আদেল পারভেজ-এর ব্লগ

নিজেকে খুব বেশি ভালোবাসি। কষ্ট পেতে মোটেও ভালোবাসিনা। সকলের মতো আমিও তৃষ্ণা পেলে জলের সাহায্য নেই।।।।
আমার কবিতা লেখার কারণ-
শরৎ পুজো, রেইল লাইনের ধারে কাশফুল, সিধুর ঢাক, বিসর্জন, মিষ্টি মুখ, কোজাগরী, আকাশ প্রদীপ – এর বাইরেও পুজো হয় মানুষের, নদীর ধারে একলা বসার মনোহর দুঃখ, হাভাতে মানুষের দুমুঠো চালের দুঃখ, কথা ফুরোনর দুঃখ, সংসারে নিজেকে বিকিয়ে দেবার দুঃখ, হারানো বন্ধুকে হারানোর দুঃখ, ফেলে আসা ছেলেবেলার পুজো, এমন দুঃখের চোরা স্রোতেও সুখের পজো হয় মানুষের। তাই সুখের পাশে দুঃখের কবিতা লেখা হয়।

চলে আয় আমি তোকে জীবন দেখাবো
তোরও যখন আমার মতো অসুখ হবে
অসুখ হবে ভালোবাসার,
অসুখ হবে একটুখানি প্রিয় কারো কথা শোনার। শোন! কোনো নোটিশ ছাড়াই চলে আসবি,
আমি তোকে জীবন দেখাবো— বুঝলি?
আয় চলে আয় আমি তোকে জীবন দেখাবো। একলা আমি কেমন আছি একটা তোকে ছাড়া,
তোর শোকেতেই ছাড়ালাম কত কিছুই—
আমি আবার সেই আমার, পড়ুন
কবিতা | ২ টি মন্তব্য | ৬০ বার দেখা | ১৫২ শব্দ
অধরা ও সমুদ্রের গল্প
অধরা ও সমুদ্রের গল্প
দৃশ্যপট : ১
এ কোন বিশাল শূন্যতায় ডুবে যাচ্ছে মন ? নিজেকে বড্ড বেশি একা লাগে আজকাল। অধরার সাথে সেই কবে কথা হয়েছিলো, তা ঠিক মনে নেই। ভেতরটা কেমন যেন খালি, খালি লাগে। শরৎ এসে চলে যায় কাশফুল গুলো অভিমানে পড়ুন
অণুগল্প | ২১ টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ৫৩৩ বার দেখা | ২৪২৯ শব্দ ১টি ছবি