বরষার মেঘ
বরষার মেঘ
রিমঝিম রিমঝিম বাদল দিনে তোমার কথা পড়ে মনে
কোথায় আছ তুমি আজ এমনি বরষা মুখর দিনে। তোমার পরশ মাখা স্বপ্ন আমায় করেছে মগ্ন
দিন কাটে ঘরে একা তোমার সুরে গান গেয়ে। বিদায় নিয়েছে বসন্ত এসেছে বরষা তবু কেন
কাটে না যে দিন গুলি তোমার পথ পড়ুন
কবিতা, জীবন | ১টি মন্তব্য | ১১ বার দেখা | ৪২ শব্দ ১টি ছবি
ইচ্ছে করে
স্বরবৃত্ত ছন্দঃ ৪৪/৪২ ঐ দেখো মা আকাশে তে
উড়ছে কত ঘুড়ি,
ইচ্ছে করে তেমন করে
আমিও যেন উড়ি। নীল আকাশ ছোঁয়ার জন্য
মনে কত আশা,
পাখির সাথে গাইতে আমার
জাগে মনে ভাষা। ছায়ার সাথে ইচ্ছে করে
লুকোচুরি খেলতে,
আকাশে তে পাখির মতো
মুক্ত ডানা মেলতে। রচনাকালঃ পড়ুন
ছড়া ও পদ্য | ১টি মন্তব্য | ১৪ বার দেখা | ৪৫ শব্দ
জমি বুঝে জলজ ভাষা
জমি বুঝে জলজ ভাষা
বৃষ্টি আর ঝর্না দুটোই ধারাপাত ধর্মী
পার্থক্য কেবল এক জন পতিত হয় নিরবধি
আরেক জন গলে কেবল মেঘেরা হাত পাতে যদি
নিজস্ব ভাষায় শীৎকারে দুটোই সুরের প্রেমী। পতিত জমি বুঝে জলজ ভাষা
চির যৌবনা খনিজ উত্তাপে ঝর্নার অনিন্দ্য প্রেম লীলা
সুর ছন্দে প্রেমজ সন্তর্পণে পড়ুন
কবিতা | | ১টি মন্তব্য | ১১ বার দেখা | ৯৭ শব্দ ১টি ছবি
কথায় বলে
কথায় বলে
কথায় বলে,
দুষ্ট লোকের মিষ্টি কথা,
ঘনিয়ে বসে পাশে।
কথা দিয়ে কথা নেয়,
প্রাণে মারে শেষে! কথায় বলে,
নদীর জল ঘোলাও ভালো
জাতের মেয়ে হোকনা কালো,
নাই মামা কানাও ভালো
অন্ধ সন্তানও ঘরের আলো। কথায় বলে,
অভাবে নাকি হয় স্বভাব নষ্ট
বাতে ধরলে পড়ুন
কবিতা | ১টি মন্তব্য | ১০ বার দেখা | ১০১ শব্দ ১টি ছবি
পরচর্চা
বড় ছেলে হাবা-গুবা
মায়ের মত কালো-শোভা। তার পরেরটা ল্যাংড়া
সভাবে জাত চ্যাংরা একটা যে রাত কানা
কারো নাই তা জানা ! যেই ছেলের নাম গাজী
আস্ত একটা পাজি। ছোট ছেলে লাল্টুস
বাপের মতই পাল্টুস। পড়ুন
ছড়া ও পদ্য | ১টি মন্তব্য | ২০ বার দেখা | ৩২ শব্দ
আমি থাকবো না
এই যে ফলের বাজার; সাজানো ফল
এই যে লোভাতুর চোখ
এই যে সাধ্য হাত থলে ভরে বাড়িমুখো
এই যে অক্ষম হৃদয়; পীড়িত
পিতার জন্য কাঁদে। এই যে ফুলের বাগান, ফুটে থাকা বসন্ত
এই যে প্রজাপতির ওড়াউড়ি
এই যে মধুকুঞ্জ; প্রেমিকের চোখে চোখ
এই যে অপার প্রেম,
এই পড়ুন
কবিতা | ১টি মন্তব্য | ১১ বার দেখা | ২২০ শব্দ
যে-ই টুকু স্বাধীনতা পেলে
স্বাধীনতা চাই,
যে-ই টুকু স্বাধীনতা পেলে
শিশু মায়ের কোলে নিরাপদে দুগ্ধ পান করতে পারব।
কেউ চাইলে বোমা বিস্ফোরণ করতে পারে না
সেই টুকু স্বাধীনতা । যে-ই টুকু স্বাধীনতা পেলে
রাখাল উদাস মনে বাঁশি বাজাতে পারবে খোলা মাঠে
শঙ্কাহীন ভাবে প্রকৃতির সাথে ।
যে-ই টুকু স্বাধীনতা পেলে,
কৃষক পড়ুন
কবিতা | ৬ টি মন্তব্য | ৩৩ বার দেখা | ১৬০ শব্দ
শূন্য গ্লাস থেকে সমুদ্র যাত্রা
এর মাঝে? তাকিয়ে থাকি।
বৃষ্টির দিনে ঘরের ভিতর ছাতা খুলে রাখি।
জুতা জোড়া দিয়ে পাতিলে
দেই তাপ আগুনে।
হায়রে ভুল, কেবলি ভুল।
ভুল মজ্জাগত, অকুল। শৈশব থেকে আমি সেই জন, ছোট খাট,
কুঁকড়ানো কালো চুলের সংক্ষিপ্ত ছাট-
অনুগত ছিলাম, বয়স্করা ফুট-ফরমাশ খাটিয়ে নিত
অন্য ছেলেমেয়েদের পড়ুন
কবিতা | | ৬ টি মন্তব্য | ২৭০ বার দেখা | ৩২০ শব্দ
এই আষাঢ়ের চিঠি
দূরের পাখিরা জানে এই আষাঢ়ের অন্যনাম-তোমার চিঠি। অথবা ভালোবাসার
পুরনো খাম- নতুন অক্ষরে সাজানো একটি কদমফুল। ভুল করে উজানে বয়ে
যাওয়া নদীর প্রশ্বাস জমা রাখা দুপুর। হতে পারে ভোর- কিংবা দুপুর। যে সময়ের কাছে রেখে এসেছি আলোর অতীত।
মনে পড়ে ? এই আষাঢ়েই আমরা গেড়েছিলাম আরেকটি বিশ্বাসের ভিত পড়ুন
কবিতা | ৩ টি মন্তব্য | ২৪ বার দেখা | ৪৫ শব্দ
হাওয়াই মিঠা
হাওয়াই মিঠা
গোপন ভাবনার পিচে ললাট দেহে
আষাঢ় শুধু চমকে যায়- চমকে যায়
রঙধনুর বৈকালি সাতটি রঙ অথচ
কামচক্ষু রুপালিময় ঠোঁট নতুন হয়-
হাসিটার দৌড় কামচক্ষু রূপালিময়; এক চিমটি মেঘের ছোঁয়ায়-
শ্রাবণ হতে চাই না- না- চাই না
সমস্ত কামনা বাসনা মাটির আরাধনা
আর উত্তাপ হাওয়াই পড়ুন
কবিতা | ৪ টি মন্তব্য | ২৮ বার দেখা | ৬১ শব্দ ১টি ছবি