রুদ্র আমিন-এর ব্লগ

রুদ্র আমিন

এটা আসলে ছদ্মনাম। প্রকৃত নাম: মোঃ আমিনুল ইসলাম। জন্ম: ১৪ই জানুয়ারী ১৯৮১ (সার্টিফিকেট নয়, প্রকৃত), ফুলহারা, ঘিওর, মানিকগঞ্জ। পিতা: মোঃ আব্দুল হাই (আরজু) মাতা: আমেনা বেগম। পড়াশুনা: ডিপ্লোমা ইন কম্পিউটার গ্রাফিক্স ডিজাইনার। পেশা: ব্যবসা।

প্রকাশিত কাব্যগ্রন্থ : যোগসূত্রের যন্ত্রণা (২০১৫); আমি ও আমার কবিতা (২০১৬);
প্রকাশিত গল্পগ্রন্থ : আবিরের লালজামা (২০১৭)।

Facebook Profile photo
বিব্রত অস্তিত্ব
বিব্রত অস্তিত্ব টবে লাগানো সেদিনের বেলী, আজ
স্বাদে, ঘ্রাণে বাস্তবতায় স্পর্শকাতর
অতিথি পাখিরা ঋতুর নিয়মেই আসে,
আবার ভাটার টানে চলেও যায়। সেদিন পেয়েও পেলাম না স্পর্শ
হলুদ কলঙ্ক,
প্রসন্ন গ্রীবা, স্তন, চূড়ান্ত সান্ত্বনা
ভোরের শিশির দানায় লুকোচুরি খেলা
কালো কলঙ্ক, আর বিষণ্নতায় খুলে দেয়া
স্বেচ্ছাসেবী ধর্ষণ দরজা। অতঃপর আলোর নিচে আছি বিকল্প সুখে পড়ুন
কবিতা | ৭ টি মন্তব্য | ১৯ বার দেখা | ৪২ শব্দ
Facebook Profile photo
নেই...
নেই ভাষা নেই
চাওয়ার মাঝে পাওয়া নেই
দূরত্বে দূর নেই
উষ্ণতায় দমকা পেয়েছি এই কথা নেই
স্বর তেষ্টায় জল নেই
চোখের বোল নেই
হৃদ্যতা পোড়া মবিল সেই নেই, নেই
প্রাপ্তির চেয়ে প্রাপ্য বেশি
কথা নেই,
ভাষা নেই,
শরতে শ্বেত শুভ্র কাশফুল নেই প্রেম নেই
মানুষে মানুষের জোর নেই
ধর্মের ধর্ম নেই
জানি তবু মৃত্যু আসবেই কথা নেই
ভাষা নেই
নেই কর্ম
তবুও বলি মানুষে মানুষই পড়ুন
কবিতা | ২ টি মন্তব্য | ১৪ বার দেখা | ৪৪ শব্দ
Facebook Profile photo
স্বাধীনতার ছায়া
স্বাধীনতার ছায়া গাছ দাঁড়িয়ে
আমি দাঁড়িয়ে
সূর্য হেলন চেয়ারে
ছায়ায় ছায়ায় কথা বলে
ছায়ায় দাঁড়িয়ে। তাঁর ছায়া কথা বলে
কান্না হাসির পরে
আমার ছায়া আমার ঘরে
থাকে দূরে সরে। আমি গুনি দিনপুঞ্জি
সে গুনে বসন্ত
চলন্ত এ মূর্তিগুলো
মৃত্যুকে করে জীবন্ত। অতঃপর,
ছায়ায় ছায়ায় সন্ধি করে
চন্দ্র-সূর্য কেঁদে মরে
হাসি-ঠাট্টার অবুঝ কলঙ্ক
জন্মভূমির গা-গতরে। স্বাধীনতা পরাধীনতার কথা বলে
নামানুষের ভালোবাসা ছলে বল-এ। পড়ুন
কবিতা | ২ টি মন্তব্য | ১১ বার দেখা | ৪২ শব্দ
Facebook Profile photo
ঘ্রাণ
ঘ্রাণ যদি স্পর্শের অনুভূতি নাই জাগ্রত হয়, তবে
একবার তাঁর কাঁচা স্নানের ঘ্রাণ শুকে দ্যাখো
শিউলি, বেলি, গোলাপ, গাঁদা মৃত ছাড়া আর
কিছুই নয়। অবিশ্বাস হলে একবার জলের কাছে প্রশ্ন করো
তাঁর চুলের সাথে কি সম্পর্ক তোমার? জবাবে
একটুও বিব্রত না হয়েই বলবে, একবার শুকে দ্যাখো;
তুমিও বলবে, ভালোবাসা কারে বলে। এরপরও যদি পড়ুন
কবিতা | ১টি মন্তব্য | ১২ বার দেখা | ৫৮ শব্দ
Facebook Profile photo
পরিচয়
পরিচয় ভালোবেসে মরে ভালোবাসা, জাগে তবু আকাঙ্খা
ইচ্ছেগুলো বাউরা তালে আউড়া হয়ে করে প্রতিক্ষা।
কবরের দেশে কবর খুরে ভুলে যাই সীমানা
যে যেমন খুশী তেমন চলি করিনা পরওয়ানা।
পুড়ে যাক, নিঃস্ব হয়ে যাক, হোক চারপাশ অসাড়
আমি বেঁচে আছি এটাই সত্য, বাকি মিথ্যে কলস্বর। কে আমি, কে তুমি, বলো পৃথিবীটা কার?
এক পড়ুন
কবিতা | ৩ টি মন্তব্য | ২৭ বার দেখা | ৭৩ শব্দ
Facebook Profile photo
অধরা
অধরা অধরা
তোর চোখে চোখ পড়তেই দেখি আরেকটি বিশ্বযুদ্ধ
তোর রেশমী চুলের ঘ্রাণে খুঁজে পাই শান্ত সমুদ্রের সুনামী তাণ্ডব
তোর কোমড় দুলিয়ে হেঁটে চলা মনে করিয়ে দেয় যুদ্ধের মহড়া
অধরা
অমন কোরে তাকিয়ে থাকিস না, পরমাণুর ভয়ে কঙ্কাল হয়ে যাই
শুধু তোর সমুদ্র জলে একটু ঠাই চাই, নির্বিঘ্ন প্রেম চাই
ধর্মের কলে পড়ুন
কবিতা | ১টি মন্তব্য | ১৫ বার দেখা | ৮৩ শব্দ
Facebook Profile photo
আমার দেখা স্বপ্ন গুলো ...
আমার দেখা স্বপ্ন গুলো স্বপ্ন দেখি
কখনও হাসি আবার কখনও কাঁদি
শত্রু এলে আকাশ পানে
ডানা মেলে জমাই পাড়ি তবুও কাঁদি। স্বপ্ন দেখি
সাদা কাপড়ে অচীনপুরে হাঁটছি একা
দিচ্ছি পাড়ি পাহাড় পর্বত গিরি-মালা,
ডাকছে মা, উঠে দেখি
রবির হাসি, ভিন্ন জগৎ ভিন্ন বালাখানা। স্বপ্ন দেখি
মৃত ব্যক্তির পাশে আছি বসে
খাটিয়া কাঁধে যাচ্ছি গোরে, রাখছে বেঁধে
আমার পড়ুন
কবিতা | ১টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ২৬ বার দেখা | ১৩০ শব্দ
Facebook Profile photo
নর বলে নারী, নারী বলে নর
নর বলে নারী, নারী বলে নর নর এর বল-এ নারী নষ্ট
নারীর সাজে নর
এক জীবনে একটি বিয়ে
মেটেনা তৃষ্ণা স্বর। নর বলে নারী অচল
নারী বলে নর
একে একে হয় বিভেদ
অক্ষমতার ঘর। প্রেমে স্বর্গ প্রেমে নরক
কে চিনিতে পারে
সুখ বিলাসী প্রেমে সকল
শূন্যাকাশে পরে। তন্ত্র-মন্ত্র, তরণ-সরণ
যৌনতায় ভাসায় জীবন
সৃষ্টিকে ভুলে স্রষ্টার বল-এ
ভুলে যায় মরণ। পুরুষ যেমন পড়ুন
জীবন | ১টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ২২ বার দেখা | ২৯১ শব্দ
Facebook Profile photo
মৃত্যুানন্দ
মৃত্যুানন্দ এদিক দ্যাখে ওদিক দ্যাখে
দ্যাখে আলো আঁধার,
ভয় যে লাগে মনের কাঁধে
ধরলো বুঝি এবার। এই বুঝি দেয় বড়শি টান
নাটাই ছাড়া সুতোয়,
কেমন করে চলবে এ প্রাণ
ঢাকনা ছাড়া সময়। এই যে মারে এক আবার
ঐ যে মারে আরেক,
একই সময় অসম মারে
ক খ গ ঘ অমুক। পায়ের ওপর পা দিয়ে ফের
আচ্ছা রকম হাঁটি,
সব পড়ুন
ছড়া ও পদ্য | ২ টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ২৩ বার দেখা | ৯৯ শব্দ
Facebook Profile photo
ডাক
ডাক এই ডাক সেই ডাক নয়, যেখানে উম্মুক্ত আকাশকে সাক্ষী রেখে পদপৃষ্ঠ করে দুর্বাঘাস হবে কবিতা পাঠ। এই ডাক সেই ডাক নয়, যেখানে আলোচনার নামে হবে সমালোচনা; এই ডাক সেই ডাক, যেখান দূষিত রক্তের হবে পোস্টমর্টেম। ভয় পাচ্ছো? কিসের এতো ভয়, তুমি কি বলতে পারো আগামীকাল পড়ুন
জীবন | ৩ টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ৭১ বার দেখা | ১৩৩ শব্দ
Facebook Profile photo
বাজি
বাজি নীল খামেতে স্বপ্ন আমার
সাদা নীলে বাসা,
মনের ভেতর ঝিঁঝিঁ পোকা
তবুও জাগে আশা। দু’চোখেতে আকাশ আমার
বুক পকেটে ভালোবাসা,
স্বপ্নগুলো মনের ভেতর
সে খায়রে বাঘডাসা। মাথার ভেতর এটম আমার
ঠোঁটে-মুখে বাজি
হাতের উপর রাখলে হাত
মরতে আমি রাজি। পড়ুন
ছড়া ও পদ্য | ৬ টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ৩৮ বার দেখা | ২৮ শব্দ
Facebook Profile photo
এবং মানুষ! (উৎসর্গ: জায়েদ হোসাইন লাকী)
আমি মানুষ
আমি কত্তো সুন্দর এক মানুষ
আমার আছে দুটি হাত, আছে দুটি চোখ
চোখ মেললেই দেখি আমার মায়ের মিষ্টি মুখ
আমি হাতের উপর হাত রেখে খুঁজে পাই স্বর্গ সুখ আমি মানুষ
মানুষের মাঝে অবহেলার, মানুষের মাঝে নিন্দুক
জন্ম যেমন মৃত্যু তেমন আমি এক পৃথিবীর এক মুখ
কখনো সুখে, কখনো হতাশায়, কখনো পড়ুন
অন্যান্য | | ১টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ৬০ বার দেখা | ১৮৭ শব্দ
Facebook Profile photo
কবর
কবর খুঁজতে খুঁজতে ক্লান্ত হয়ে পড়েছি, অনেকদিন কবরস্থানের পাশে দাঁড়িয়ে কবরের উপরিভাগের দিকে আনমনে তাকিয়ে থেকেছি, কবর খুঁজে পাওয়া হয়নি, পথিক হয়ে পথিকের নিকট জানতে চেয়ে জেনেছি, মৃত্যু হলেই করবের সন্ধান পেয়ে যাবে, কিন্তু তখন কি বুঝতে পারবো কিংবা অনুভব করতে পারবো এটাই কবর? আজ পড়ুন
কবিতা | | ২ টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ৩২ বার দেখা | ১২১ শব্দ
Facebook Profile photo
দেনমোহর
দেনমোহর আইনুল, নাম এবং কর্মে অনেকটাই মিল রেখে চলেছেন, ভালো চাকরি করেন, মাসিক বেতন প্রায় অর্ধলক্ষ টাকা, হয়তো গায়ের রঙ একটু ছাই রঙের, তাতে কি মেয়েটার বয়স দিন দিন বেড়ে চলে, যেহেতু ছেলে পক্ষের পছন্দ হয়েছে এখন আর দ্বিমত করে লাভ নেই। যে দিনকাল যাচ্ছে, পড়ুন
গল্প | ২ টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ৩৬ বার দেখা | ৩৯৫ শব্দ
Facebook Profile photo
পারস্পরিক মূল্যবোধ
পারস্পরিক মূল্যবোধ আজ যাকে দুঃখ বলে ডাকি
তাকে বারংবার সুখের কাছেই খুঁজে পাই!
আবার যাকে সুখ বলে বুঝি
সেও দেখি দুঃখের বাড়ির পাহারাদার!
চাঁদ সুরুজের মতো যখন
কাঙ্খিত সুখ সম্মুখ হেসে বেড়ায় বুকে বুক মিলিয়ে
ঠিক তখনি হারিয়ে ফেলি দু’টোর বাতিঘর নিমিষেই
অতঃপর, সুখ বলে কিছু নেই, দুঃখটাই সুখ;
আঁধার যেখানে নেই পড়ুন
কবিতা | ২ টি মন্তব্য | মন্তব্য বন্ধ রাখা আছে | ৩১ বার দেখা | ৪৯ শব্দ