেয়েছে করোনা!
তবুও জামাই ষষ্ঠী মাস্ক পরা রাস্তার
মোড় কিংবা ঘর বাহিরে পরে পড়ুন
কবিতা | ৬ টি মন্তব্য | ৫৩ বার দেখা | ৭৮ শব্দ ১টি ছবি
স্বপ্ন
স্বপ্ন
হায় স্বপ্ন এখন কেনো- আগে ছিলে কই!
এখন কেনো হয়ে উঠো শেষ রাতের গল্প-
গদ্য কবিতার রূপ লাবণ্য- হায় স্বপ্ন !
ভোরের সূর্যমুখি আর্তনাদ কে শুনে সূর্যতাপ
মিষ্টি হাসিতেই বন্যা- কে রুকে ঝর্ণা-
তবুও অভিমানি অনুরাগ- হায় স্বপ্ন- স্বপ্ন। রঙধনু ভাসে দুপুরের কিছু রঙিন
চাওয়া পাওয়া- শেষটা পড়ুন
কবিতা | ৬ টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ৪৬ বার দেখা | ৯০ শব্দ ১টি ছবি
হিসাবের সমীকরণ
হিসাবের সমীকরণ
এখন যে পৃথিবী চলছে সেখানে ঈশ্বর কে
খোঁজে পাওয়া যায় না! পৃথিবী ঘিরে
সব নিজস্ব ক্ষমতার প্রদর্শন দেখানোর
রঙিন ঘুড়ি উড়ানোর মেলা; বলো!
ঈশ্বর কি করে থাকবে? ঈশ্বরহীন পৃথিবী। পৃথিবীর চারপাশটাই শূন্যতা ঘিরা
স্বপ্ন রাত যেনো জোছনা নেই- তবুও রাত
এটা আমার পৃথিবী পড়ুন
কবিতা | ৫ টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ১২৪ বার দেখা | ৮৭ শব্দ ১টি ছবি
অন্তর
অন্তর
রাত কেটে গেলো উত্তর মিলাতে পারিনি
আমি কি একটা অন্তর হতে পেরেছি-
একটা রাতের কিংবা নদীর জলের!
যেমনটা উচ্ছলে উঠবে প্রণয়ের বন্যায়-
একটা অন্তর হতে পেরেছি কি? আমি। যেখানে পুড়ে মারে মানুষ, সেখানেই
রেখো না- তার চেয়ে বড় ঘৃনাই করো!
আগুনে পুড়ে মরতে চাই না- একটা পাপের
চেয়ে পড়ুন
কবিতা | ৫ টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ৭২ বার দেখা | ৭৮ শব্দ ১টি ছবি
হেঁটে গেলো চাঁদ
হেঁটে গেলো চাঁদ
সেদিন সূর্য উঠেছিল ঠিক পশ্চিমে
তেজস্ক্রিয় রশ্মি কতটুক পুড়ে গেয়েছিল
একটা হাত, মন, এমন কি সমস্ত দেহ;
পুড়া গন্ধ নাকে স্বাদ লাগেনি এতটুকু
আঁচও লাগেনি বেদনার আকাশ ছুঁয়ে
কতটুকু বৃষ্টি ভেজেছিল হয় তো মনে নেই। সূর্য ডুবে চাঁদ জ্বলজ্বল করছিল ঘোর
অমাবস্যার রাত অথচ বিবেক পাড়ায়
পুজোর ঢল পড়ুন
কবিতা | ১০ টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ১৪৮ বার দেখা | ৬৬ শব্দ ১টি ছবি
সবই এখানে থাক
সবই এখানে থাক
হঠাৎ কবিতা আমাকে প্রশ্ন করে?
আমাকে নিয়ে এতকিছু করে কি লাভ পাবে!
কিছু কলঙ্কের জোছনায় ভেজাবে
আর হাসি তামাশা হবে- এগুলো নিয়ে কি তুমি শান্ত;
আমি হেসে উঠলাম কবিতা কি বলছো? আমি তো কিছু আলো নিয়ে হেঁটে চলি
কিছু তো ভাবনা ছড়ায়- বলো! আমাকে থামতে
বলছো- না পড়ুন
কবিতা | ৫ টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ১১০ বার দেখা | ৯৬ শব্দ ১টি ছবি
যেখানে থাক ভাল থাক কবি
যেখানে থাক ভাল থাক কবি
আজ শুধু আকাশ কাঁদছে-
বাতাস মৃদু শীতলতা বয়ছে!
একমুঠো কবির স্বাদ যেনো
সবুজ সমরায় শোকাহত- আর্তনাদ;
তারার পানে খোঁজেও পাব না আর
কবির কিছু কবিতার হাসি; মনিল করে রাখল সমস্ত কবিতার আত্মা
কবি তুমি কখনো প্রভাতের সূর্য হতে
পার! আমি কিছুটা তাপ নিবো-
আমার কবিতার পড়ুন
কবিতা | ৮ টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ১৫৩ বার দেখা | ৭৩ শব্দ ১টি ছবি